Home /News /local-18 /
West Bardhaman News- গুরুতর আহত হয়ে জাতীয় সড়কে ৪৮ ঘন্টা পড়েছিল একটি গরু। পশুপ্রেমী সংগঠনের উদ্যোগে উদ্ধার করা হয়।

West Bardhaman News- গুরুতর আহত হয়ে জাতীয় সড়কে ৪৮ ঘন্টা পড়েছিল একটি গরু। পশুপ্রেমী সংগঠনের উদ্যোগে উদ্ধার করা হয়।

উদ্ধার ও অস্ত্রোপচার করার পর আহত গরুটি।

উদ্ধার ও অস্ত্রোপচার করার পর আহত গরুটি।

সম্ভবত বড় কোন গাড়ির ধাক্কায় গরুটির দুটি পা ভেঙে যায়। ৪৮ ঘন্টা ধরে ওই অবস্থাতেই জাতীয় সড়কে পড়েছিল গরুটি।

  • Share this:

    #পশ্চিম বর্ধমান- দুই নম্বর জাতীয় সড়কের বিভিন্ন জায়গায় হয়ে উঠেছে গবাদি পশুদের বিচরণ ক্ষেত্র। মাঝ রাস্তায় হঠাৎ গবাদি পশুদের আগমনে থেকে যায় দুর্ঘটনার আশঙ্কা। কখনো আহত হন গাড়ি চালকরা। কখনো আবার প্রাণ হারায় গবাদিপশু। এই নিয়ে বারবার পুলিশ প্রশাসনের পক্ষ থেকে সচেতন করা হয়। কিন্তু ছবির বিশেষ বদল হয় না (West Bardhaman News)।

    জাতীয় সড়কে রানীগঞ্জের কাছে রানীসায়ের ও সাতগ্রাম ওভার ব্রিজের কাছে দুর্ঘটনার কবলে পড়ে একটি গরু। সম্ভবত বড় কোন গাড়ির ধাক্কায় গরুটির দুটি পা ভেঙে যায় এবং কেটে যায়। ৪৮ ঘন্টা ধরে ওই অবস্থাতেই জাতীয় সড়কে পড়েছিল গরুটি। অবশেষে রানীগঞ্জের একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের উদ্যোগে গরুটিকে উদ্ধার করা হয়েছে (West Bardhaman News)। গরুটির পায়ে অস্ত্রোপচার করে আহত পা দুটি বাদ দেওয়া হয়েছে। আপাতত সুস্থ রয়েছে গরুটি। গরুটিকে তার মালিকের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। এই ব্যাপারে স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক সৌরভ চক্রবর্তী জানিয়েছেন, গরুটিকে ইতিমধ্যে উদ্ধার করা হয়েছে। এক যুবকের মাধ্যমে এই গরুটি আহত হয়ে জাতীয় সড়কে পড়ে থাকার খবর পান তিনি (West Bardhaman News)। স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনটি তারপরে গরুটিকে উদ্ধার করে। গুরুতর আহত অবস্থায় গরুটি ওভারব্রিজে যন্ত্রণায় কাতরাচ্ছিল। গরুটিকে উদ্ধার করে এনে তার আহত পা দুটি অস্ত্রোপচার করে বাদ দেওয়া হয়।

    গরুর মালিকের খোঁজখবর করতে গিয়ে জানা যায়, রানীগঞ্জের রানীসায়েরের বাসিন্দা গৌতম বাউরি গরুটির মালিক। অস্ত্রোপচারের পর গরুটিকে মালিকের হাতে তুলে দেওয়া হয়েছে। আপাতত গরুটির চিকিৎসা চলছে। সুস্থ হয়ে উঠতে বেশ কয়েকদিন সময় লাগবে। এ ব্যাপারে সৌরভ চক্রবর্তী আরও বলেছেন, গরুর চিকিৎসা করতে ভালো টাকা ব্যয় করতে হয়। ওষুধের দাম অনেক। তা জানার পর কয়েকজন পশুপ্রেমী মানুষ, গরুটির চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনীয় ওষুধপত্র তুলে দেন (West Bardhaman News)। গরুটি সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে গেলে, তার কৃত্রিম পায়ের ব্যবস্থাও করা হবে বলে জানিয়েছেন সৌরভ বাবু।

    এই ব্যাপারে গরুটির মালিক গৌতম বাউরি বলেছেন, তার আর্থিক অবস্থা খুব বেশি উন্নত নয়। নিজেদেরই নুন আনতে পান্তা ফুরায় অবস্থা। তাই প্রতিদিন গরুর খাবার জোটানো সম্ভব হয় না। সেজন্যই গরুটিকে বিচরণের জন্য ছেড়ে দেওয়া হয়েছিল। গরুটি বাড়ি ফিরে না আসায় খোঁজাখুঁজিও করেন তিনি। তবে খোঁজ না পেয়ে হতাশ হয়েছিলেন। তার পরেই স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের তরফ থেকে গরুটির আহত হওয়ার খবর পান। তবে এই মুহূর্তে গরুটি ফিরে পেয়ে খুশি গৌতম বাউরি। স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সদস্যদের কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন তিনি।

    Nayan Ghosh

    First published:

    Tags: Cow, West Bardhaman

    পরবর্তী খবর