Home /News /local-18 /

সংকটে নাভিশ্বাস শব্দ করেই ভাঙছে দুর্গাপুরের শিল্পাঞ্চল

সংকটে নাভিশ্বাস শব্দ করেই ভাঙছে দুর্গাপুরের শিল্পাঞ্চল

চলতি মাসে বেশ কয়েকবার বিক্ষোভের সম্মুখীন হয়েছেন ইস্পাতনগরীর গর্ব দুর্গাপুর স্টিল প্ল্যান্টকে।

  • Share this:

বিগত কয়েকদিনে পরপর শ্রমিক বিক্ষোভের ছবি দেখেছে শিল্পাঞ্চল দুর্গাপুর। বিভিন্ন ইস্যুতে কারখানার সামনে বিক্ষোভ করেছেন শ্রমিকরা। কখনও স্থায়ী চাকরির দাবি, কখনও বেতন বৃদ্ধি, কখনও আবার বকেয়া মজুরির দাবি, বিভিন্ন ইস্যুতে উত্তপ্ত হয়েছে শিল্পাঞ্চলের পরিস্থিতি। কেন্দ্রীয় সরকারি সংস্থা থেকে বেসরকারি কারখানা, সমস্ত ধরনের শিল্পকেন্দ্রগুলিতে পড়েছে শ্রমিক অসন্তোষের ছাপ। এক শ্রমিক নেতার কথায়, শিল্পাঞ্চলে শিল্প সংকট দেখা দিয়েছে। শিল্পাঞ্চল শব্দ করে ভেঙে পড়ছে। যে আওয়াজ শিল্পাঞ্চলের মানুষ শুনতে পাচ্ছেন। তাঁর মত, এই সংকট থেকে শিল্পাঞ্চলকে বাঁচাতে হলে, কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকারকে সমানভাবে উদ্যোগী হতে হবে।

চলতি মাসে বেশ কয়েকবার বিক্ষোভের সম্মুখীন হয়েছেন ইস্পাতনগরীর গর্ব দুর্গাপুর স্টিল প্ল্যান্টকে। বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠনগুলি তাদের দাবিদাওয়া নিয়ে বিক্ষোভে সামিল হয়েছে। কখনও বিক্ষোভ গড়িয়েছে সংঘর্ষ পর্যন্ত। কেন্দ্রীয় সরকারের বেসরকারিকরণের নীতির বিরুদ্ধে সরব হয়েছে তৃণমূল, কংগ্রেস, সিপিএম। ইস্পাত কারখানার চুক্তিভিত্তিক শ্রমিকরা, বেতন বৃদ্ধি, স্থায়ীকরণ সহ একাধিক ইস্যুতে ইস্পাত কারখানার গেটের সামনে জমায়েত করেছেন। কর্তৃপক্ষকে বিদ্ধ করেছেন অভিযোগের তীরে। ইস্পাত কারখানার বিরুদ্ধে শ্রমিকদের এই ক্ষোভের আগুন, মোটেই ভালো চোখে দেখছেন না দুর্গাপুরের মানুষ।

অন্যদিকে অ্যালয় স্টিল প্লান্টে শ্রমিক বিক্ষোভের ছাপ দেখা গিয়েছে। দুর্গাপুরের একটি পাওয়ার প্লান্টে বেতন বৃদ্ধি এবং কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে চুক্তি না মানার অভিযোগ উঠেছে। এই ইস্যুতে বিক্ষোভ সামিল হয়েছিল বাম-কংগ্রেস। বিএসএনএল বেসরকারিকরণের বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করেছে  তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠন। অবস্থান-বিক্ষোভ হয়েছে।

এছাড়াও ছোট-বড় বেশকিছু বিক্ষোভের সম্মুখীন চলতি মাসে হতে হয়েছে শিল্পাঞ্চলকে। কাঁকসার একটি বেসরকারি কারখানায়, বকেয়া মজুরি চেয়ে জড়ো হয়েছিলেন শ্রমিকরা। তাদের মারধর করার অভিযোগ উঠেছে কারখানার নিরাপত্তা কর্মীদের দিকে। সব মিলিয়ে শিল্প তালুকের, শিল্প সংকটের ছবি স্পষ্ট হচ্ছে। স্পষ্ট হচ্ছে মানুষের কাজ হারানোর আশঙ্কার ছবি। ক্রমেই পরিষ্কার হচ্ছে শ্রমিক শোষণের চিত্রটা।

এই বিষয়ে বাম শ্রমিক সংগঠনের নেতা পঙ্কজ রায় সরকার বলেছেন, ২০১১ সালের পর থেকেই দুর্গাপুর শিল্পাঞ্চলের ছবিটা বদলে যেতে শুরু করেছে। শিল্পাঞ্চলে শিল্প সংকট বেড়েছে। বর্তমান কেন্দ্রীয় সরকারের নীতির কারণে শিল্পক্ষেত্রে সংকট বাড়ছে। তিনি বলেছেন, এই সময় শ্রমিকদের পাশে থাকা উচিত কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকারের। কিন্তু শ্রমিকদের পাশে সহায় হতে দেখা যাচ্ছে না সরকারকে। ফলে শিল্পাঞ্চল কার্যত ভেঙে পড়ছে। শিল্প সংকট দেখা দিচ্ছে। প্রচুর মানুষ কাজ হারাচ্ছেন। এই পরিস্থিতি থেকে শিল্পাঞ্চলকে টেনে তুলতে হলে, দুই সরকারের সমানভাবে উদ্যোগী হওয়া উচিত। শ্রমিক স্বার্থরক্ষায় কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকারের নজর দেওয়ার জন্য মত প্রকাশ করেছেন তিনি।

Published by:Arka Deb
First published:

Tags: Durgapur

পরবর্তী খবর