• Home
  • »
  • News
  • »
  • local-18
  • »
  • Sundarban news: সুন্দরবনের উপকূলবর্তী এলাকায় টানা কয়েক দিনের বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত জনজীবন

Sundarban news: সুন্দরবনের উপকূলবর্তী এলাকায় টানা কয়েক দিনের বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত জনজীবন

জলমগ্ন সুন্দরবন উপকূলের বিস্তীর্ণ এলাকা

জলমগ্ন সুন্দরবন উপকূলের বিস্তীর্ণ এলাকা

Bangla news: প্লাবিত হওয়া নিচু এলাকা থেকে মানুষদের ফ্লাড সেন্টারে নিয়ে আসার কাজ চালাচ্ছে জেলা প্রশাসন।

  • Share this:

    #দক্ষিণ ২৪ পরগনা: গত কয়েকদিনের টানা বৃষ্টিতে জলমগ্ন হয়ে পড়েছে সুন্দরবন (Sundarban Rain)  উপকূলের বিস্তীর্ণ এলাকা। সুন্দরবনের উপকূলবর্তী সাগর, নামখানা, পাথরপ্রতিমা, ক্যানিং, গোসাবার নিচু এলাকা জলের তলায় চলে গিয়েছে। ধানের জমি, পানের বরজ, সবজির খেত- সবই জলমগ্ন হয়ে পড়েছে।

    টানা বৃষ্টির জেরে নামখানার মৌসুনি, পাতিবুনিয়া, হরিপুর, লক্ষ্মীপুরের প্রায় দেড় হাজার(Sundarban Rain)  বাসিন্দাকে ত্রাণ শিবিরে নিয়ে আসা হয়েছে। আবহাওয়া দফতর সূত্রের খবর, ডায়মন্ড হারবার ও কাকদ্বীপ মহকুমায় গত কয়েকদিনে দেড়শো মিলিমিটারেরও বেশি বৃষ্টিপাত হয়েছে।

    জমা জল ঢুকে পড়েছে এলাকার বহু মানুষের বাড়িতে। জেলার বিভিন্ন প্রান্তে ভেঙে পড়েছে কাঁচা বাড়ি। ছাদ হারিয়ে বহু মানুষ আশ্রয় নিয়েছেন স্থানীয় সাইক্লোন সেন্টারে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিপর্যয় মোকাবিলা দল লাগাতার মাইকে প্রচার চালাচ্ছে। প্রয়োজনে স্কুল বা ফ্লাড সেন্টারে উঠে আসার নির্দেশও দেওয়া হয়েছে। গত কয়েকদিনে সব মিলিয়ে জেলার বিভিন্ন ব্লক থেকে প্রায় কয়েক হাজার মানুষকে সাইক্লোন সেন্টারে তুলে নিয়ে আসা হয়েছে প্রশাসনের তরফ থেকে।

    জেলা মহকুমা গুলির (Sundarban Rain) পাশাপাশি সুন্দরবনের ব্লক অফিস গুলিতে কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। প্রতিটি পঞ্চায়েতের সঙ্গে যোগাযোগ রাখাছে প্রশাসন। নদী উত্তাল থাকায় কিছু ক্ষেত্রে বন্ধ রয়েছে ফেরি সার্ভিস ও। সুন্দরবন এলাকার সরকারি দপ্তরগুলির কর্মী ও আধিকারিকদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে।

    বেড়েছে সুন্দরবনের নদী (Sundarban Rain) ও সমুদ্রের জলস্তর। ফলে নদী বাঁধ উপচে জল ঢোকার আশঙ্কা তৈরি হয়েছে বহু এলাকায়। জলোচ্ছ্বাসের জেরে প্লাবিত হয় মৌসুনি দ্বীপ ও পাথরপ্রতিমার বিস্তীর্ণ এলাকা। সুন্দরবনের উপকূলবর্তী নামখানা, কাকদ্বীপ, সাগরদ্বীপের নিচু এলাকার ও কাঁচা বাড়ির বাসিন্দাদের নিরাপদ আশ্রয় নিয়ে আসা হয়েছে।

    টানা বৃষ্টিতে(Sundarban Rain)  সবজি চাষেরও ব্যাপক ক্ষতি হয়েছে জেলায়। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পরিস্থিতির উপর নজর রাখা হচ্ছে। প্রতিটি ব্লকে শুকনো খাবার, জলের পাউচ, ত্রিপল মজুত রাখা হয়েছে। টানা এই বিপর্যয়ের ফলে জেলার বৃহৎ অংশের মানুষ চরম সমস্যায় পড়েছেন। এখন কবে আবহাওয়ার পরিবর্তন হয় সেদিকেই তাকিয়ে এই অসহায় মানুষজন।

    রুদ্র নারায়ন রায়

    Published by:Piya Banerjee
    First published: