Home /News /nadia /
Nadia: নেশাগ্রস্থ অবস্থায় গালিগালাজ করার প্রতিবাদে এক ব্যক্তিকে গুরুতর আক্রান্তের অভিযোগ

Nadia: নেশাগ্রস্থ অবস্থায় গালিগালাজ করার প্রতিবাদে এক ব্যক্তিকে গুরুতর আক্রান্তের অভিযোগ

title=

দিনের পর দিন বেড়েই চলেছে মাদকদ্রব্য সেবন। বিশেষত বেআইনি মাদকদ্রব্য সেবন ও পাচার কোন কোন জায়গায় অত্যাধিক হারে বেড়েই চলেছে। ২৬ জুন আন্তর্জাতিক মাদকবিরোধী দিবস।

  • Share this:

    নদিয়া: দিনের পর দিন বেড়েই চলেছে মাদকদ্রব্য সেবন। বিশেষত বেআইনি মাদকদ্রব্য সেবন ও পাচার কোন কোন জায়গায় অত্যাধিক হারে বেড়েই চলেছে। ২৬ জুন আন্তর্জাতিক মাদকবিরোধী দিবস। মাদকবিরোধী দিবস উপলক্ষে ইতিমধ্যেই প্রশাসন থেকে নেওয়া হয়েছে একাধিক কর্মসূচির পদক্ষেপ। বেআইনি মাদক পাচারের ক্ষেত্রে প্রশাসন থেকে চালানো হচ্ছে কড়া অভিযান। পুলিশের তৎপরতায় জেলার একাধিক জায়গায় প্রায়শই বেআইনি মাদকদ্রব্য উদ্ধার করা হয়। পুলিশ ও একাধিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন নিরন্তর প্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন মাদক দ্রব্য বর্জন করার জন্যে। অধিকাংশ মানুষই এই বিষয়ে সতর্ক হলেও কিছু শ্রেণীর মানুষ এখনো পর্যন্ত অসতর্কই রয়ে গেছেন। মাদকদ্রব্য সেবন করে একাধিক দুষ্কর্মের খবর উঠে এসেছে শিরোনামে। ঠিক তেমনই এক নিদর্শন পাওয়া গেল নদিয়ার রানাঘাটে। নেশাগ্রস্ত অবস্থায় একাধিক দুষ্কর্মের কথা উঠে এসেছে খবরের শিরোনামে।

    কখনো নেশাগ্রস্ত অবস্থায় পরিবার ও পরিবারের সদস্যদের মারধর করা, কখনও বা বিভিন্ন রকম কুকর্মের কথা সামনে এসেছে। তবে এবার মদ খেয়ে গালিগালাজ করার প্রতিবাদ করায় প্রতিবেশী এক ব্যক্তিকে কামড়ে গুরুতর জখম করার অভিযোগ উঠল এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে! রক্তাক্ত অবস্থায় আক্রান্ত ব্যক্তিকে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করা হয় রানাঘাট মহাকুমা হাসপাতালে। জানা যায়, মদ খেয়ে গালিগালাজ করার প্রতিবাদ করায় এক ব্যক্তিকে গুরুতর জখম করার অভিযোগ উঠল এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে।

    আরও পড়ুনঃ কেন গরু দেখতে ভিড় জমাচ্ছেন সাধারণ মানুষ! বিস্তারিত জানুন ভিডিওতে

    ঘটনাটি রানাঘাট থানার অন্তর্গত পায়রাডাঙ্গা বেলঘড়িয়া এলাকার। লিটন সিংহ নামে অভিযুক্ত ওই যুবক প্রায় প্রতিদিনই বিভিন্ন রকম মাদকদ্রব্য সেবন করে নেশাগ্রস্ত অবস্থায় বাড়িতে এসে তান্ডব ও গালিগালাজ করতো বলে অভিযোগ। তারই প্রতিবেশী পেশায় দিনমজুর নির্মল রায় প্রতিবাদ করাতে তাকেও গালিগালাজ করে এবং বেধড়ক মারধর করে বলে জানান তার স্ত্রী অনিমা রায়। শুধু তাই নয় অভিযুক্ত ওই যুবক তার স্বামীকে শরীরের একাধিক জায়গায় কামড়িয়ে ক্ষতবিক্ষত করে দিয়ে গুরুতর জখম করে বলে জানান অনিলা দেবী।

    আরও পড়ুনঃ সীমান্তের কাঁটাতার পেরিয়ে দুয়ারে সরকারের আয়োজন

    স্বাভাবিকভাবেই এই ঘটনার জেরে রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়ায় গোটা এলাকায়। যখম হওয়ার পর তাকে তড়িঘড়ি হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। বর্তমানে তার স্বামী রানাঘাট হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। অভিযুক্ত ওই যুবকের নামে রানাঘাট থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে আক্রান্তের পরিবার। অভিযোগের ভিত্তিতে সম্পূর্ণ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে রানাঘাট থানার পুলিশ।

    Mainak Debnath
    Published by:Ananya Chakraborty
    First published:

    Tags: Nadia, Ranaghat

    পরবর্তী খবর