Home /News /local-18 /
Fire in railway workshop : খড়্গপুরে রেলের ওয়ার্কশপে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রেনের কোচে বিধ্বংসী আগুন

Fire in railway workshop : খড়্গপুরে রেলের ওয়ার্কশপে দাঁড়িয়ে থাকা ট্রেনের কোচে বিধ্বংসী আগুন

খড়গপুর রেলওয়ে ওয়ার্কশপে ট্রেনের কোচে আগুন

খড়গপুর রেলওয়ে ওয়ার্কশপে ট্রেনের কোচে আগুন

দক্ষিণ পুর্ব রেলওয়ের খড়্গপুরের রেলের ওয়ার্কশপের ক্যারেজ শপে দাঁড়িয়ে থাকা রেলের কোচে বিধ্বংসী আগুন লাগল মঙ্গলবার সকাল এগারোটা নাগাদ। ঘটনার পর ওয়ার্কশপের কর্মীদের মধ্যে ব্যাপক চাঞ্চল্য দেখা দেয়। এরপর সঙ্গে সঙ্গেই ওয়ার্কশপের রেলকর্মীরা খবর দেন রেলের উর্ধতন কর্মকর্তা এবং দমকলে। খবর পেয়ে দমকলের দু'টি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

আরও পড়ুন...
  • Share this:

    #পশ্চিম মেদিনীপুর- দক্ষিণ পুর্ব রেলওয়ের খড়্গপুরের রেলের ওয়ার্কশপের ক্যারেজ শপে দাঁড়িয়ে থাকা রেলের কোচে বিধ্বংসী আগুন লাগল মঙ্গলবার সকাল এগারোটা নাগাদ (Fire in railway workshop)। ঘটনার পর ওয়ার্কশপের কর্মীদের মধ্যে ব্যাপক চাঞ্চল্য দেখা দেয়। এরপর সঙ্গে সঙ্গেই ওয়ার্কশপের রেলকর্মীরা খবর দেন রেলের উর্ধতন কর্মকর্তা এবং দমকলে। খবর পেয়ে দমকলের দু'টি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। ঘটনায় এখনও অবধি হতাহতের খবর না থাকলেও, ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়েছে ওয়ার্কশপের কর্মীদের মধ্যে।

    জানা গেছে, মঙ্গলবার ক্যারেজ শপে ওই ট্রেনটিতে ওয়েলডিঙের কাজ চলছিল। সেই সময়ই কোনো ভাবে আগুন লেগে যায় (Fire in railway workshop)। প্রসঙ্গত, এর আগেও ওয়ার্কশপে আগুন লাগার ঘটনা ঘটেছিল। ফলে খড়গপুর রেলওয়ে ওয়ার্কশপের পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ও নজরদারি নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। জানা গেছে, দমকল বাহিনীর কর্মীরা পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনলেও, ততক্ষণে ওই কোচটি আগুনে সম্পূর্ণ ভস্মীভূত হয়ে যায়। তবে, সঙ্গে সঙ্গে দমকল না পৌঁছলে আরও বড় বিপদ হতে পারত বলে জানিয়েছেন প্রত্যক্ষদর্শীরা। যদিও এই বিষয়ে রেলওয়ে কর্মকর্তারা মুখ খোলেননি।

    প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, খুব অল্প সময়ের মধ্যেই আগুন বিশাল আকার ধারণ করে। আগুন এবং বীভৎস ধোঁয়ার ফলে গোটা খড়গপুর শহর জুড়ে দেখা দেয় চাঞ্চল্য। অনেকেই আগুন দেখে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন(Fire in railway workshop)। তবে দমকল বাহিনীর তৎপরতায় কিছুক্ষণ সময়ের ব্যবধানে আগুন সম্পূর্ণ নিভে যায়। তবে কিভাবে আগুন লাগলো তা খতিয়ে দেখছে খড়গপুর রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

    Partha Mukherjee

    Published by:Samarpita Banerjee
    First published:

    Tags: Fire, Kharagpur Station, Paschim medinipur, South Eastern Railway, West Medinipur

    পরবর্তী খবর