corona virus btn
corona virus btn
Loading

খাবার নেই, জল নেই ! বাড়ি ফেরার আশায় ১২ দিন ধরে হেঁটে চলেছে গোটা পরিবার !

খাবার নেই, জল নেই ! বাড়ি ফেরার আশায় ১২ দিন ধরে হেঁটে চলেছে গোটা পরিবার !
News18 Hindi

এখনও ৭০০ কিলোমিটার হাঁটতে হবে তাঁদের। কিন্তু তাঁর ছেলে মেয়েরা কেউ আর পারছে না হাঁটতে।

  • Share this:

#মহারাষ্ট্র: তিন সন্তান। স্ত্রী, শ্বশুর ও বিশেষভাবে সক্ষম ভাইকে নিয়ে সংসার বিনোদের। মহারাষ্ট্রের ধুলেতে থাকতেন তাঁরা। কর্মসূত্রেই উত্তরপ্রদেশের আলিগড় ছেড়ে ধুলেতে গিয়েছিলেন গোটা পরিবার। সেখানে বেলুন বিক্রি করেই চলতো তাঁদের সংসার। সব ঠিক ছিল। কোনও রকমে চলে যাচ্ছিল সংসার। তার মাঝে হঠাৎ করেই করোনা ভাইরাসের আক্রমণ। দেশ জুড়ে চালু লকডাউন। বন্ধ বেলুন বিক্রি। একবেলার খাবার জোটানোর মতো পয়সাও ছিল না তাঁদের কাছে। তাই বাধ্য হয়ে নিজের দেশে ফিরতে চাইলেন বিনোদ। কিন্তু লকডাউনের জন্য বাস, ট্রেন সব বন্ধ। পায়ে হেঁটেই গ্রামে ফেরার সিদ্ধান্ত নেয় বিনোদ ও তাঁর পরিবার।

হুইল চেয়ারে বৃদ্ধ শ্বশুর ও ভাইকে বসিয়ে যাত্রা শুরু করে তাঁরা। স্ত্রী ও তিন ছেলে মেয়েকে নিয়ে ১২ দিন ধরে হেঁটে চলেছেন এই পরিবার। রাস্তায় জুটছে খাবার। জল। কোনওরকমে পথের ধারে রাত কাটিয়ে সকাল থেকে খালি পেটেই আবার হাঁটতে শুরু করছে গোটা পরিবার। ১২ দিন ধরে হেঁটে তাঁরা মধ্যপ্রদেশের ইন্দোরে পৌঁছেছেন।

ইন্দোরে হেঁটে চলা পরিবারকে দেখে এগিয়ে আসে কিছু মানুষ। বিনোদ জানান, কয়েকদিন ধরে কিছু না খেয়েই হেঁটে চলেছেন তাঁরা। করোনা ভাইরাসে তাঁদের মৃত্যু হবে কিনা জানা নেই। কিন্তু এভাবেই বা তাঁরা বাঁচবেন কি করে। এখনও ৭০০ কিলোমিটার হাঁটতে হবে তাঁদের। কিন্তু তাঁর ছেলে মেয়েরা কেউ আর পারছে না হাঁটতে। বাধ্য হয়েই ইন্দোরে এসে থমকে গিয়েছেন তাঁরা। ঠিক এভাবেই ভারতের রাস্তায় হেঁটে চলেছেন পরিযায়ী শ্রমিকরা। শুধু মাত্র একটু খাবার ও নিজের গ্রামে বা বাড়িতে ফেরার আশায়।

First published: May 5, 2020, 7:54 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर