Home /News /local-18 /

মঙ্গলবারেও উড়ছে জাতীয় পতাকা ! অবমাননায় ক্ষোভ দুর্গাপুরে

মঙ্গলবারেও উড়ছে জাতীয় পতাকা ! অবমাননায় ক্ষোভ দুর্গাপুরে

রবিবার থেকে মঙ্গলবার গড়িয়েছে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান উড়ছে দেশের জাতীয় পতাকা।

  • Share this:

    #পশ্চিম বর্ধমান: দেশের ৭৫ তম স্বাধীনতা দিবস যথাযোগ্য মর্যাদায় পালিত হয়েছে গত রবিবার। স্বাধীনতা দিবসে গোটা দেশ মেতে উঠেছিল আনন্দে। দেশ সেজে উঠেছিল তেরঙায়। কিন্তু দিন পেরোতেই বিভিন্ন জায়গা থেকে জাতীয় পতাকার অবমাননার ছবি দেখা গিয়েছে। সেই তালিকায় এবার নাম জড়িয়েছে দুর্গাপুরের বেসরকারি একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের।

    রবিবার থেকে মঙ্গলবার গড়িয়েছে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান উড়ছে দেশের জাতীয় পতাকা। এই ছবি দেখে ক্ষোভে ফুঁসছেন পথচলতি মানুষ এবং স্থানীয়রা। জাতীয় পতাকার এহেন অবমাননার বিরুদ্ধে দ্রুত প্রশাসনিক পদক্ষেপের আর্জি জানিয়েছেন তারা।

    কাঁকসার রাজবাঁধে পরপর বেশ কয়েকটি বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রয়েছে। সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলিতে গত রবিবার স্বাধীনতা দিবসে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়েছিল। কিন্তু ওই কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে নির্দিষ্ট সময়ের পরেও জাতীয় পতাকা নামানো হয়নি। তিনদিন ধরে ওই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে উড়ছে জাতীয় পতাকা। যা জাতীয় পতাকার অবমাননা। দু'নম্বর জাতীয় সড়কের পাশে অবস্থিত ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটিতে দুর্ভাগ্যজনক ছবি চোখে পড়ছে সবার। পথচলতি মানুষ থেকে স্থানীয় বাসিন্দা, সবাই এই ঘটনার বিরুদ্ধে প্রশাসনিক পদক্ষেপের আর্জি জানাচ্ছেন।

    স্থানীয় বাসিন্দারা বলছেন, স্বাধীনতা দিবসের দিন সবাই জাতীয় পতাকা উত্তোলন করে। কিন্তু সেটার নিয়ম হল, সন্ধ্যার আগে নামিয়ে নেওয়া। কিন্তু যেভাবে গত রবিবার থেকে ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে  জাতীয় পতাকা উড়ছে, তা জাতীয় পতাকার অবমাননা। যদিও এই ঘটনার পরে ওই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান কর্তৃপক্ষের তরফ থেকে কোনও উত্তর পাওয়া যায়নি। কেন মঙ্গলবার পর্যন্ত জাতীয় পতাকাটি নামানো হয়নি, তারও কোনও সদুত্তর পাওয়া যায়নি। কিন্তু নিয়ম না মেনে জাতীয় পতাকা টাঙিয়ে রেখে পতাকার অবমাননা করার অভিযোগ উঠছে কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে। পাশাপাশি স্থানীয় প্রশাসনও কেন এখনও পর্যন্ত পতাকাটি নামানোর পদক্ষেপ করেননি, সে বিষয়ে প্রশ্ন তুলছেন অনেকে।

    ভারতীয় সংবিধান অনুযায়ী, যেখানেই পতাকা তোলা হোক না কেন, সূর্যাস্তের পর তা নামিয়ে ফেলতে হয়। বড় বড় সরকারি দপ্তরগুলি ছাড়া কারোর নিয়ম নেই এইভাবে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করে রাখার। তারপরও একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের এরূপ দায়িত্বজ্ঞানহীন কার্যকলাপের জন্য বেজায় চটেছেন সমাজবিদ থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষ।

    Nayan Ghosh

    Published by:Piya Banerjee
    First published:

    Tags: Durgapur, National Flag

    পরবর্তী খবর