• হোম
  • »
  • খবর
  • »
  • local-18
  • »
  • THREE YOUTH HANGING BODY RECOVERED AT MOLLARPUR BIRBHUM IN A DAY

একই দিনে বীরভূমের মল্লারপুর থেকে উদ্ধার তিন যুবক যুবতীর ঝুলন্ত মৃতদেহ

পৃথক এই দুর্ঘটনার খবর পেয়ে মল্লারপুর থানার পুলিশ দুই ক্ষেত্রেই মৃতদেহ উদ্ধার করে এবং ওই তিনজনের মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য রামপুরহাট গভারমেন্ট মেডিক্যাল কলেজে পাঠায়।

পৃথক এই দুর্ঘটনার খবর পেয়ে মল্লারপুর থানার পুলিশ দুই ক্ষেত্রেই মৃতদেহ উদ্ধার করে এবং ওই তিনজনের মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য রামপুরহাট গভারমেন্ট মেডিক্যাল কলেজে পাঠায়।

  • Share this:

    Madhab Das

    #বীরভূম: বীরভূমের মল্লারপুর থানার অন্তর্গত দুটি গ্রাম থেকে তিন যুবক যুবতীর ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার হলো। ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে এলাকায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে। স্থানীয় বাসিন্দারা এই তিন যুবক যুবতীর মৃত্যুর ঘটনায় আলাদা আলাদা দুটি প্রেমঘটিত টানাপোড়েন জড়িয়ে রয়েছে বলে অনুমান করছেন।

    তিন যুবক যুবতীর ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনা ঘটে শুক্রবার সকাল থেকে রাত পর্যন্ত। প্রথম ঘটনা ঘটে মল্লারপুর থানার অন্তর্গত সন্ধিগড়া গ্রামে। ওই গ্রামের এক যুবতী প্রিয়া লেট (১৮) ঘটনার আগের দিন বিকাল থেকে নিখোঁজ ছিলেন। এরপর এ দিন সকালে গ্রাম থেকে প্রায় ৫ কিলোমিটার দূরে একটি এলাকায় তাঁর ঝুলন্ত মৃতদেহ দেখতে পাওয়া যায়। পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রিয়া লেটের সঙ্গে পার্শ্ববর্তী গ্রামের পার্থ লেট নামে এক যুবকের আগে প্রেমঘটিত সম্পর্ক ছিল এবং সেই সম্পর্কের অবনতি হলে ওই যুবতীর অন্য গ্রামে বিয়ের ব্যবস্থা করা হয়। সেই বিয়ের অনুষ্ঠান আগামী রবিবার। তবে এর আগেই বৃহস্পতিবার ব্যাঙ্ক যাওয়ার নাম করে বাড়ি থেকে বেরিয়ে তিনি নিরুদ্দেশ হয়ে যান। পাড়াপড়শি থেকে জানা যায়, পার্থ লেটের সাথে তাঁকে শেষ দেখা গিয়েছিল। আর এর পরিপ্রেক্ষিতেই ওই যুবতীর পরিবারের সদস্যরা অভিযোগ করছেন তাঁদের মেয়েকে খুন করে ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে।

    অন্যদিকে, একই ভাবে মল্লারপুর থানার অন্তর্গত মহুলা গ্রামের মহুলা উচ্চবিদ্যালয় থেকে এ দিন সন্ধ্যাবেলায় অঞ্জনা লেট (১৮) এবং ষষ্ঠী লেট (১৮) নামে যুগলের ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। তাঁরাও আগের দিন থেকে নিখোঁজ ছিল বলে জানা যাচ্ছে স্থানীয় সূত্রে। স্থানীয় বাসিন্দাদের অনুমান, প্রেমঘটিত সম্পর্কের টানাপোড়েনের জেরেই এই যুগল আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়েছে।

    পৃথক এই দুর্ঘটনার খবর পেয়ে মল্লারপুর থানার পুলিশ দুই ক্ষেত্রেই মৃতদেহ উদ্ধার করে এবং ওই তিনজনের মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য রামপুরহাট গভারমেন্ট মেডিক্যাল কলেজে পাঠায়। পাশাপাশি তারা এই দুর্ঘটনার কারণ খুঁজতে তদন্ত শুরু করেছে।

    Published by:Simli Raha
    First published: