মাত্র ২০ টাকায় ভাত-ডাল-মাংস তরকারি! রোগীদের খাবার বিক্রি হচ্ছে হাসপাতালের বাইরে

মাত্র ২০ টাকায় ভাত-ডাল-মাংস তরকারি! রোগীদের খাবার বিক্রি হচ্ছে হাসপাতালের বাইরে

রোগীদের জন্য তৈরি খাবার বাইরে বিক্রির অভিযোগ কলকাতা মেডিক্যাল কলেজের কর্মীদের একাংশের বিরুদ্ধে।

  • Share this:

Avijit Chanda

#কলকাতা: আজব কান্ড কলকাতা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রিজিওনাল ইনস্টিটিউট অফ অপথ্যালমোলজি বা RIO-তে। ২০ টাকা দিলেই মিলছে ভাত ডাল মাংস তরকারি।  অভিযোগ, হাসপাতাল কর্মীদের একাংশ যারা ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে রোগীদের কাছে খাবার পৌঁছে দেন, তারা রোগীদের এই খাবার চুরি করে রোগীকে দেখতে আসা আত্মীয়দেরই বিক্রি করছেন।  রোগীদের জন্য তৈরি খাবার বাইরে বিক্রির অভিযোগ কলকাতা মেডিক্যাল কলেজের কর্মীদের একাংশের বিরুদ্ধে। রোগীর আত্মীয়দের কাছেই চলছে খাবার বিক্রি। কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে উঠছে নিস্ক্রিয়তার অভিযোগ।

অনেক সময় চুরি করা খাবার বিক্রির সময় জোরজবরদস্তিও করা হচ্ছে বলে অভিযোগ তুলেছেন রোগীর পরিজনেরা ৷ মধ্যে কেউ কেউ এমন গুরুতর অভিযোগও করেছেন যে চুরি করে বিক্রি করার সময় জোরজবরদস্তি করেও অনেক সময় বলা হচ্ছে কুড়ি টাকা দিন খাবার নিন। সেটা সকালের টিফিন বা দুপুরের খাবার।

এখানেই থেমে নেই অভিযোগের বহর রোগীর পরিষদের একাংশ বলেন,  তারা বারবার অনুরোধ করেছিলেন রোগীর জন্য নির্দিষ্ট খাবার তাদেরকে ঠিকভাবে দেওয়া হোক। তারা বলেন রোগীর জন্য সরকার যে খাবার নির্দিষ্ট করে দিয়েছে সেই পরিমাণ ভাত মাছের ওজন মাংসের ওজন বা তরকারি ঠিকভাবে দেওয়া হোক। কিন্তু বাস্তবে সঠিক খাবার দেওয়ার বদলে তার থেকে চুরি করে ওয়ার্ডের ভিতরে বিক্রি চলছে ৷ অর্থাৎ এক রোগীর খাবারকে দু’ভাগ করে দুজনকে বিক্রি করা হচ্ছে সেখানে রোগী পাচ্ছেন যৎসামান্য। কয়েকজন রোগীর পরিবার গোটা বিষয়টি নিজেদের মোবাইলে ভিডিও করেন । ছবি দেখিয়ে নার্সদের অভিযোগও জানান। পরে  রিজিওনাল ইনস্টিটিউট অফ অপথ্যালমোলজি বা RIO-এর ডিরেক্টরকে ছবি দেখিয়ে অভিযুক্তদের চিনিয়েও দেন রোগীর পরিজনেরা।

পরিজনদের বক্তব্য, ডিরেক্টর তাদের লিখিত অভিযোগ করতে বলেন ।  যেহেতু রোগী ওয়ার্ডে ভর্তি রয়েছে, তার ক্ষতির আশঙ্কায় তারা লিখিত অভিযোগ করছেন না।  এত ঘটনার পরও সংশ্লিষ্ট কর্মীদের বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থাই নেওয়া হয়নি । কর্তৃপক্ষের নিস্ক্রিয়তায় প্রশ্ন উঠছে তাহলে কী এর ভিতরে বড় কোনও চক্র কাজ করছে?

Loading...

First published: 06:11:53 PM Dec 01, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर