• Home
  • »
  • News
  • »
  • local-18
  • »
  • জাতীয় সড়ক অবাধ বিচরণ ক্ষেত্র গবাদি পশুদের, পদক্ষেপ পুলিশের

জাতীয় সড়ক অবাধ বিচরণ ক্ষেত্র গবাদি পশুদের, পদক্ষেপ পুলিশের

এইভাবেই জাতীয় সড়কে ঘুরছে গবাদি পশুর দল।

এইভাবেই জাতীয় সড়কে ঘুরছে গবাদি পশুর দল।

বাধ্য হয়ে জাতীয় সড়কের ওপর গবাদিপশুর বিচরনে পদক্ষেপ করছে কাঁকসা ট্রাফিক গার্ড

  • Share this:

    রাস্তা যেন অবাধ বিচরণ ক্ষেত্র। রাস্তার ইতিউতি ঘুরে বেড়াচ্ছে গবাদি পশুর দল। গাড়ি চলাচলের সময় রাস্তায় হঠাৎ সামনে এসে পড়ছে গরু। দুই নম্বর জাতীয় সড়কের কাঁকসা অঞ্চলে এই ছবির দেখা মেলে প্রতিদিন। সদাব্যস্ত দুই নম্বর জাতীয় সড়কে গবাদিপশুর এহেন বিচরণে, সমস্যায় পড়েন গাড়ি এবং বাইক চালকরা। ছোট বড় দুর্ঘটনা ঘটে প্রায় দিন। দুর্ঘটনার কবলে পড়ে গবাদি পশুগুলিও। তবে নজর নেই মালিকপক্ষের।

    নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও প্রতিপালকরা জাতীয় সড়কে বিচরণের জন্য ছেড়ে দেন তাদের গৃহপালিত প্রাণীগুলিকে। দু'নম্বর জাতীয় সড়কের কাঁকসা অঞ্চলে রাস্তার দু'পাশে প্রচুর ফাঁকা জমি পড়ে রয়েছে। ওই জায়গাগুলি স্থানীয় এলাকার গবাদি পশুগুলির বিচরণ ক্ষেত্র। কিন্তু গবাদি পশুর দল বিচরণক্ষেত্র ছাড়িয়ে হাজির হয় জাতীয় সড়কের ওপরে। সবসময় গাড়ি চলাচলে ব্যস্ত রাস্তার ওপর ঘোরাফেরা করতে থাকে প্রাণীগুলি। স্বাভাবিকভাবেই দুর্ঘটনার আশঙ্কা বাড়ে। ছোটখাটো দুর্ঘটনাও ঘটেছে বেশ কয়েকবার। দুর্ঘটনায় যেমন সাধারণ মানুষ, গাড়ি চালক আহত হন, ঠিক তেমনভাবেই আহত হয় গবাদি পশুগুলি। তাই বাধ্য হয়ে জাতীয় সড়কের ওপর গবাদিপশুর বিচরনে পদক্ষেপ করছে কাঁকসা ট্রাফিক গার্ড।

    কাঁকসা ট্রাফিক গার্ডের আধিকারিকরা দু নম্বর জাতীয় সড়কের ওপর অভিযান চালাচ্ছেন। জাতীয় সড়কের ওপর ঘোরাফেরা করা গবাদি পশুগুলিকে আটক করে নিয়ে যাওয়া হচ্ছে থানায়। তারপর খোঁজখবর নিয়ে, খবর দেওয়া হচ্ছে গবাদিপশুর মালিকপক্ষকে। গবাদি পশুগুলি জাতীয় সড়কের ওপর যাতে আর না উঠে আসে, তার জন্য সতর্ক করা হচ্ছে ওই সমস্ত প্রাণীগুলির প্রতিপালকদের। নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও যদি এরপর জাতীয় সড়কের ওপর এই বিচরণ ক্ষেত্র দেখা যায়, তাহলে কঠোর পদক্ষেপ করা হতে পারে বলে খবর।

    সূত্রের খবর, জাতীয় সড়কের ওপর এইভাবে গবাদিপশুর আনাগোনায় বিড়ম্বনায় পড়ছিলেন গাড়িচালকরা। দুর্ঘটনার আশঙ্কা নিয়ে ওই রাস্তায় গাড়ি চালাতে হচ্ছিল। পাশাপাশি, জাতীয় সড়কের ওপর বিচরণের জন্য গবাদি পশুগুলি দুর্ঘটনায় আহত হচ্ছিল। এই ঘটনায় আপত্তি তুলেছিল পশুপ্রেমী সংগঠনগুলি। তারপরই কাঁকসা ট্রাফিক গার্ড এর পক্ষ থেকে স্বতঃস্ফূর্তভাবে অভিযান শুরু করা হয়েছে।

    তবে শুধুমাত্র কাঁকসা এলাকায় নয়। জাতীয় সড়কের বহু জায়গাতেই এই ছবি ধরা পড়ে। পশুপ্রেমী সংগঠন থেকে গাড়ি চালক, সবাই একযোগে বলছেন, রাস্তায় যাতে গবাদিপশু এভাবে উঠে না আসে, তার জন্য প্রতিপালকদের বিশেষভাবে নজর দেওয়া উচিত। তাহলে সাধারণ মানুষকে দুর্ঘটনার সম্মুখীন হতে হবে না। একইসঙ্গে গবাদি প্রাণিগুলিও সুরক্ষিত থাকবে।

    Published by:Ananya Chakraborty
    First published: