corona virus btn
corona virus btn
Loading

বাজারে রয়েছে ৩৭.৩ বিলিয়ন মূল্যের ২০০০ টাকার নোট !

বাজারে রয়েছে ৩৭.৩ বিলিয়ন মূল্যের ২০০০ টাকার নোট !
Photo- Representive
  • Share this:

#নয়াদিল্লি :২০০০ টাকার নোট ছাপাতে যা খরচ তার কথা মাথায় রেখেই নয়া এক সিদ্ধান্ত নিয়েছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক ৷ তারা জানিয়েছে আগামী অর্থবর্ষে এই নোট কম সংখ্যায় ছাপাবে ৷

২০১৬ সালে নোটবন্দির পর ভারতে এসেছিল নতুন ২,০০০ টাকার নোট । এবার আরও এক নয়া সিদ্ধান্ত নিয়েছে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া । আর নোটবন্দির সেই কথা মাথায় রেখেই সাধারণ উপভোক্তারা অনেকেই ভয় পেয়েছেন আবার ২০০০ টাকার নোটেও সেরকম কিছু হবে না তো ৷ কিন্তু সেরকম কিছু যে নয় তা আশ্বস্ত করতেই বোধহয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক জানিয়েছে বাজারে কোন অ্যামাউন্টের নোট কত আছে ৷

এদিকে যে নোট প্রিন্টিংয়ের সংখ্যা কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সেই ২০০০ টাকার নোট মার্চ অবধি কতটা বাজারে আছে তা জানিয়েছে আরবিআই ৷ মার্চ অবধি ৩৭.৩ বিলিয়ন টাকা মূল্যের ২০০০ টাকার নোট বাজারে রয়েছে ৷

৪২. ৯ বিলিয়ন টাকা মূল্যের ৫০০ টাকার নোট রয়েছে বাজারে ৷ এটাই সবচেয়ে বেশি মূল্যের নোট সার্কুলেট হয়েছে ৷

Bank notes in circulation

২,০০০ টাকা র নোট উৎপাদন কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে আরবিআই ।তবে এখনই ২,০০০ টাকার নোট সম্পূর্ণ রূপে অচল হয়ে যাচ্ছে না৷ ছাপা বন্ধ হয়ে যাওয়ার পরে আস্তে আস্তে বাজার থেকে সংকোচন করা হবে, অর্থমন্ত্রক সূত্রের খবর ।

২০১৬ সালে নোটবন্দির সময় নভেম্বরে রিজার্ভ ব্যাঙ্ক এই ২,০০০ টাকার নোট বাজারে নিয়ে এসেছিল ৷ একই সময়ে পুরনো ১,০০০ টাকা ও ৫০০ টাকা রাতারাতি বাজার থেকে তুলে নিয়েছিল আরবিআই ৷ ফলে সারা দেশে একটা টাকার যোগানের সমস্যা হয়েছিল ৷যদিও আরবিআই আধিকারিকদের মতে এর আগেও ২,০০০ টাকার নোট উৎপাদন কমানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে এমনকি, এই নোট উৎপাদন কমিয়েও দেওয়া হয়েছে তাই এটি নতুন কোনও বিষয় নয় ।

২০১৮ সালের মার্চ মাসে মোট নতুন নোট ছাপাতে খরচ হয়েছিল প্রায় ১৮.০৩ কোটি টাকা ৷ অর্থাৎ ২,০০০ টাকার নোট ছাপাতে প্রায় ৩৭ শতাংশ বা ৬ লক্ষ কোটি টাকারও বেশি খরচ হয়েছে। এর পাশাপাশি আগের থেকে নোট ছাপার খরচ অনেকটাই বেড়েছে বলেই জানা গিয়েছে ৷২০১৮ সালের মার্চ মাসে মোট নতুন নোট ছাপাতে খরচ হয়েছিল প্রায় ১৮.০৩ কোটি টাকা ৷ অর্থাৎ ২,০০০ টাকার নোট ছাপাতে প্রায় ৩৭ শতাংশ বা ৬ লক্ষ কোটি টাকারও বেশি খরচ হয়েছে। এর পাশাপাশি আগের থেকে নোট ছাপার খরচ অনেকটাই বেড়েছে বলেই জানা গিয়েছে ৷

First published: January 4, 2019, 7:53 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर