শ্লীলতাহানির অভিযোগে ইস্তফা দিলেন মেঘালয়ের রাজ্যপাল

বৃহস্পতিবার সন্ধেয় ইস্তফা দিলেন রাজ্যপাল ভি শানমুগানাথন ৷ রাজ্যপালের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ জানিয়েছিল রাজভবনের কর্মীদের একাংশ ৷

Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Jan 27, 2017 11:41 AM IST
শ্লীলতাহানির অভিযোগে ইস্তফা দিলেন মেঘালয়ের রাজ্যপাল
Dolon Chattopadhyay | News18 Bangla
Updated:Jan 27, 2017 11:41 AM IST

#নয়াদিল্লি: বৃহস্পতিবার সন্ধেয় ইস্তফা দিলেন রাজ্যপাল ভি শানমুগানাথন ৷ রাজ্যপালের বিরুদ্ধে শ্লীলতাহানির অভিযোগ জানিয়েছিল রাজভবনের কর্মীদের একাংশ ৷ ইস্তফার দাবিতে সরব হয়েছিল কর্মীরা-সহ বেশ কয়েকটি NGO ৷ রাজ্যপালের বিরুদ্ধে  গুরুতর অভিযোগ জানিয়ে প্রায় ১০০ জন কর্মী রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রীকে ৫ পাতার চিঠি পাঠান। রাজ্যপালের এরকম আচারণে  রাজভবনের মর্যাদা ক্ষুণ্ণ হয়েছে ৷ তাই তার পদত্যাগের দাবিতে সরব হয় কর্মীরা ৷ এরপরই ইস্তফা দেন শানমুগানাথন ৷

letter-1

কর্মীদের দেওয়া চিঠিতে ৬৭ বছরের শানমুগানাথনের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ জানানো হয়েছে ৷ জানানো হয়েছে, PRO পদে ইন্টারভিউ দিতে আসা এক তরুণীর  শ্লীলতাহানি করেন রাজ্যপাল ৷

letter-2

অভিযোগ, রাজ্যপাল হওয়ার পর থেকেই বিভিন্ন পদে মহিলাদের নিয়োগ করাক জন্য ডেকে পাঠাতেন তিনি ৷ রাজভবনে নিয়মিত মহিলাদের আসা যাওয়া করতেন ৷ তার সমস্ত কাজের জন্য তিনি মহিলাদেরই নিয়োগ করতেন ৷ পাশাপাশি বেশ কিছু অসামাজিক কাজের জন্য তিনি রাজভবনকে ব্যবহার করতেন ৷ রাজভবনকে  মহিলাদের ক্লাবে পরিণত করে ফেলেছিলেন তিনি ৷ তার এরকম আচারণে রাজভবনকে কলঙ্কিত করেছিলেন রাজ্যপাল ৷

Loading...

letter-3

কর্মীরা তাদের চিঠিতে অভিযোগ জানিয়েছেন, ‘রাজভবনের কর্মীদের উপর মানসিক অত্যাচার চলছে ৷ রাজভবনের সম্মান নষ্ট হচ্ছে ৷ তরুণীদের ক্লাবে পরিণত হয়েছে রাজভবন ৷’

letter-4

রাজ্যপালের দফতর থেকে এই বিষয়ে কিছু জানানো হয়নি ৷ তবে রাজ্যপাল সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করছেন ৷ ২০১৫-র মে মাসে মেঘালয়ের রাজ্যপাল হন শানমুগানাথন।

letter-5

খবরটি প্রকাশ হওয়ার পর থেকেই মেঘালয়ের বিভিন্ন জায়গায় রাজ্যপালের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ দেখানো শুর হয়েছে ৷ এই বিষয়ে মেঘালয়ের মুখ্যমন্ত্রী মুকুল সাংমাকে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি জানান, রাজ্যপালের বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের সিদ্ধান্তের জন্য তিনি অপেক্ষা করছেন।

citizens

First published: 08:38:42 AM Jan 27, 2017
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर