• Home
  • »
  • News
  • »
  • local-18
  • »
  • WEST BARDHAMAN DRAINAGE PROBLEM AT PANAGHAR

নর্দমার জল উপচে বাড়িতে, সমস্যায় মানুষজন

নর্দমার জল উপচে বাড়িতে, সমস্যায় মানুষজন।

নিকাশি ব্যবস্থা বেহাল। ভারী বৃষ্টিপাত। নিকাশি নালার জল ঢুকেছে বাড়িতে।

  • Share this:
    শুক্রবার দিনভর অক্লান্ত বর্ষণে ভিজেছে পশ্চিম বর্ধমান জেলা। দুর্গাপুর, পানাগড় সহ বিভিন্ন অঞ্চলে সারাদিন, বরুনদেবের অবিরাম আশীর্বাদ বর্ষণে অতিষ্ঠ হয়েছে মানুষ। তাতেই বেড়েছে সমস্যা। পানাগড়ের অফিস পাড়া এলাকায় নিকাশি ব্যবস্থা বেহাল। তারওপর ভারী বৃষ্টিপাত। এই দ্বৈত প্রভাবের জেরেই নিকাশি নালার জল ঢুকেছে বাড়িতে। যদিও এর আগে বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় পঞ্চায়েতের কাছে দরবার করা হয়েছে। তবে কোনও সুফল মেলেনি। যার ফলে, অন্যান্য বছরের মতো, এ\'বছরও নিকাশি নালার বেহাল অবস্থার ছবি ফিরে এসেছে। ড্রেনের জল বাড়িতে ঢুকে যাওয়ার ফলে, অসুবিধার সম্মুখীন হয়েছেন স্থানীয় বাসিন্দারা।এমনিতেই পানাগড় অফিসপাড়া একটি ঘন জনবসতিপূর্ণ এলাকা। পাড়ার গলি রাস্তাগুলির পাশ দিয়েই রয়েছে নিকাশি নালার ব্যবস্থা। কিন্তু নিকাশি নালা ছোট হওয়ার ফলে, ভারী বর্ষণ হলেই সেখান থেকে জল বেরিয়ে বাড়িগুলিতে ঢুকে যায়। তার ওপর নিয়মিত নর্দমা পরিষ্কার না করার ফলে, আবর্জনা জমে পরিস্থিতি আরও খারাপ হয়। তাদের অভিযোগ, নিকাশি নালার ওপর দিয়ে পারাপার করতে হয় তাদের। একটু ভারী বৃষ্টিপাত হলে সেই জল ঢুকে আসে বাড়ির ভেতরে। বিষয়টি নিয়ে বেশ কয়েকবার কাঁকসা পঞ্চায়েতকে জানানো হয়েছে। তবে পঞ্চায়েতের পক্ষ থেকে বিশেষ উদ্যোগী মনোভাব দেখা যায়নি। সংস্কার হয়নি নিকাশি নালার। যার ফলে, চলতি বছরের বর্ষাতেও সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন স্থানীয় মানুষজন।এই বিষয়টি নিয়ে, ব্লক সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিকের হস্তক্ষেপ দাবি করেছেন স্থানীয় মানুষজন। এই ব্যাপারে, বিডিওর কাছে একটি লিখিত অভিযোগ জমা দিয়েছে স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব। এই বিষয়ে বিজেপি নেতা রমন শর্মা জানিয়েছেন, বিষয়টি নিয়ে দলীয়ভাবে বিডিওর কাছে অভিযোগ জানানো হয়েছে। যাতে তিনি দ্রুত উদ্যোগী হয়ে নিকাশি নালার সংস্কারের ব্যবস্থা করেন, তার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। এছাড়াও এই বিষয়ে একটি ডেপুটেশনও জমা করা হয়েছে।স্থানীয়দের দাবি, প্রত্যেকবার ভারী বৃষ্টি হলেই, নিকাশি নালার জন্য সমস্যায় পড়তে হয় তাদের। তাই স্থানীয় প্রশাসনের কাছে তাদের অনুরোধ, যত দ্রুত সম্ভব নিকাশি নালাগুলির সংস্কারের ব্যবস্থা করা হোক।
    Published by:Ananya Chakraborty
    First published: