• Home
  • »
  • News
  • »
  • national
  • »
  • Uttarakhand Fire: ২৪ ঘণ্টায় ৬৩ হেক্টর জঙ্গল পুড়ে ছাই, হাই অ্যালার্ট জারি

Uttarakhand Fire: ২৪ ঘণ্টায় ৬৩ হেক্টর জঙ্গল পুড়ে ছাই, হাই অ্যালার্ট জারি

কেন্দ্রের তরফ হেলিকপ্টার এবং এনডিআরএফ জওয়ানদের উত্তরাখণ্ডে পাঠানো হয়েছে।

কেন্দ্রের তরফ হেলিকপ্টার এবং এনডিআরএফ জওয়ানদের উত্তরাখণ্ডে পাঠানো হয়েছে।

কেন্দ্রের তরফ হেলিকপ্টার এবং এনডিআরএফ জওয়ানদের উত্তরাখণ্ডে পাঠানো হয়েছে।

  • Share this:

    #দেরাদুন:

    ক্রমশ নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যাচ্ছে উত্তরাখণ্ডের জঙ্গলের আগুন। গত ২৪ ঘন্টায় ৪৫টি নতুন এলাকার জঙ্গলে আগুন ছড়িয়ে পড়েছে বলে খবর। গত ২৪ ঘণ্টায় ৬৩ হেক্টর এলাকার জঙ্গল পুড়ে ছাই হয়ে গিয়েছে। ইতিমধ্যে উত্তরাখণ্ডের মুখ্যমন্ত্রী তিরথ সিং রাওয়াত আগুন মোকাবিলায় কেন্দ্রের সাহায্য প্রার্থনা করেছেন। পরিস্থিতি উদ্বেগজনক। তাই কেন্দ্রের তরফ হেলিকপ্টার এবং এনডিআরএফ জওয়ানদের উত্তরাখণ্ডে পাঠানো হয়েছে। করবেট ন্যাশনাল পার্ক-এর জঙ্গলেও আগুন লাগার সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে। তাই উত্তরাখণ্ডের প্রশাসন চিন্তায় পড়েছে। হু হু করে জঙ্গলের এক প্রান্ত থেকে আরেক প্রান্তে ছড়িয়ে পড়ছে আগুন। শনিবার রাত পর্যন্ত রামনগরের জঙ্গল পর্যন্ত আগুন ছড়িয়ে ছিল। কিন্তু এখন সেই আগুন তরাইয়ের পশ্চিম ভাগ পর্যন্ত ছড়িয়ে পড়েছে।

    সাবল্দে, হলদুয়া ও কাশিপুরের রেঞ্জ-এর জঙ্গল পুড়ে ছাই হয়ে গেছে ইতিমধ্যে। এই সব এলাকা করবেট ন্যাশনাল পার্ক-এর পার্শ্ববর্তী।

    উত্তরাখণ্ডের মন্ত্রী হরক সিং রাওয়াত জানিয়েছেন, রাজ্যের ৯৬৪টি জঙ্গলে কম-বেশি আগুন ছড়িয়ে পড়েছে। এই সময়ে মৃদুমন্দ বাতাস বইছে। তাই পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে। কেন্দ্রের তরফে এবার হেলিকপ্টার-এর মাধ্যমে জঙ্গলের আগুন নেভানোর চেষ্টা করা হবে। আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য ১২ হাজার বন দফতরের কর্মী দিন-রাত চেষ্টা চালাচ্ছেন। আপৎকালীন বৈঠকে বন দফতরের আধিকারিক ও জেলা শাসকদের সঙ্গে বসেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। বনদফতর জানিয়েছে, ২০২০ সালের পয়লা অক্টোবর-এর পর ১৩৫৯ হেক্টর জমির জঙ্গলে ১০২৮ বার আগুন লাগার ঘটনা ঘটেছে। দেবদারু, পাইনসহ বহু প্রজাতির গাছ ইতিমধ্যে পুড়ে ছাই হয়েছে। এমনকি বন্যপ্রাণীদের ক্ষতিও চিন্তা বাড়িয়েছে উত্তরাখণ্ডের প্রশাসনের। গত কয়েকদিন ধরে হাজার চেষ্টা সত্ত্বেও আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে পারছেন না বন দফতরের কর্মীরা।

    ইতিমধ্যে উত্তরাখণ্ডের বিস্তীর্ণ এলাকায় হাই অ্যালারট জারি করেছে প্রশাসন। আগুন ছডিয়ে পড়া আটকানোই এখন সব থেকে বড় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে। আজ থেকেই বিপর্যর মোকাবিলায় দলের কর্মীরা হেলিকপ্টারের মাধ্যমে জঙ্গলের আগুন নেভানোর কাজ শুরু করবেন।
    Published by:Suman Majumder
    First published: