Home /News /local-18 /
West Medinipur Tragic death: ১১ হাজার ভোল্টের বিদ্যুৎ তারে স্পর্শ, নিমেষে প্রাণ গেলো যুবকের, আহত আরও এক।

West Medinipur Tragic death: ১১ হাজার ভোল্টের বিদ্যুৎ তারে স্পর্শ, নিমেষে প্রাণ গেলো যুবকের, আহত আরও এক।

মর্মান্তিক ঘটনায় মৃত্যু যুবকের

মর্মান্তিক ঘটনায় মৃত্যু যুবকের

গত ১২ জানুয়ারি, জেলাজুড়ে চলা পশ্চিমী ঝঞ্ঝার বিপর্যয়ের সময় সন্ধ্যা নাগাদ মিনি টর্নেডো হয়েছিল ওই এলাকায়। তাতেই বিদ্যুতের তার অনেকটা নীচে নেমে গিয়েছিল বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন ।

  • Share this:

    #পশ্চিম মেদিনীপুর- দিন দশেক আগেই (১২ জানুয়ারি) মিনি টর্নেডো'র কারণে এলাকায় ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল বিদ্যুতের লাইন। বিভিন্ন এলাকায় নেমে গিয়েছিল বিদ্যুতের তার। আর, সেই বিদ্যুতের তারে স্পৃষ্ট হয়েই প্রাণ গেলো এক তরতাজা যুবকের (West Medinipur Tragic death)। মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন আরো একজন। শুক্রবার বিকেল চারটে নাগাদ পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার খড়্গপুর লোকাল থানার অন্তর্গত সুলতানপুর এলাকায় এই মর্মান্তিক দুর্ঘটনাটি ঘটেছে। এগারো হাজার ভোল্টে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু হয়েছে পেশায় ওয়েল্ডিং কর্মচারী চিন্ময় পালের। বয়স আনুমানিক ২১। আহত আরেকজনকে পাঠানো হয়েছে হাসপাতালে।

    স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, খড়্গপুর ২ নং ব্লকের বসন্তপুরে ১৬ নং জাতীয় সড়কের ওপর একটি দোকানের চালা উড়ে যায় ১২ জানুয়ারির মিনি টর্নেডো-তে (West Medinipur Tragic death)। সেই দোকানের ছাউনি বা সেড তৈরী করার সময় ১১ হাজার ভোল্টের তারে লেগে মৃত্যু হয় চিন্ময় পাল নামে ওই যুবকের। আহত আরো একজন। মৃত চিন্ময়ের বাড়ি কোতোয়ালি থানার জাগুল এলাকায়। অপর একজন স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

    উল্লেখ্য, গত ১২ জানুয়ারি, জেলাজুড়ে চলা পশ্চিমী ঝঞ্ঝার বিপর্যয়ের সময় সন্ধ্যা নাগাদ মিনি টর্নেডো হয়েছিল ওই এলাকায়। তাতেই বিদ্যুতের তার অনেকটা নীচে নেমে গিয়েছিল বলে স্থানীয়রা জানিয়েছেন (West Medinipur Tragic death)। আর, তাতেই এই বিপত্তি বলে অনুমান। এই ক্ষেত্রে প্রায় দশ দিন হয়ে গেলেও কেন বিদ্যুৎ দফতর সঠিকভাবে কাজ করেনি, এই নিয়ে ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী! মর্মান্তিক এই দুর্ঘটনার দায় কে নেবে, সেই প্রশ্নও তুলেছেন তাঁরা। মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানোর ব্যবস্থা করা হয়েছে গ্রামীণ থানার তরফে। ঘটনার প্রাথমিক তদন্তও শুরু করেছে পুলিশ।

    Partha Mukherjee

    First published:

    Tags: Electric Shock, Kharagpur, West Medinipur

    পরবর্তী খবর