Home /News /local-18 /
West Bardhaman News- কর্মনাশা ধর্মঘটের বিরোধিতায় পানাগড় ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্কে আন্দোলন শ্রমিকদের

West Bardhaman News- কর্মনাশা ধর্মঘটের বিরোধিতায় পানাগড় ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্কে আন্দোলন শ্রমিকদের

পানাগড় ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্কে ধর্মঘটের বিরুদ্ধে সভা তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠনের।

পানাগড় ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্কে ধর্মঘটের বিরুদ্ধে সভা তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠনের।

ধর্মঘটের বিরোধিতায় এদিন পানাগড় ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্কে একাধিক কারখানার সামনে পথ সভা করেন তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী সমর্থকরা

  • Share this:

    #পশ্চিম বর্ধমান- ধর্মঘটের বিরোধিতায় পানাগড় ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্কে আন্দোলনে নামলেন তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী সমর্থকরা  (West Bardhaman News)। সোমবার সকাল থেকেই কেন্দ্রের ট্রেড ইউনিয়ন গুলির ডাকে এক গুচ্ছ দাবিতে দু দিন ব্যাপী সাধারণ ধর্মঘটের ডাক দেয়। কিন্তু সাধারণ ধর্মঘটের বিরোধিতায় এদিন পানাগড় ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্কে একাধিক কারখানার সামনে পথ সভা করেন তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মী সমর্থকরা।এদিন পথ সভায় যোগ দেন কাঁকসা ব্লকের তৃণমূলের ব্লক সভাপতি দেবদাস বক্সী, কাঁকসা ব্লকের তৃণমূলের যুব সহ সভাপতি সমরেশ ব্যানার্জি, তৃণমূল নেতা নব কুমার সামন্ত, যুব তৃণমূল কংগ্রেসের কর্মীরা ও তৃণমূল শ্রমিক সংগঠনের কর্মী সমর্থকরা ও শ্রমিকরা।

    কাঁকসা ব্লকের তৃণমূলের সভাপতি দেবদাস বক্সী জানিয়েছেন, বিভিন্ন কেন্দ্রীয় ট্রেড ইউনিয়নগুলি কেন্দ্রের জনবিরোধী নীতির বিরুদ্ধে দু দিন ব্যাপী সাধারণ ঘর্মঘটের ডাক দিয়েছে। তৃণমূল কংগ্রেস এই বনধের বিরোধিতা জানিয়েছে। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, এই রাজ্যে বনধের রাজনীতি আর করা যাবে না। এক সময় শিল্পের পরিবেশ ছিল না। রাজ্যে এখন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে শিল্পের প্রসার ঘটেছে। বেকার যুবক যুবতীদের কর্ম সংস্থান হয়েছে। সেজন্য পানাগড় ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্কের শ্রমিকরা স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে কাজে যোগ দিয়ে তারা ধর্মঘটের বিরোধিতা জানিয়েছেন। তিনি আরও বলেন, স্কুল কলেজ যেমন খোলা, তেমন সমস্ত কারখানাতেও শ্রমিকদের উপস্থিতি রয়েছে(West Bardhaman News)।

    উল্লেখ্য, কেন্দ্রীয় সরকারের বেশকিছু নীতির বিরুদ্ধে দু'দিনব্যাপী ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে ট্রেড ইউনিয়ন। বামেদের ডাকা ৪৮ ঘণ্টা বনধের ডাক দেওয়া হয়েছে সোমবার এবং মঙ্গল বার। কিন্তু ধর্মঘটের প্রথম দিন অর্থাৎ সোমবার শহর আসানসোলে খুব বেশি প্রভাব পড়তে দেখা যায়নি। যদিও ধর্মঘটের প্রথম দিন বনধ সফল করতে রাস্তায় নেমেছিলেন বাম কর্মী-সমর্থকরা। বিভিন্ন রাস্তা অবরোধ, মিছিল করে কিছুক্ষণ বনধ সফল করার চেষ্টা চালানো হয় (West Bardhaman News)। যদিও খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে পুলিশ ধর্মঘট তুলে দিয়েছে। জেলাজুড়ে বেশিরভাগ জায়গাতেই স্বাভাবিক ছিল পরিষেবা। ধর্মঘট অসফল করতে রাজ্য সরকার কড়া পদক্ষেপ করেছে। নবান্নের তরফ থেকে বেশকিছু নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। ফলে বেশিরভাগ জায়গাতেই স্বাভাবিক ছিল পরিষেবা। যদিও জেলার বেশ কিছু জায়গায় ধর্মঘট সফল করার জন্য বিক্ষিপ্ত কিছু ছবি ধরা পড়ছে। অন্যদিকে, পানাগড় ইন্ডাস্ট্রিয়াল পার্কে কর্মনাশা বনধ উপেক্ষা করে কর্মব্যস্ততার ছবি দেখা গিয়েছে।

    Nayan Ghosh

    First published:

    Tags: Bharat Bandh, Strike, Trade Union Strike, West Bardhaman

    পরবর্তী খবর