21 July| Tripura| tmc shahid diwas| করোনাই কাঁটা! ত্রিপুরায় ২১ জুলাই পালনে বাধা পাচ্ছে তৃণমূল!

ত্রিপুরায় ২১ জুলাই পালনে বাধা পাচ্ছে তৃণমূল।

21 July| Tripura| tmc shahid diwas| - পরিকল্পনা ছিল, আগরতলা-সহ বিভিন্ন জায়গায় জায়ান্ট স্ক্রিন বসিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তব্য শোনানো হবে৷

  • Share this:

    #আগরতলা: মিলল না জেলা প্রশাসনের অনুমতি৷ তাই পরিকল্পনা সত্ত্বেও ত্রিপুরায় একুশে জুলাই পালন করতে গিয়ে জটিলতার মুখে তৃণমূল কংগ্রেস৷ পরিকল্পনা ছিল, আগরতলা-সহ বিভিন্ন জায়গায় জায়ান্ট স্ক্রিন বসিয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তব্য শোনানো হবে৷ কিন্তু জেলাশাসকের অনুমতি না মেলায় জায়ান্ট স্ক্রিন বসানোও সম্ভব হচ্ছে না৷ ত্রিপুরায় বেলা ২টো থেকে করোনা বিধিনিষেধের কারণে কার্ফু জারি হয়ে যায়, তাই তৃণমূলের পরিকল্পনা বড় ধাক্কা খেল৷  যদিও এখনই হার মানতে চাইছেন না কর্মীরা। জানা যাচ্ছে, আজ ২১ জুলাই জায়ান্ট স্ক্রিন ব্যবহারে বাধা পেলে প্রজেক্টর ব্যবহার করতে পারেন তারা।

    এবার ২১ জুলাই পালনে ত্রিপুরাকে আলাদা গুরুত্ব দিয়েছে তৃণমূল। কারণ পড়শি রাজ্য়ে প্রভাব বিস্তারের মাধ্যমেই তৃণমূল নিজেকে প্রসারিত করতে চেয়েছে। সেই মতো আগেভাগে ডাক পাঠানো হয়েছিল আশিস লাল সিং-কে। রাজনৈতিক মহলের মতে, ত্রিপুরাতেও বিজেপিকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কড়া চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিলে ২০২৪ এর লোকসভা ভোটের আগে জাতীয় স্তরে যে বার্তা যাবে তাতে বিজেপি বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলির সুবিধা হবে। দ্বিতীয়ত, মমতা বন্দোপাধ্যায় যে একমাত্র বিজেপি বিরোধী মুখ সেটাও বুঝিয়ে দেওয়া যাবে। তাই ত্রিপুরায় এখন থেকেই সংগঠনের ঝাঁজ বাড়াতে চাইছে তৃণমূল কংগ্রেস।

    এই সব বিবেচনা করেই পোস্টার ছড়ানো শুরু হয়। কিন্তু বাধ সাধছে করোনা। গত কয়েক মাস ধরেই ত্রিপুরার করোনা পরিস্থিতি সামাল দেওয়া যাচ্ছে না। সেই অজুহাত সামনে রেখেই বিপ্লব দেব সরকার তৃণমূলকে বেগ দিতে চাইছে। কার্ফু জারি তাই জমায়েতে স্বাভাবিক ভাবেই না।

    অবশ্য শুধু ত্রিপুরাই নয়। তৃণমূল নিজেদের অস্তিত্ব বৃদ্ধিতে মরিয়া ফলে গুজরাট, উত্তরপ্রদেশের মতো রাজ্যগুলিতেও ২১ জুলাই পালনের প্রস্তুতি রয়েছে তাদের। গুজরাটের ৩২ টি জেলায় জায়েন্ট স্ক্রিনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বক্তব্য শোনানোর ব্যবস্থা করা হতে পারে। তবে ত্রিপুরার ক্ষেত্রে এখন দেখার এই পরিস্থিতিতে কী রণকৌশল নেয় তৃণমূল।

    -ইনপুট আবীর ঘোষাল

    Published by:Arka Deb
    First published: