Home /News /nadia /
Nadia: ভয়ঙ্কর! বাড়ির ভেতরে মাটি খুঁড়তেই বেরিয়ে এল গোখরো সাপ ও বেশ কয়েকটি ডিম!

Nadia: ভয়ঙ্কর! বাড়ির ভেতরে মাটি খুঁড়তেই বেরিয়ে এল গোখরো সাপ ও বেশ কয়েকটি ডিম!

title=

শান্তিপুর পৌরসভার ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের গবার চর পূর্বপাড়া গৃহস্থ বাড়ির শোয়ার ঘর থেকে এক পূর্ণবয়স্ক গোখরো সাপ সঙ্গে প্রায় কুড়ি খানা ডিম উদ্ধার হয়।

  • Share this:

    নদিয়া: শান্তিপুর পৌরসভার ১৬ নম্বর ওয়ার্ডের গবার চর পূর্বপাড়া গৃহস্থ বাড়ির শোয়ার ঘর থেকে এক পূর্ণবয়স্ক গোখরো সাপ সঙ্গে প্রায় কুড়ি খানা ডিম উদ্ধার হয়। বাড়ির মালিক জানান, ওই ঘরের মধ্যে এলাকার বেশ কিছু শিশুদের টিউশনি করাতেন।গতকাল রাতে ঘুমোতে গেলে ঘরের মেঝেতে একটি সাপ ঘোরাফেরা করতে দেখা যায়। তড়িঘড়ি সাপের ভয়ে ঘর থেকে বেরিয়ে অন্য ঘরে তারা রাত কাটান। বুধবার সাতসকালে বনদপ্তরে ফোন করলে সেখান থেকে কোন প্রতিক্রিয়া না মেলায় শান্তিপুরের বন্যপ্রাণ উদ্ধারকারী অনুপম সাহাকে ফোন করেন। পরে অনুপম সাহা এসে ওই ঘরের মেঝে থেকে একটি পূর্ণবয়স্ক গোখরো সাপ ও সঙ্গে কুড়িটি ডিম উদ্ধার করেন। উদ্ধারকার্যের শেষে অনুপম সাহা জানান, সাপ ও ডিমগুলি বাহাদুরপুর পলাশ গাছি বিটের বন কর্মীদের হাতে তুলে দেন।

    গোখরো সাপ পশ্চিমবঙ্গের অত্যন্ত বিষধর প্রজাতির একটি সাপ। বিশেষজ্ঞদের মতে, এর বিষে নিউরোটক্সিন নামক উপাদান থাকে। সাধারণত এই সাপ কামড়ালে এক ঘন্টার মধ্যে হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য না নিয়ে গেলে আক্রান্ত ব্যক্তির মৃত্যু পর্যন্ত হতে পারে।

    আরও পড়ুনঃ জামাইষষ্ঠীর পর এবার বৌমাষষ্ঠী নদিয়ায়!

    উল্লেখ্য, গ্রীষ্মকাল পড়তেই আবারও সাপের উপদ্রব বেড়েছে জেলার একাধিক প্রান্তে। শীতকালে সাপের দেখা না মিললেও গরমকাল পড়তে না পড়তেই একাধিক জায়গায় উদ্ধার হচ্ছে বিষধর সাপ। জানা যায় বিষধর সাপের কামড়ে আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে অনেককেই।

    আরও পড়ুনঃ অসাবধানতাবশত টেবিল ফ্যান থেকে বিদ্যুৎপৃষ্ট হয়ে মৃত্যু মহিলার

    ইতিমধ্যেই প্রশাসন থেকে সতর্ক করা হয়েছে অন্ধকার জায়গা এড়িয়ে চলতে। রাত্রেবেলা মশারি টাঙিয়ে ঘুমাতে বলা হয়েছে। পাশাপাশি কারোকে সাপে কামড় দিলে তৎক্ষণাৎ সরকারি হাসপাতালে আহত ব্যক্তিকে নিয়ে যেতেও পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

    Mainak Debnath
    First published:

    Tags: Nadia, Shantipur

    পরবর্তী খবর