রাজনৈতিক অস্তিত্ব বজায় রাখতেই বিজেপিতে যোগ মুকুলের, লাভ-ক্ষতির অঙ্ক কষছে দু'পক্ষই

রাজ্যে নয়, বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বের উপস্থিতিতে দিল্লিতে যোগদান। বেশকিছু হার্ডল পেরিয়ে অবশেষে উভয়পক্ষের স্বার্থরক্ষা।

Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Nov 04, 2017 08:46 AM IST
রাজনৈতিক অস্তিত্ব বজায় রাখতেই বিজেপিতে যোগ মুকুলের, লাভ-ক্ষতির অঙ্ক কষছে দু'পক্ষই
Former TMC leader and BJP's new joinee Mukul Roy during a press conference in New Delhi.
Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Nov 04, 2017 08:46 AM IST

#কলকাতা: রাজ্যে নয়, বিজেপির শীর্ষ নেতৃত্বের উপস্থিতিতে দিল্লিতে যোগদান। বেশকিছু হার্ডল পেরিয়ে অবশেষে উভয়পক্ষের স্বার্থরক্ষা। আদৌ কি কোনও লাভ হবে বিজেপির? নাকি ব্যক্তিগত ভাবে লাভবান হলেন মুকুল? কোনও ক্ষতি কি হবে তৃণমূলের ? এমন হাজারো প্রশ্নের উত্তরের খোঁজে রাজনৈতিক মহল।

এমনই আপত্তি এসেছিল রাজ্য বিজেপির একাংশের তরফে। কিন্তু দীর্ঘদিন দিল্লিতে মাটি কামড়ে পড়ে থেকে নিজের লক্ষ্যপূরণ করলেন মুকুল রায়। একসময় তৃণমূলের হয়ে বিজেপির বিভিন্ন নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখতেন তিনি। ফলে সেই সুযোগটাই কাজে লাগিয়েছেন। কিন্তু কোন পরিস্থিতে এই যোগদান? কেনই বা রাজ্য বিজেপির একাংশের আপত্তি?

--

সারদা ও নারদ দূর্নীতিতে অভিযুক্ত মুকুল রায়

-- তৃণমূলের সংগঠনে আর কোনও ভূমিকা ছিল না

-- সঙ্গী হিসাবে কোনও এমপি-এমএলএ নেই

-- নিজেকে বাঁচাতেই বিজেপিতে ঢোকার চেষ্টা

- নিজে কোনও দিন ভোটে জেতেননি

সবথেকে বেশি আপত্তি ছিল আরএসএসের একাংশের। কিন্তু ভোট রাজনীতিতে হিমন্ত বিশ্বশর্মা বা সুখরামের মত মুকুলেই হাতিয়ার ভাবছে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব।

আদতে তৃণমূলের তরফে এই মুহূর্তে মুকুলকে নিয়ে বাড়তি কোনও আশঙ্কাই নেই।

-- সঙ্গী একেবারে নীচু তলার কয়েকজন কর্মী

-- ২ বছর ধরে সংগঠনের কোনও দায়িত্বে ছিলেন না

-- বরং দূর্নীতি আড়ালের অভিযোগ জোরাল হল (বরং বিজেপির বিরুদ্ধে দূর্নীতি আড়ালের অভিযোগ জোরাল হল--পড়তে হবে)

-- তৃণমূল নয়, এবার উপদলের লড়াই শুরু হবে বিজেপিতে

১০ নভেম্বর বিজেপির জনসভায় মুকুল রায় ও বিজেপি, উভয়পক্ষই নানা যুক্তি তুলে ধরবে। কিন্তু পঞ্চায়েত নির্বাচন হবে অ্যাসিড টেস্ট। দুপক্ষই বুঝে নেবে, কার লাভ, কার ক্ষতি।

First published: 08:45:03 AM Nov 04, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर