corona virus btn
corona virus btn
Loading

অতি বিরল লাল সাপের দেখা মিলল উত্তরপ্রদেশে, প্রায় ৮২ বছর পর!

অতি বিরল লাল সাপের দেখা মিলল উত্তরপ্রদেশে, প্রায় ৮২ বছর পর!
Pic: Twitter

এটি একটি বিষহীন সাপ । পোকামাকড় খেয়ে পেট ভরায় এরা । এদের গায়ের রং লালচে কমলা ।

  • Share this:

#উত্তরপ্রদেশ: গোটা দেশে প্রায় তিন মাস ধরে চলেছে লকডাউন । করোনা আতঙ্কে গৃহবন্দী থেকেছে গোটা দেশই । এখন আনলক পর্ব শুরু হলেও খুব দরকার ছাড়া ঘর থেকে বেরচ্ছেন না সাধারণ মানুষ । আর সেই সুযোগেই যেন ডানা মেলতে চলেছে এই বসুন্ধরা । কবি লিখেছিলেন, ‘দাও ফিরে সে অরণ্য, লও এ নগর।’ গোটা দেশ যখন কাবু ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র একটি ভাইরাসের চোখ রাঙানিতে । বিশ্ব যখন নাভিঃশ্বাস তুলছে । তখন আপন খেয়ালে ফের নিজেকে একটু গুছিয়ে নিচ্ছে প্রকৃতি ।

মানুষের অত্যাচারে একটু ওলোটপালট হয়ে যাওয়া, অনেকটা দূষণ বেড়ে যাওয়া, আন্টার্টিকার গলে যাওয়া বরফ, বেড়ে যাওয়া জলস্তর, কমে যাওয়া সবুজ, ফিকে হয়ে যাওয়া অক্সিজেন, সবটাই আবার একটু একটু করে সাজিয়ে নিচ্ছে প্রকৃতি মা । লকডাউন পর্বে নিস্তেজ হয়ে যাওয়া শহরে বিনা চিন্তায় হেঁটে বেড়াতে দেখা গিয়েছে হরিণ,, নীলগাই, বাঘরোল, ভামের দলকে । পরিষ্কার আকাশে আরও পরিষ্কার বাতাসে প্রাণ ভরে শ্বাস নিচ্ছে সকলে । লকডাউনে দূষণও কমেছিল উল্লেখযোগ্য হারে । আর সেই সঙ্গে বেড়েছে বন্যপ্রাণীদের বিচরণও ।

সম্প্রতি যমুনার জলে ফিরে আসতে দেখা গিয়েছে ঘড়িয়ালদের । অন্যদিকে আবার উত্তরপ্রদেশে দেখা মিলল অতি বিরল লাল সাপের । যাকে বলা হয় রেড কোরাল কুকরি স্নেক । লখিমপুর খেরির দুধয়া জাতীয় উদ্যানে সাপটির দেখা মিলেছে । ১৯৩৬ সালে প্রথমবার দুধয়াতে এই সাপটি দেখা গিয়েছিল । সাপটির বিজ্ঞানসম্মত নাম ‘অলিগোডন খেরিয়েন্সিস’ । এই খেরি এলাকাতেই এদের আদি বাসস্থান । প্রায় ৮২ বছর পর ফের গত বছর একবার দেখা গিয়েছিল লাল রঙা এই সাপকে । এরপর সম্প্রতি আবার দেখা দেয় এটি । এটি একটি বিষহীন সাপ । পোকামাকড় খেয়ে পেট ভরায় এরা । এদের গায়ের রং লালচে কমলা । দাঁতগুলি নেপালি অস্ত্র কুকরির মতো । তাই এদের এমন নামকরণ ।

Published by: Simli Raha
First published: June 30, 2020, 7:20 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर