পোলিও ফোঁটার বদলে হ্যান্ড স্যানিটাইজার দেওয়ায় হাসপাতালে ভর্তি ১২ জন শিশু

পোলিও ফোঁটার বদলে হ্যান্ড স্যানিটাইজার দেওয়ায় হাসপাতালে ভর্তি ১২ জন শিশু
12 Kids Administered Hand Sanitiser Instead of Oral Polio Drops in Maharashtra, Representational image

পোলিও ফোঁটার বদলে হ্যান্ড স্যানিটাইজার দেওয়ায় কমপক্ষে ১২ জন শিশুকে হাসপাতালে ভর্তি করতে হল৷ ভয়ঙ্কর এই ঘটনাটি ঘটেছে মহারাষ্ট্রের ঘাতাঞ্জি জেলার অন্তর্গত কাপসি-কোপারি গ্রামের প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে৷ রিপোর্ট সংবাদ সংস্থা আইএএনএস-এর৷

  • Share this:

    #মুম্বই: পোলিও ফোঁটার বদলে হ্যান্ড স্যানিটাইজার দেওয়া হল মুখের মধ্যে! এই ঘটনায় কমপক্ষে ১২ জন শিশু অসুস্থ হয়ে পড়ায় ভর্তি করতে হল হাসপাতালে৷ ভয়ঙ্কর এই ঘটনাটি ঘটেছে মহারাষ্ট্রের ঘাতাঞ্জি জেলার অন্তর্গত কাপসি-কোপারি গ্রামের প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে৷ রিপোর্ট সংবাদ সংস্থা আইএএনএস-এর৷ সোমবার প্রাথমিক তদন্তের পর এই ঘটনায় অভিযুক্ত তিন নার্সকে সাসপেন্ড করেছে জেলা স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ৷

    গত রবিবার থেকে দেশজুড়ে শুরু হয়েছে তিন দিন ব্যাপী জাতীয় পালস পোলিও টিকাকরণ কর্মসূচি (National Polio Immunisation programme)। প্রথম দিনেই ঘটল বেনজির অসতর্কতার ঘটনা৷ ওদিন সকালে প্রায় ২০০০ শিশু (১-৫ বছরের মধ্যে) পোলিও টিকা নিতে অভিভাবকদের সঙ্গে এসেছিল৷ স্বাস্থ্য আধিকারিকরা জানাচ্ছেন যে, কিছু কিছু বাচ্চাকে পোলিও ফোঁটার বদলে হ্যান্ড স্যানিটাইজার দেওয়া হয় মুখের মধ্যে৷

    এরপরেই শুরু হয় বমি-বমি ভাব এবং শরীরে টান৷ অনেকে ঘটনাস্থলেই বমি করতে শুরু করে দেয়৷ এই দেখার পরে সকলের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে৷ সকল আক্রান্ত শিশুকে সঙ্গে সঙ্গে নিকটবর্তী বসন্তরাও নায়েক সরকারি মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে (Vasantrao Naik Government Medical College & Hospital) নিয়ে যাওয়া হয় চিকিৎসার জন্য৷


    হাসপাতালের ডিন ডাক্তার মিলিন্দ কাম্বলি বলছেন, "বাচ্চাদের অবস্থা এখন স্থিতিশীল৷ প্রত্যেকেরই শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে৷ টানা পর্যবেক্ষণের মধ্যে রয়েছে সকলে৷ ওদের শরীরের অবস্থার ওপর নির্ভর করে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ছেড়ে দেওয়া হতে পারে৷" মিলিন্দ কাম্বলি আরও বলছেন, যে মুখে হ্যান্ড স্যানিটাইজার চলে যাওয়ায় প্রাণহানির কোনও আশঙ্কা নেই৷ হ্যান্ড স্যানিটাইজারে সাধারণত ৭০ শতাংশ অ্যালকোহল থাকে৷ তবে বাচ্চাদের স্বাস্থ্যে যা জটিলতা সৃষ্টি করতে পারে৷

    ইয়াভাতমলের কালেক্টর দেবেন্দর সিং রবিবার রাতেই হাসপাতালে গিয়ে বাচ্চাদের খোঁজখবর নিয়ে এসেছেন৷ তিনি জেলা পরিষদের সিইও শ্রীকৃষ্ণ পাঞ্চালকে বলেছেন গ্রামে গিয়ে পুরো ঘটনার তদন্ত করতে৷ পাঞ্চাল জানিয়েছেন নার্সরা ভুল করে পোলিওর বোতলের বদলে তার পাশে থাকা হ্যান্ড স্যানিটাইজার তুলে নিয়েছিলেন৷ এই ঘটনায় আরও তিন স্বাস্থ্যকর্মীকেও স্ক্যানারের নিচে রাখা হয়েছে৷

    Published by:Subhapam Saha
    First published:

    লেটেস্ট খবর