• Home
  • »
  • News
  • »
  • local-18
  • »
  • West Medinipur- এখুনি সতর্ক হোন! অচেনা লিঙ্কে ক্লিক করতেই ৫০ হাজার টাকা উধাও হল পশ্চিম মেদিনীপুরের এক ব্যক্তির।

West Medinipur- এখুনি সতর্ক হোন! অচেনা লিঙ্কে ক্লিক করতেই ৫০ হাজার টাকা উধাও হল পশ্চিম মেদিনীপুরের এক ব্যক্তির।

তরুণ দত্ত ( প্রতারিত ব্যক্তি)

তরুণ দত্ত ( প্রতারিত ব্যক্তি)

জানা গেছে, সেনাকর্তার পরিচয় দিয়ে মোহনপুরের পুরুনিয়া এলাকার তরুণ দত্ত নামে ওই ব্যক্তির কাছ থেকে তিন দফায় ৫০ হাজার টাকা হাতিয়ে ন?

  • Share this:

    #পশ্চিম মেদিনীপুর- এখুনি সতর্ক হোন! অচেনা লিঙ্কে ক্লিক করতেই ৫০ হাজার টাকা উধাও হল পশ্চিম মেদিনীপুরের এক ব্যক্তির।

    দিন যত এগোচ্ছে, উন্নত হচ্ছে প্রযুক্তিবিদ্যার। আর, তার সাথে সাথেই প্রতারকরাও বদলে ফেলছে প্রতারণার ধরন। সম্প্রতি, সমাজমাধ্যমে প্রতারিত হয়েছেন পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার একাধিক ব্যক্তি। এবার, অচেনা লিঙ্কে ক্লিক করে প্রতারিত হলেন এই জেলারই মোহনপুর থানার পুরুনিয়ার এক ব্যক্তি। পেশায় ব্যবসায়ী ষাটোর্ধ্ব তরুণ দত্তকে অভিনব কায়দায় প্রতারিত করে, 'অচেনা' এক ব্যক্তি তিন দফায় হাতিয়ে নিল ৫০ হাজার টাকা! ইতিমধ্যে, মোহনপুর থানায় তিনি অভিযোগ দায়ের করেছেন বলে জানা গেছে। পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে।

    জানা গেছে, সেনাকর্তার পরিচয় দিয়ে মোহনপুরের পুরুনিয়া এলাকার তরুণ দত্ত নামে ওই ব্যক্তির কাছ থেকে তিন দফায় ৫০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে প্রতারক। গত রবিবার (২৮ নভেম্বর), একদা দিল্লি নিবাসী ব্যবসায়ী তরুণ দত্তকে এক 'সেনা কর্তা'র পরিচয় দিয়ে প্রতারক ফোন করে। নিজেকে সে তরুণ বাবুর পরিচিত বলেও দাবি করে। এরপর, নিজের অ্যাকাউন্টে একটি সমস্যার কথা উল্লেখ করে, আর্থিক সাহায্যের জন্য অনুরোধ করে তরুণ বাবুকে। ওই প্রতারক বলে, কিছুক্ষণের মধ্যেই সে এই টাকা ফেরত পাঠিয়ে দেবে। এরপর, একটি লিঙ্ক পাঠায়। বিশ্বাস করে ওই লিঙ্কে ক্লিক করতেই, মোট তিন দফায় ৫০ হাজার টাকা (১০ ২০ ২০) গায়েব হয়ে যায় তরুণ বাবুর!

    তরুণ বাবু ফোন করেন প্রতারকের নম্বরে। তখন প্রতারক বলে, তাঁর নাম, অ্যাকাউন্ট নম্বর, এটিএম কার্ড নম্বর এবং সিভিভি (ATM কার্ডের পেছনে থাকা গোপন CVV নম্বর) নম্বর পাঠানোর জন্য! এবার অবশ্য ভুল করেননি তরুণ দত্ত। তিনি প্রতারকের খপ্পরে পড়েছেন বুঝতে পারেন এবং থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। নির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

    Published by:Samarpita Banerjee
    First published: