দড়ি দিয়ে বেঁধে গণধর্ষণ, গোপনাঙ্গে পাথর ঢুকিয়ে নির্যাতিতার গায়ে ধর্ষকের মূত্রত্যাগ– News18 Bengali

দড়ি দিয়ে বেঁধে গণধর্ষণ, গোপনাঙ্গে পাথর ঢুকিয়ে নির্যাতিতার গায়ে ধর্ষকের মূত্রত্যাগ

দড়ি দিয়ে বেঁধে গণধর্ষণ, গোপনাঙ্গে পাথর ঢুকিয়ে নির্যাতিতার গায়ে ধর্ষকের মূত্রত্যাগ

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jul 17, 2017 12:23 PM IST
দড়ি দিয়ে বেঁধে গণধর্ষণ, গোপনাঙ্গে পাথর ঢুকিয়ে নির্যাতিতার গায়ে ধর্ষকের মূত্রত্যাগ
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Jul 17, 2017 12:23 PM IST

#মুম্বই: ফের এমনই নৃশংস ও নারকীয় ঘটনার সাক্ষী ভারত ৷ রাজধানী, বেঙ্গালুরুর পর এবার মহারাষ্ট্র ৷ বছর চল্লিশের এক মহিলাকে অপহরণ করে গণধর্ষণ ও পাশবিক নির্যাতনের অভিযোগ উঠল মহারাষ্ট্রের লাতুরে ৷

গত ১৩ জুলাই লাতুর জেলার উদগিরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন পরিবারের এক সদস্যকে দেখতে গিয়েছিলেন নির্যাতিতা ৷ ফেরার পথে শানু চক থেকে একটি অটোয় ওঠেন তিনি ৷ কিছুদূর যাওয়ার পরই অটোর রাস্তা আটকে দাঁড়ায় তিন যুবক ৷ নির্যাতিতার অভিযোগ, জোর করে অটোয় ওঠেন তারা ৷ অটোচালককে খুনের হুমকি দিলে তিনি সওয়ারি ফেলেই সেখান থেকে পালিয়ে যান ৷  শানু চক থেকে সেহাল রোডের ওই রাস্তাটি নির্জন হওয়ায় মহিলার চিৎকার করেও কোনও সাহায্য পাননি ৷ এরপর হাত-পা বেঁধে মহিলাকে গণধর্ষণ করে তিন দুষ্কৃতি ৷

তাতেও শেষ হয়নি তাদের অত্যাচার ৷ গণধর্ষণের পর মহিলার আর্তনাদ শুনে রাস্তা থেকে পাথর তুলে তাঁর রক্তাক্ত গোপনাঙ্গে ঢুকিয়ে দেওয়া হয় ৷ নির্যাতিতাকে হাত-পা বাঁধা অবস্থায় সেখানে ফেলে রেখে পালিয়ে যায় অভিযুক্তেরা ৷ এমনকী, যাওয়ার আগে মহিলার গায়ে অভিযুক্তেরা মূত্রত্যাগও করে বলে অভিযোগ ৷

পরে স্থানীয়রা রক্তাক্ত, বিবস্ত্র নির্যাতিতাকে দেখতে পেয়ে তাঁকে নিকটবর্তী হাসপাতালে নিয়ে যান ৷ পরে তাঁর অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় লাতুর হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয় ৷

অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে গণধর্ষণ সহ একাধিক ধারায় মামলা দায়ের করেছে পুলিশ ৷ সিসিটিভি ফু়টেজ খতিয়ে দেখে তিন দুষ্কৃতির খোঁজে চলছে তল্লাশি ৷

First published: 12:23:46 PM Jul 17, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर