Home /News /malda /
Malda News: টয়লেট নেই, শুধুই তৈরি হয়েছে ইটের ঘর! 'কাজ সারতে' মাঠে-ঘাটেই যেতে হচ্ছে, ক্ষুব্ধ গ্রামবাসীরা

Malda News: টয়লেট নেই, শুধুই তৈরি হয়েছে ইটের ঘর! 'কাজ সারতে' মাঠে-ঘাটেই যেতে হচ্ছে, ক্ষুব্ধ গ্রামবাসীরা

পরিত্যক্ত [object Object]

নির্মল জেলায় এখনও শৌচাগার তৈরি হয়নি একাধিক গ্রামে। সরকারি প্রকল্পের টাকা নয় ছয় করার অভিযোগ দায়িত্বে থাকা সংস্থার বিরুদ্ধে।

  • Share this:

    #মালদহ: নির্মল জেলায় এখনো শৌচাগার তৈরি হয়নি একাধিক গ্রামে। সরকারি প্রকল্পের টাকা নয় ছয় করার অভিযোগ দায়িত্বে থাকা সংস্থার বিরুদ্ধে। শৌচাগারের ঘর তৈরি করা হলেও ট্যাঙ্ক তৈরি করে দেওয়া হয়নি উপভোক্তাদের। ফলে এখনো খোলা জায়গায় শৌচকর্ম করছেন পুরাতন মালদহের যাত্রাডাঙা পঞ্চায়েতের বেশ কয়েকটি গ্রামের কয়েকশো পরিবার। কেন্দ্রের স্বচ্ছ ভারত ও রাজ্যের নির্মল বাংলা প্রকল্পের এমনি গাফিলতি প্রকাশ্য নিয়ে এসেছেন স্থানীয়রা। শৌচাগার তৈরির দায়িত্বে থাকা ঠিকা সংস্থার বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিচ্ছেন গ্রামের বাসিন্দারা।

    আরও পড়ুন Hooghly News: বাইসাইকেল চালিয়ে শৃঙ্গ জয় তারকেশ্বরের সবিতার, উমলিং লা-য় উঠে বিশেষ খেতাব

    পরিবেশ পরিচ্ছন্ন রাখতে প্রতিটি বাড়িতে শৌচাগার তৈরির লক্ষ্যে কেন্দ্র সরকার চালু করেছিল স্বচ্ছ ভারত মিশন প্রকল্প, রাজ্য সরকার সেই প্রকল্প চালু করে নির্মল বাংলা অভিযান নামে। এই প্রকল্পের বিভিন্ন কাজের মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিল বাড়ি বাড়ি শৌচাগার তৈরি করে দেওয়া।বছর তিনেক আগেই মালদহকে নির্মল ঘোষণা করা হয়েছে। অর্থাৎ জেলার প্রতিটি বাড়িতেই শৌচাগার নির্মাণ সম্পন্ন হয়েছে।তবে ট্যাংক না করেই শৌচাগার তৈরি করা হয়েছে যাত্রাডাঙ্গা পঞ্চায়েতের বেশ কয়েকটি গ্রামে।

    উপভোক্তাদের ছবি তোলা হয়েছে সেই শৌচাগারের সামনে। প্রশাসনের কাছে জমা দেওয়া হয়েছে সেই তথ্য। কাজের দায়িত্বে থাকা সংস্থা প্রমাণ করেছে শৌচাগারের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। তবে বাস্তবে তা হয়নি, এখনো মাঠেঘাটেই শৌচকর্ম করতে হচ্ছে একাধিক গ্রামের বাসিন্দাদের। পুরুষদের সঙ্গে মহিলাদেরও যেতে হচ্ছে ফাঁকা জায়গায়। বিষয়টি জানেন যাত্রাডাঙা পঞ্চায়েতের প্রধান। স্বীকারও করেছেন তিনি। ঘটনার দায় চাপিয়েছেন প্রশাসনের কাঁধে। কিন্তু এনিয়ে কোনও প্রতিক্রিয়া নেই পুরাতন মালদা ব্লক প্রশাসনের।

    আরও পড়ুন TMC councillor sells vegetable : অল্প ভাতায় সংসার চলে না, সবজি বিক্রি করেন তৃণমূল কাউন্সিলর

    দেশকে নির্মল করতে ২০১৪ সালেই স্বচ্ছ ভারত মিশন প্রকল্প চালু করে কেন্দ্রীয় সরকার। এরাজ্যে সেই প্রকল্প চালু হয় নির্মল বাংলা অভিযান নামে। সরকারি প্রকল্পের মাধ্যমে বাড়ি বাড়ি শৌচাগার নির্মাণের কর্মসূচি নেওয়া হয়। সরকারিভাবে প্রতিটি শৌচাগারের জন্য বরাদ্দ হয়১০ হাজার টাকা। এর মধ্যে উপভোক্তাকে দিতে হয়েছে মাত্র ৯০০ টাকা। শৌচাগারহীন মানুষজনের মধ্যে এই প্রকল্প সাড়াও ফেলে। তাঁরা যেভাবে হোক ৯০০ টাকা জোগাড় করে এই প্রকল্পে নিজেদের নাম লেখান। শৌচাগার তৈরির বরাত দেওয়া হয় বিভিন্ন বেসরকারি সংস্থাকে।এই প্রকল্পে কোনও পঞ্চায়েতের উপর প্রশাসন ভরসা করেনি। নিজেরাই সরাসরি প্রকল্প দেখভাল করে। জানা যাচ্ছে, পুরাতন মালদহে ব্লকের সমস্ত গ্রামের শৌচাগার নির্মাণের টাকা স্যানিটারি মার্টগুলিকে দিয়ে দেওয়া হয়েছে। কিন্তু শৌচাগার যে আদৌ পুরো নির্মাণ হয়নি, তা খতিয়ে দেখেনি প্রশাসন। এরই মধ্যে বছর তিনেক আগে জেলাকে নির্মল ঘোষণা করে দেওয়া হয়েছে।

    Harashit Singha
    First published:

    Tags: Malda News, North bengal news, Toilet

    পরবর্তী খবর