Home /News /local-18 /
West Bardhaman News- প্রথমসারির করোনা যোদ্ধারা পেলেন বুস্টার ডোজ। দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে তৃতীয় ডোজের টিকাকরণ।

West Bardhaman News- প্রথমসারির করোনা যোদ্ধারা পেলেন বুস্টার ডোজ। দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে তৃতীয় ডোজের টিকাকরণ।

ভ্যাকসিন নিতে লাইনে দাঁড়িয়েছেন করোনা যোদ্ধারা।

ভ্যাকসিন নিতে লাইনে দাঁড়িয়েছেন করোনা যোদ্ধারা।

সোমবার সকাল থেকে বুস্টার ডোজ দেওয়ার কাজ শুরু হয়েছিল। প্রথম দিনে প্রায় ৩০০ জনকে তৃতীয় ডোজের ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে।

  • Share this:

    #পশ্চিম বর্ধমান-  প্রতিদিন লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণের গ্রাফ। দেশ বা রাজ্যের পরিসংখ্যান হিসাবে বহু মানুষ প্রতিদিন আক্রান্ত হচ্ছেন। ভ্যাকসিনের দুটি বর্মও রক্ষা করতে পারছে না সংক্রমণ থেকে। এই পরিস্থিতিতে বিশেষজ্ঞরা পরামর্শ দিয়েছিলেন বুস্টার ডোজ দেওয়ার জন্য।

    কেন্দ্রীয় সরকারের অনুমতিতে আজ সোমবার থেকে দেশের বিভিন্ন জায়গায় শুরু হয়েছে বুস্টার ডোজ দেওয়ার কাজ। তৃতীয় ডোজের ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ শুরু হয়েছে রাজ্যেও। পশ্চিম বর্ধমান জেলার দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে বহু মানুষকে নির্ধারিত প্রথম দিনেই দেওয়া হয়েছে বুস্টার ডোজ (West Bardhaman News)।

    দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে সোমবার সকাল থেকে বুস্টার ডোজ দেওয়ার কাজ শুরু হয়েছিল। প্রথম দিনে প্রায় ৩০০ জনকে তৃতীয় ডোজের ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে। প্রথমদিন বুস্টার ডোজ দেওয়া হয়েছে ফ্রন্টলাইন ওয়ার্কারদের। করোনা যোদ্ধা হিসেবে যারা একেবারে প্রথম সারিতে কাজ করছেন, তাদের এদিন ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে (West Bardhaman News)। যে সমস্ত ফ্রন্টলাইন ওয়ার্কারদের দ্বিতীয় ডোজ নেওয়ার পরে নির্দিষ্ট সময়সীমা পেরিয়েছে, তাদেরকে এদিন ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে।

    তবে শুধুমাত্র ডোজই নয়। সোমবার সমানতালে হয়েছে দ্বিতীয় ডোজর দেওয়ার কাজ। পাশাপাশি ১৫ থেকে ১৮ বছর বয়সীদের ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ চলেছে। এই বিষয়ে দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে সুপার ধীমান মণ্ডল জানিয়েছেন, "নিয়ম মেনে ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ হচ্ছে। বুস্টার ডোজ দেওয়া শুরু হয়েছে। সরকারি নিয়ম মেনে লাইনে দাঁড়িয়ে রেজিস্ট্রেশন করে ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ চলছে। পাশাপাশি যারা এখনো পর্যন্ত ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ নিতে পারেননি, তাদেরও ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে"।

    অন্যদিকে, বুস্টার ডোজ পেয়ে খুশি গ্রহীতারা। ফ্রন্টলাইন ওয়ার্কার্স হিসেবে তারা একেবারে প্রথম সারিতে রয়েছেন। বিগত কয়েক বছর ধরে এই ভাইরাসের বিভিন্ন ভ্যারিয়েন্ট এর সঙ্গে তাদের একদম সামনে থেকে লড়াই করতে হচ্ছে। স্বাভাবিকভাবে তৃতীয় ডোজের ভ্যাকসিন পেয়ে তারা সকলেই খুশি এবং অনেকটা চিন্তামুক্ত। কারণ এখনও পর্যন্ত দেখা গিয়েছে, বহু মানুষ দুটি ভ্যাকসিন নেওয়ার পরেও আক্রান্ত হয়েছেন। তাই যারা প্রথম দিনে বুস্টার ডোজ পেয়েছেন, তারা আশা করছেন তৃতীয় বার ভ্যাকসিন নিয়ে করোনার বিরুদ্ধে তাদের শরীর আরও বেশি লড়াই করতে সক্ষম হবে (West Bardhaman News)। তবে সরকার নির্ধারিত প্রথম দিনে পানাগড় ব্লক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে হয়নি বুস্টার ডোজ দেওয়ার কাজ। অনলাইন পোর্টাল এখনও পর্যন্ত সম্পূর্ণ তৈরি না হওয়ায়, এদিন বুস্টার ডোজ দেওয়ার কাজ শুরু করা যায়নি। তবে ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক আশ্বাস দিয়েছেন, খুব শীঘ্রই পানাগড় ব্লক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে বুস্টার ডোজ দেওয়ার কাজ শুরু হবে। পানাগড় ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্য কেন্দ্রে BMOH ডক্টর বিপ্লব মন্ডল জানিয়েছেন, অন্যান্য জায়গায় বুস্টার ডোজ দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হলেও, এই মুহূর্তে পানাগড় ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে পোর্টালের কাজের পুরোপুরিভাবে প্রস্তুত হয়নি। সেই কারণে এই মুহূর্তে বুস্টার ডোজ দেওয়ার প্রক্রিয়া তারা শুরু করছেন না। তবে তিনি জানিয়েছেন, দ্রুত এই সমস্যার সমাধান করে কয়েকদিনের মধ্যেই এলাকার মানুষকে বুস্টার ডোজ দেওয়ার প্রক্রিয়া তারা শুরু করবেন।

    তবে, সোমবার সকাল থেকেই করোনার দ্বিতীয় ডোজ নিতে হাসপাতালে ভিড় জমান এলাকার মানুষ। হাসপাতাল থেকে ৫০০ জনকে করোনার কোভিশিল্ড ও কোভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হয়েছে। এদিন স্বাস্থ্যকেন্দ্রে প্রায় এক হাজার মানুষ লাইনে দাঁড়িয়েছিলেন ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য। এই বিষয়ে ডক্টর বিপ্লব মন্ডল জানিয়েছেন, অনেকেরই দ্বিতীয় ডোজ নেওয়া বাকি ছিল। তবে বর্তমান পরিস্থিতি দেখে আতঙ্কে দ্রুত টিকা নিতে ভিড় করেছিলেন অনেকে। এ বিষয়ে আশ্বাস দিয়ে তিনি বলেছেন, সবাইকে ভ্যাকসিন দেওয়া হবে নিয়ম মেনে।

    Nayan Ghosh
    First published:

    Tags: Corona Booster Dose, Covid vaccination, Durgapur, West Bardhaman

    পরবর্তী খবর