দিলীপ ঘোষ-রাহুল সিনহার সঙ্গে একান্তে বৈঠক মুকুল রায়ের

কোনও গোষ্ঠী মতপার্থক্য নয়। সকলকে নিয়েই তিনি চলতে চান। তিনি বিজেপিতে নবাগত মুকুল রায়।

Akash Misra | News18 Bangla
Updated:Nov 19, 2017 11:37 AM IST
দিলীপ ঘোষ-রাহুল সিনহার সঙ্গে একান্তে বৈঠক মুকুল রায়ের
Akash Misra | News18 Bangla
Updated:Nov 19, 2017 11:37 AM IST

#কলকাতা: কোনও গোষ্ঠী মতপার্থক্য নয়। সকলকে নিয়েই তিনি চলতে চান। তিনি বিজেপিতে নবাগত মুকুল রায়। কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের কাছে সেই বার্তা দিতেই, গত চব্বিশ ঘণ্টায় দিলীপ-রাহুল, রাজ্যের বিজেপির গুরুত্বপূর্ণ দুই নেতার সঙ্গেই একান্তে বৈঠক করলেন মুকুল রায়।

লক্ষ্য দু'হাজার উনিশ। তৃণমূল সরকারকে উৎখাত করার প্রতিশ্রুতি দিয়েই বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন মুকুল রায়। শুরুতেই বিশ্ববাংলাকে হাতিয়ার করে একদিকে রাজ্য সরকার, অন্যদিকে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়কে আক্রমণ করেছেন তিনি। কিন্তু, বিশ্ববাংলার বিতর্ককে মুকুলের ব্যক্তিগত লড়াই বলেই মন্তব্য করেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। এতেই ক্ষুব্ধ মুকুল দিল্লিতে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের কাছে নালিশ জানান। যদিও, সকলকে নিয়েই মুকুলকে চলাল পরামর্শ দিয়েছে শীর্ষ নেতৃত্ব। রাজ্য নেতৃত্বকেও সহযোগিতার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এরপরই চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যে দিলীপ ঘোষ ও রাহুল সিনহার সঙ্গে বৈঠক করলেন মুকুল রায়। কথা হয় RSS নেতাদের সঙ্গেও। কানাঘুসো অসন্তোষ ভেসে থাকলেও, রাজ্য নেতৃত্বের সঙ্গে সুসম্পর্কের কথাই বললেন মুকুল।

বিশ্ববাংলা বিতর্ক ব্যক্তিগত লড়াই বলেই প্রথমে এড়িয়েছিলেন দিলীপ ঘোষরা। কিন্তু, শুক্রবার বিশ্ববাংলার লোগো ভাঙতে গিয়ে প্রচার পেয়েছে দল। যদিও, হাতেগরম এই বিতর্কে রাজ্য নেতৃত্বের মনোভাবে যে মুকুল সন্তুষ্ট নন, তা স্পষ্ট।

রাহুলের থেকে দিলীপের হাতে ক্ষমতা বদলের পর থেকেই রাজ্য বিজেপির গোষ্ঠী কোন্দন বারবার সামনে এসেছে। অমিত শাহ থেকে কৈলাশ বিজয়বর্গী, বারবার রাশ টানতে হয়েছে কেন্দ্রীয় নেতৃত্বকে। তাতেও, রাহুল-দিলীপ যুযুধান দুই শিবিরকে এক করা যায়নি। কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব মনে করছে, সুসংগঠক মুকুলই পারবেন একক নেতৃত্ব গড়ে তুলতে।

First published: 11:37:06 AM Nov 19, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर