'আমি গর্বিত মুসলিম মহিলাদের অধিকার ফিরিয়ে দিতে সফল এই সরকার', ট্যুইট বার্তা নরেন্দ্র মোদির

'আমি গর্বিত মুসলিম মহিলাদের অধিকার ফিরিয়ে দিতে সফল এই সরকার', ট্যুইট বার্তা নরেন্দ্র মোদির

মুসলিম মহিলাদের প্রতি অবিচারের এই প্রথা আজ শেষ করল সংসদ । লিঙ্গসাম্য ও সার্বিক সমতার জন্য প্রয়োজনীয় ছিল এই বিল, আজ ভারতের গর্বের দিন', ট্যুইটে জানিয়েছেন মোদি

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: মোদি সরকারের জন্য ইতিবাচক এক পদক্ষেপ বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা- বিরোধীদের আপত্তির মধ্যেই সংসদে পাস হল তিন তালাক বিল। এই বিল পাস হওয়ার দরুণ কার্যকরী হবে নয়া আইন ও সেই আইনের আওতায় ফৌজদারি অপরাধ হিসেবে গণ্য হবে তাৎক্ষণিক তিন তালাক ।

তিন তালাক বিল পাস হওয়ার পর একাধিক ট্যুইটে দেশবাসীকে অভিনন্দন জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি । 'শেষপর্যন্ত একটি প্রাচীন ও মধ্যযুগীয় প্রথা ইতিহাসের বাতিলের তালিকায় চলে গেল । যুগের পর যুগ মুসলিম মহিলাদের প্রতি অবিচারের এই প্রথা আজ শেষ করল সংসদ । লিঙ্গসাম্য ও সার্বিক সমতার জন্য প্রয়োজনীয় ছিল এই বিল, আজ ভারতের গর্বের দিন', ট্যুইটে জানিয়েছেন মোদি ।

রাজ্যসভায় ভোটাভুটির সময় উপস্থিত ছিলেন না একাধিক সাংসদ,ছিলেন না বিএসপি, টিআরএসের সাংসদরা। তবে যে সমস্ত সাংসদ এই বিলের পক্ষে ভোট দিয়েছেন তাঁদের ধন্যবাদ জানিয়েছেন মোদি ।

'আজকের এই সময়ে দাঁড়িয়ে সেই সমস্ত মুসলিম মহিলাদের কুর্ণিশ জানাই, যাঁরা দীর্ঘকাল ধরে এই অবিচারের সঙ্গে লড়াই করেছেন । তাৎক্ষণিক তিন তালাকের বিলুপ্তি মহিলাদের সমৃদ্ধি ও সমাজে তাঁদের সম্মান রক্ষা করার জন্য গুরুত্বপূর্ণ',আরও এক ট্যুইটে মন্তব্য মোদির ।

'আজকের দিনটি পুরো দেশের জন্য ঐতিহাসিক একটি দিন । আজ লক্ষাধিক মুসলিম মা-বোনেরা বিজয়ী হয়েছেন ও মর্যাদার সঙ্গে বেঁচে থাকার অধিকার ছিনিয়ে নিয়েছেন তাঁরা । শতাব্দী প্রাচীন এই নিয়মের শিকার হওয়া মহিলারা আজ ন্যায় পেয়েছেন ও এই কৃতীত্বের জন্য আমি প্রত্যেকটি সাংসদকে কৃতজ্ঞতা জানাই', ট্যুইট করেছেন মোদি ।

'নারী ক্ষমতায়নের স্বার্থে তিন তালাক বিল একটি বড় পদক্ষেপ, কেবলমাত্র তুষ্টিকরণের স্বার্থে দেশের কোটি কোটি নারীকে তাঁদের অধিকার থেকে বঞ্চিত করা হয়েছে ; কিন্তু আমি গর্বিত তাঁদের সেই অধিকার ফিরিয়ে দিতে সফল হয়েছে আমার সরকার', বার্তা নরেন্দ্র মোদির।

রাজ্যসভায় ভোটাভুটি পর্ব শেষে পাস হয়ে গিয়েছে তিন তালাক বিল । এই বিল পাস হওয়ার ফলে এবার ফৌজদারি অপরাধ হিসেবে গণ্য করা হবে তাৎক্ষণিক তিন তালাক । আজ রাজ্যসভায় এই বিলের পক্ষে ৯৯ ভোট ও বিপক্ষে ৮৪টি ভোট পড়েছে ।তাৎক্ষণিক তিন তালাক প্রক্রিয়াকে অপরাধ ঘোষণা করার দাবিতে তিন তালাক বিলের প্রস্তাব এনেছিল বিজেপি সরকার । ২০১৭ সালেই তাৎক্ষণিক তিন তালাককে অসাংবিধানিক ঘোষণা করেছিল সুপ্রিম কোর্ট ।

First published: July 30, 2019, 8:27 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर