Home /News /national /
Education: 'আমি আর পারছি না, ক্ষমা করো', মাকে চিঠি লিখে চরম কাণ্ড ঘটাল ডাক্তারি পরীক্ষার পড়ুয়া

Education: 'আমি আর পারছি না, ক্ষমা করো', মাকে চিঠি লিখে চরম কাণ্ড ঘটাল ডাক্তারি পরীক্ষার পড়ুয়া

প্রতীকী ছবি৷

প্রতীকী ছবি৷

Education: আত্মঘাতী পড়ুয়ার দেহ উদ্ধার করার পাশাপাশি একটি সুইসাইড নোট উদ্ধার করেছে পুলিশ।

  • Share this:

    #লখনউ: সিলিং ফ্যানে ঝুলছে দেহ। লখনউয়ের বাড়িতে দুদিন আগে পর্যন্ত ছিল আনন্দের আবহাওয়া। হঠাৎ বদলে গেল সব। ডাক্তারির পরীক্ষার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন লখনউয়ের শামা ওঝা। কিন্তু আর চাপ নিতে পারছিলেন না তিনি। সেই কারণেই শেষে নিলেন চরম এক সিদ্ধান্ত। আত্মহত্যা করলেন লখনউয়ের সেক্টর ১২-এর বাসিন্দা।

    আরও পড়ুন: নববর্ষের ভুরিভোজ হোক বিরিয়ানিতে, শহরের এই রেস্তোরাঁয় হবে ফুড ফেস্টিভ্যাল! জানুন

    আত্মঘাতী পড়ুয়ার দেহ উদ্ধার করার পাশাপাশি একটি সুইসাইড নোট উদ্ধার করেছে পুলিশ। সেই চিঠিতে লেখা হয়েছে, আমি ভিতর থেকে একেবারে শক্তিশালী নই। আমি আর চাপ নিতে পারছি না। আমি আমার সিদ্ধান্ত নিয়ে মোটে খুশি নই। আমি সময় নষ্ট করেছি। আমি বিশ্বাস করি নিজেকে, কিন্তু আমি নিজেকে ভেঙে ফেলেছি। দয়া করে আমাকে ক্ষমা করো।

    আরও পড়ুন: ডাক্তাররা চোখ টেনেই শরীরের হিমোগ্লোবিন দেখেন, কীভাবে রক্তের ঘাটতি মেটাবেন জানেন?

    আত্মঘাতী পড়ুয়ার মা জানিয়েছেন, ওই সময়ে ওই পড়ুয়া একাই ছিলেন বাড়িতে। কাজ থেকে সবে ফিরেছিলেন ওই মহিলা। তিনি মেয়েকে বারবার ডাকাডাকি করেন। কিন্তু মেয়ে দরজা খোলে না। তাতেই সন্দেহ হয় মায়ের। তিনি অনেক কষ্টে দরজা ভেঙে ঘরে ঢোকেন। দেখেন মেয়ের দেহ ঝুলছে। এর পর খবর দেওয়া হয় পুলিশে। পুলিশ এসে দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায়। লখনউয়ের পুলিশ কমিশনার জানিয়েছেন, এই গোটা ঘটনার তদন্ত করা হচ্ছে।

    Published by:Uddalak B
    First published:

    Tags: Education

    পরবর্তী খবর