Home /News /local-18 /
আর্থিক সমস্যার কারণে বিদেশে খেলতে যাওয়ার সুযোগ হাতছাড়া হতে বসেছে ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড়ের

আর্থিক সমস্যার কারণে বিদেশে খেলতে যাওয়ার সুযোগ হাতছাড়া হতে বসেছে ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড়ের

ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড় শাজাহান বুলবুল

ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড় শাজাহান বুলবুল

আর্থিক সমস্যার কারণে বিদেশে খেলতে যাওয়ার সুযোগ হাতছাড়া হতে বসেছে ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড়ের

  • Share this:

    রুদ্র নারায়ন রায়, দক্ষিণ ২৪ পরগনা: প্রতিবন্ধকতাকে জয় করে স্বপ্ন দেখতে শুরু করেছিলেন এক খেলোয়ার। কিন্তু আর্থিক সমস্যাই এখন প্রধান বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে তার। সুদূর আফ্রিকার উগান্ডায় খেলতে যাওয়ার সুযোগ পেয়েছেন এই খেলোয়াড় (Badminton player)। পেরু ওপেন ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতায় (Badminton) ব্রোঞ্জ পদক জয়ী খেলোয়াড়ের তাই এখন মন খারাপ।

    আফ্রিকার উগান্ডার কাম্পালা শহরে এবছর ১৪ নভেম্বর থেকে শুরু হচ্ছে 'উগান্ডা প্যারা ব্যাডমিন্টন ইন্টারন্যাশনাল টুর্নামেন্ট' (Uganda Para badminton International)। সেই টুর্নামেন্টে ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতায় খেলায় সুযোগ পেয়েছে বিশেষভাবে সক্ষম ভাঙড়ের শাজাহান বুলবুল। কিন্তু বর্তমানে তাঁর উগান্ডার স্বপ্ন উড়ান অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে, আর্থিক সমস্যার কারণে। শত প্রতিকূলতার মধ্যেও তিনি কিভাবে উগান্ডায় উড়ে যাবেন তা ভেবে পাচ্ছেন না। সব মিলিয়ে উগান্ডায় যাওয়ার খরচ প্রায় এক লক্ষ পঁচিশ হাজার টাকা। টাকা জোগাড়ের জন্য তিনি এলাকার জনপ্রতিনিধি থেকে শুরু করে প্রশাসনের বিভিন্ন দফতরে দরবার করছেন। কিন্তু মেলেনি কোন সাহায্য।

    ভাঙড় দু নম্বর ব্লকের ভগবানপুর এলাকায় বাড়ি এই শাজাহান বুলবুলের। দুই সন্তানের বাবা শাজাহানের বাম পা পোলিও আক্রান্ত হয়ে অকেজো হয়ে যায়। সংসার সামলানোর জন্য তিনি ডেলিভারি বয়ের কাজ জোগাড় করে কোনোক্রমে সন্তানের মুখে খাবার তুলে দেন। আর্থিক অনটনের মধ্যেও তিনি স্বপ্ন দেখেন ২০২২ সালে এশিয়ান গেমস থেকে দেশকে সোনা এনে দেওয়ার। সেক্ষেত্রে তাঁকে 'উগান্ডা প্যারা ব্যাডমিন্টন ইন্টারন্যাশনাল টুর্নামেন্ট' অংশগ্রহণ করতে হবে। ওই প্রতিযোগিতায় তিনি নির্দিষ্ট রেঙ্ক(rank) করতে পারলে পরবর্তী ক্ষেত্রে এশিয়ান গেমস, কমনওয়েলথ গেমস সহ বিভিন্ন প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করতে পারবেন।

    শাজাহান ২০১৫ সালে লাতিন আমেরিকায় পেরু ওপেন ব্যাডমিন্টন টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণ করে ডব্লিউ এইচ দুই ক্যাটাগরিতে মেন্স সিঙ্গেলস, মেন্স ডবলসে তৃতীয় স্থান হয়ে ব্রোঞ্জ পদক জয়লাভ করেছিলেন। ওই বছরই তিনি রাজ্য সরকারের থেকে 'খেল সম্মান অ্যাওয়ার্ড' পান। তার আগে ২০১৩ সালে জার্মানিতে অনুষ্ঠিত 'ব্যাডমিন্টন ওয়ার্ল্ড ফেডারেশন' টুর্ণামেন্টে কোয়ার্টার ফাইনালে খেলেন। ২০১৪ সালেও ইন্দোনেশিয়াতে ব্যাডমিন্টন ওয়ার্ল্ড ফেডারেশন টুর্ণামেন্টে কোয়ার্টার ফাইনালে সুযোগ পান তিনি।

    শাজাহান বুলবুল বলেন, 'আমি এই মুহূর্তে ভারতে তিন রেঙ্ক এ। আমার যা আর্থিক অবস্থা তাতে আমার পক্ষে ব্যক্তিগত খরচে উগান্ডা যাওয়া সম্ভব নয়। বেঙ্গল অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশন এবং রাজ্য ক্রিড়া মন্ত্রকের কাছ থেকে কোন সাহায্য পাচ্ছি না। আমার স্বপ্ন ২০২২ সালে এশিয়ান গেমসে অংশগ্রহণ করে দেশকে সোনা এনে দেওয়া। সেক্ষেত্রে আমার উগান্ডায় ওই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করা প্রয়োজন। সবার সহযোগিতা পেলে আমি ওই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করতে পারি। কিছু টাকা ব্যক্তিগত উদ্যোগে জোগাড় করতে পারলেও এখনও খরচের সমস্ত টাকা জোগাড় করতে পারিনি। আর কয়েক দিনের মধ্যে টাকা জোগাড় না হলে আমার স্বপ্ন অধরাই থেকে যাবে।'

    শাজাহান বুলবুলের কোচ ভাস্কর মুখোপাধ্যায় বলেন, 'ও খুবই প্রতিভাবান খেলোয়াড়। শারীরিক প্রতিবন্ধকতা থাকলেও মনের জোরে আজ ও এই সাফল্য পেয়েছে। এখন আর্থিক সমস্যাই মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে ওর। আমরাও ওর পাশে থেকে সব রকম ভাবে সহযোগিতা করার চেষ্টা করছি।' ভাঙড় দু নম্বর ব্লকের বিডিও কার্তিক চন্দ্র রায় বলেন, 'আমরা প্রশাসনিক ভাবে ওর হাতে বেশ কিছু টাকা তুলে দিয়েছি। এছাড়া এলাকার জনপ্রতিনিধিরাও সর্বতোভাবে ওর পাশে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছেন বলে শুনেছি।' শাজাহান বর্তমানে স্বপ্নকে চোখে নিয়েই আর্থিক সামর্থ্য জোগানোর চেষ্টা করে চলেছেন, আর চাইছেন কোন সহৃদয় ব্যক্তি বা সরকারের তরফ থেকে যদি বিশেষ কোনো সাহায্য পান। তবে প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়ে রাজ্যের ক্রীড়া ক্ষেত্রে, বিশেষ সম্মান নিয়ে আসতে পারবেন বলে আশাবাদী এই খেলোয়াড়।

    Published by:Ananya Chakraborty
    First published:

    Tags: Badminton, South 24 Parganas news, Sundarban

    পরবর্তী খবর