Home /News /local-18 /
Lord Shiva Festival : এই মন্দিরে দন্ডী কাটলে নাকি পূরণ হয় সব মনস্কামনা; নীলষষ্ঠীতে জানুন চন্দ্রচূড় মন্দিরের কাহিনী

Lord Shiva Festival : এই মন্দিরে দন্ডী কাটলে নাকি পূরণ হয় সব মনস্কামনা; নীলষষ্ঠীতে জানুন চন্দ্রচূড় মন্দিরের কাহিনী

চন্দ্রচূড়

চন্দ্রচূড় মন্দিরে ভক্তদের ভিড়

এই নীলষষ্ঠী তিথিতে জেনে নিন একটি বিখ্যাত শিব মন্দিরের কাহিনী। যে মন্দিরে নাকি নীলষষ্ঠীর দিন ভক্তিভরে পুজো দিলে পূরণ হয় সব মনোবাঞ্ছা। মন্দিরে নীলষষ্ঠীর দিন উপবাস রেখে দন্ডী কাটলে সমস্ত মনস্কামনা পূরণ করেন দেবাদিদেব

  • Share this:

    #আসানসোল : বাংলার উৎসবের তালিকায় বছরের শেষ উৎসব শিবের গাজন। তাছাড়া এই সময় বাংলার বিভিন্ন জায়গায় মহা ধুমধামের সঙ্গে পালিত হয় চড়ক। বহু ভক্তরা নীলষষ্ঠীতে শিবের কাছে পুজো দেন। মহা হোমের সাক্ষী হন। এই নীলষষ্ঠী তিথিতে জেনে নিন একটি বিখ্যাত শিব মন্দিরের কাহিনী। যে মন্দিরে নাকি নীলষষ্ঠীর দিন ভক্তিভরে পুজো দিলে, পূরণ হয় সব মনোবাঞ্ছা। মন্দিরে নীলষষ্ঠীর দিন উপবাস রেখে দন্ডী কাটলে সমস্ত মনস্কামনা পূরণ করেন দেবাদিদেব। এমনই কাহিনী প্রচলিত রয়েছে আসানসোলের চন্দ্রচূড় শিব মন্দিরকে কেন্দ্র করে।

    আসানসোলের বহু পুরনো একটি মন্দির চন্দ্রচূড় শিব মন্দির। এই চন্দ্রচূড় শিব মন্দিরকে কেন্দ্র করে বহু কাহিনী প্রচলিত রয়েছে। আশপাশের বাসিন্দারা বলেন কয়েকশো বছরের পুরনো এই চন্দ্রচূড় শিব মন্দির। স্থানীয়দের দাবি, এক ব্যক্তি চন্দ্রচূড় শিব মন্দিরের লিঙ্গটি কৃষিকাজ করার সময় খুঁজে পান। চন্দ্রচূড় শিব মন্দিরে যে লিঙ্গটি রয়েছে, সেটি পাতাল ভেদ করে উঠে এসেছিল। এক ব্যক্তি কৃষি কাজ চালানোর সময়, তার লাঙ্গলের ধাক্কায় এই শিবলিঙ্গটি উঠে আসে। তবে লাঙ্গলের ফলা শিব লিঙ্গের মাথায় আঘাত করেছিল। সেই চিহ্ন এখনও রয়েছে বলে দাবি করেন স্থানীয়রা। তাছাড়াও শতাব্দী প্রাচীন এই মন্দিরকে কেন্দ্র করে বহু অলৌকিক কাহিনী প্রচলিত রয়েছে। বছরভর এই মন্দিরে পুণ্যার্থীদের ভিড় লেগে থাকে। তবে শিবরাত্রি এবং চৈত্র মাসের গাজনের সময় এই মন্দিরে বহু পরিমাণ ভক্তদের সমাগম হয়।

    মন্দির কমিটির সদস্যরা বলছেন, নীল ষষ্ঠী উপলক্ষে দুই লক্ষের বেশি মানুষ এই চন্দ্রচূড় মন্দিরে জমায়েত করেছিলেন। কয়েক হাজার মহিলা পুণ্যার্থী এই মন্দিরে নীলষষ্ঠী তিথিতে দন্ডী কেটেছেন। তাদের বিশ্বাস, চন্দ্রচূড় শিব মন্দিরে নীলষষ্ঠীতে দন্ডী কাটলে নাকি সব মনস্কামনা পূরণ হয়। আর সেই বিশ্বাসে ভর করে বহু পুণ্যার্থী লাইন দিয়েছিলেন চন্দ্রচূড় শিব মন্দিরে। তাছাড়াও গাজন উপলক্ষে চন্দ্রচূড় শিব মন্দিরে বিশাল মেলার আয়োজন করা হয়েছে। পাশাপাশি, যাত্রা, লোকগীতি সহ একাধিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের আয়োজনও করা হয়েছে চন্দ্রচূড় শিব মন্দিরে।

    Nayan Ghosh
    Published by:Samarpita Banerjee
    First published:

    Tags: Asansol, West Bardhaman

    পরবর্তী খবর