Home /News /local-18 /

Gangasagar Mela 2022- মিলছে না প্রণামী, বেজায় চটেছেন গঙ্গাসাগরে আসা সন্ন্যাসীরা

Gangasagar Mela 2022- মিলছে না প্রণামী, বেজায় চটেছেন গঙ্গাসাগরে আসা সন্ন্যাসীরা

ফাঁকা আখড়া, মিলছেনা প্রণামী

ফাঁকা আখড়া, মিলছেনা প্রণামী

করোনার কারণে ভিড় কম, মিলছে না প্রণামী, বেজায় চটেছেন গঙ্গাসাগরে আসা সন্ন্যাসীরা

  • Share this:

    #দক্ষিণ ২৪ পরগনা: করোনা অতিমারির মধ্যেই চলছে গঙ্গাসাগর মেলা। ফলে নানা বিধিনিষেধ পেরিয়ে অন্যান্য বছরের তুলনায় অনেকটাই ভিড় কম সাগরসঙ্গমে (Gangasagar Mela 2022)। তবু পুণ্য অর্জনের আশায় রাজ্যের পাশাপাশি অন্যান্য জায়গা থেকেও সাধু-সন্তরা এসেছেন কপিল মুনির আশ্রম চত্বরে। এসেছেন নাগা সন্ন্যাসীরাও। তবে অন্যান্য বছরের তুলনায় এবছর ভিড় না হওয়ায় বেজায় চটেছেন সাধু-সন্ন্যাসীরা। কারণ, পুণ্যার্থী কম আসায় প্রণামী মিলছে কম। ফলে তাঁদের ক্ষোভের মুখে পড়তে হচ্ছে সাধারণ মানুষ থেকে মেলা কমিটির দায়িত্বে থাকা আধিকারিকদেরও।

    গঙ্গাসাগর মেলায় প্রতিবছর ভিড় করেন কয়েক লক্ষ মানুষ। তার মধ্যে বহু সাধু-সন্ন্যাসীও আছেন। মন্দিরের পাশে রাজ্য সরকারের তরফ থেকে তৈরি করা আখড়ায়, মেলার ক'দিন, আস্তানা গাড়েন তারা। মেলায় আসা মানুষজন স্নান সেরে কপিল মুনির আশ্রম মন্দিরে পুজো দিয়ে সাধুদের কাছে ভিড় করেন। আশীর্বাদ নেন, নিজেদের সমস্যার কথা তুলে ধরেন। সমাধানের নানা পথ বাতলে দিয়ে প্রণামী অর্জন হয় সাধু-সন্তদের (Gangasagar Mela 2022)। কিন্তু এই বছর সে ভাবে ভিড় হয়নি গঙ্গাসাগর মেলায়। যে কারণে মেলেনি তেমন প্রণামীর টাকা। আর এতেই বেজায় ক্ষুব্ধ ভিন রাজ্য থেকে আসা সাধু-সন্তরা। মেলা চত্বরে এদিন দেখা গেল, কখনও বোতল ভর্তি জল ছুঁড়ে মারছেন দর্শনার্থীদের উদ্দেশ্যে, আবার কখনও অকথ্য ভাষা ব্যবহার করছেন আখড়ার পাশ দিয়ে হেঁটে যাওয়া দর্শনার্থীদের উদ্দেশ্যে। এমন ব্যবহারে অসন্তুষ্ট মেলায় আগত সাধারণ মানুষ।

    করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের পরিপ্রেক্ষিতে হাইকোর্টের শর্তসাপেক্ষে এবার গঙ্গাসাগর মেলা অনুষ্ঠিত হচ্ছে (Gangasagar Mela 2022)। সেইমতো একাধিক ব্যবস্থা নিয়েছে প্রশাসন। মেলায় সাধুদের বসার পাশের জায়গা ঘিরে দিয়েছে পুলিশ। এতে করে সাধারণ মানুষ তাঁদের একদম কাছে যেতে পারছেন না। ফলে রুজিতে টান পড়েছে। সাধারণ মানুষ সেলফি তুলতে গেলেই জল ছুঁড়ে দিচ্ছেন। কেন এই রূপ ব্যবহার! জিজ্ঞাসা করতেই বেজায় চটে উঠলেন এক নাগা সন্ন্যাসী। তাদের বক্তব্য, সাধুদের করোনা ধরতে পারবে না। শুধু শুধুই পুলিশ প্রশাসনের এত কড়া নজরদারি। বেছে বেছে তাদেরই সমস্যায় ফেলা হচ্ছে। তাই সাধারণ মানুষ তাদের কাছে যেতে পারছেন না। প্রশাসনের ওপর দায় চাপিয়ে, মাস্ক ব্যবহারেও তাদের রয়েছে অনীহা।

    অপরদিকে, অলিভিয়া রায় চৌধুরি নামে এক মহিলা দর্শনার্থীর কথায়, "সাধুদের এই ধরনের আচরণ কাম্য নয়। ওনারা আশীর্বাদ দেওয়ার বদলে বোতলের জল ছুঁড়ে মোবাইল, জামাকাপড় নষ্ট করে দিচ্ছেন। কদর্য ভাষা ব্যবহার করছেন। উপরন্তু মাস্ক ব্যবহারও করছেন না"। এবছর গঙ্গাসাগর মেলায় গিয়ে এই ধরনের ঘটনার শিকার হয়েছেন বেশ কয়েকজন। এরপরই, প্রশ্ন উঠেছে তবে কি ধর্মের নামে ব্যবসা-ই এক শ্রেণির সাধুসন্তদের লক্ষ্য!

    Rudra Narayan Roy

    First published:

    Tags: COVID-19, Gangasagar Mela 2022, Omicron, South 24 Parganas news

    পরবর্তী খবর