‘সব ধর্মকে এক করে তবেই উত্সব হয়,ধর্মকে যাঁরা বিক্রি করে তাঁদের ঘৃণা করি’, মুখ্যমন্ত্রীর নিশানায় বিজেপি

Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Oct 18, 2017 12:21 PM IST
‘সব ধর্মকে এক করে তবেই উত্সব হয়,ধর্মকে যাঁরা বিক্রি করে তাঁদের ঘৃণা করি’, মুখ্যমন্ত্রীর নিশানায় বিজেপি
Elina Datta | News18 Bangla
Updated:Oct 18, 2017 12:21 PM IST

 #কলকাতা: 'সব ধর্মকে এক করে তবেই উত্সব হয়'। 'সম্প্রীতি একতার মধ্যেই সব ধর্ম মিলে আছে'। এই বার্তা দিয়েই শহরে কালী পুজো উদ্বোধন করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 'সর্বধর্ম সমন্বয় বজায় রাখতে হবে সকলের কাছে এই আবেদনই রাখলেন মুখ্যমন্ত্রী'।

সূচনা হল আলোর উৎসবের। ধনতেরসের দিনই কলকাতায় একের পর এক পুজো উদ্বোধন সারলেন মুখ্যমন্ত্রী। প্রথমে গিরিশ পার্কের ফাইভ স্টার ক্লাবের পুজোর উদ্বোধন করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই পুজোটি বিধায়ক স্মিতা বক্সির পুজো বলেই পরিচিত। প্রতিবছরই এই পুজো মণ্ডপে যান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কালী পুজোর উদ্বোধন মঞ্চেই সম্প্রীতির বার্তা দেন তিনি। ধর্মের নামে বিভেদের চেষ্টা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেন তিনি। নাম না করে বিজেপিকে ভেদাভেদের রাজনীতি থেকে দূরে থাকার পরামর্শ দেন ৷

গিরিশ পার্কের পুজো উদ্বোধনের পর জানবাজার সর্বজনীন কালী পুজোর উদ্বোধনে যান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সঙ্গে ছিলেন সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় ও নয়না বন্দ্যোপাধ্যায়। ছিলেন স্থানীয় বিধায়ক স্বর্ণকমল সাহা। কালীপুজোর উদ্বোধনে এসে আরও একবার সর্বধর্ম সমন্বয়ে জোর দিয়ে তিনি বলেন, ‘আমাদের সরকার এবারে ছটপুজোয় ছুটি দিয়েছে ৷ কোনও হিন্দুর হাত থেকে রক্ত পড়লে তা রক্ত ৷ কোনও মুসলিম বা খ্রীশ্চানের হাত থেকে পড়লেও তাই ৷ সর্বধর্ম সমন্বয় বজায় রাখুন সকলে ৷ ধর্মকে যাঁরা বিক্রি করে তাঁদের ঘৃণা করি ৷ আমার আনন্দ যেন কাউকে দুঃখ না দেয় ৷ সেটা দেখে নিয়ে উত্সব করুন ৷ কোনও প্ররোচনায় পা দেবেন না ৷’

এরপর শেক্সপিয়র সরণি এলাকার অল ইয়ং ফ্রেন্ডস ক্লাবের পুজোর উদ্বোধন করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বাঁশের প্যান্ডেলের ভিতর কালীর পাঁচটা রূপকে পুজো করা হচ্ছে এখানে।

এবার ৫২ বছরে পড়ল ভবানীপুর ভেনাস ক্লাবের কালী পুজো। এই পুজোর উদ্বোধনে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে ছিলেন শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় ও সুব্রত বক্সি।

First published: 09:07:15 AM Oct 18, 2017
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर