Home /News /local-18 /
Siliguri: শিলিগুড়ির 'সোনার' ছেলে দেবরূপ! 'কসমস' এঁকে বিশ্বের দরবারে শহরের নাম

Siliguri: শিলিগুড়ির 'সোনার' ছেলে দেবরূপ! 'কসমস' এঁকে বিশ্বের দরবারে শহরের নাম

শিলিগুড়িতে মান্থু স্যারের সঙ্গে দেবরূপ!

শিলিগুড়িতে মান্থু স্যারের সঙ্গে দেবরূপ!

রাশিয়ায় একটি প্রদর্শনীতে শিলিগুড়ির দেবরূপের আঁকা ছবি রাখা ও প্রদর্শন করা হবে

  • Share this:

    ভাস্কর চক্রবর্তী, শিলিগুড়ি: ফের শিলিগুড়ির মুকুটে জুড়ছে মণি। এবার বাজিমাত করল শহরের দেশবন্ধুপাড়ার ছোট দেবরূপ মোহন্ত (Debrup Mohanta)। সম্প্রতি রাশিয়া ইন্ডিয়া কালচারাল এক্সচেঞ্জ (Russia India Cultural Exchange) আয়োজিত এক আন্তর্জাতিক অনলাইন অঙ্কন প্রতিযোগিতায় (International Art Competition) উত্তরবঙ্গের (North Bengal) নাম উজ্জ্বল করেছে সে। খুদে দেবরূপ  'ক'-বিভাগে (৫ থেকে ৭ বছর বয়সীদের) 'কসমস (Cosmos)' অর্থাৎ মহাবিশ্ব এঁকে প্রথম স্থান (1st Position) অর্জন করে শিলিগুড়ি তথা উত্তরবঙ্গের নাম বিশ্বের দরবারে তুলে ধরেছে। রাশিয়া-ইন্ডিয়া কালচারাল এক্সচেঞ্জ, কলকাতা (Russia India Cultural Exchange, Kolkata) দপ্তর সূত্রে খবর, চলতি বছরের অক্টোবর থেকে ডিসেম্বর মাসে রাশিয়ায় একটি প্রদর্শনীর (Exhibition) আয়োজন করা হবে। সেখানে শিলিগুড়ির দেবরূপের আঁকা ছবি রাখা ও প্রদর্শন করা হবে।

    দেবরূপের মা তস্মিতা চট্টোপাধ্যায় নিউজ ১৮ লোকালকে (News 18 Local) বলেন, 'ওর এখন ৬ বছর বয়স প্রথম শ্রেণীতে পড়ছে। সেখানে এই বয়সে এই সাফল্য আমাদের কাছে অপ্রত্যাশিত। আমি এবং ওর আঁকার স্যার ভেবেছিলাম অংশগ্রহণ করছে ঠিক আছে কিন্তু এই সাফল্য আমরা আশা করিনি। ভীষন ভালো লাগছে। আমিও আকাঁর জগতে আছি তো আমার ছেলেও আঁকার জগতে থাকুক উন্নতি করুক এগিয়ে যাক এই কামনা করি।'

    দাদু কানাই চট্টোপাধ্যায় নিউজ ১৮ লোকালকে (News 18 Local) বলেন, 'নাতির এই উন্নতিতে আমি ভীষণ খুশি। নাতি-নাতনিরা উন্নতি করলে সবথেকে বেশি খুশি দাদু-দিদারাই হয়। আঁকা এবং আঁকা প্রতিযোগিতা এসবে নাতিকে আগ্রহ করেই এসেছিল। আমি মনে করি আঁকা এমন একটি বিষয় যার মাধ্যমে ও সারা পৃথিবী দেখতে পাবে। মানুষ আঁকার মাধ্যমে পৃথিবীটাকে দেখাতে পারে। আঁকার জগতে সবাই তো উঠতে পারে না সেখানে একটা ফুল ফুটে ওঠে তার যোগ্যতার (Talent) মধ্যে দিয়ে। আমি আজ আমার নাতির সাফল্যের জন্য দিল্লি ওয়ান্ডার ওয়ার্ল্ড স্কুলকে (Delhi wonder World School) এবং বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষিকাদের ধন্যবাদ জানাই।'

    অন্যদিকে, দেবরূপের আঁকার শিক্ষক মান্থু রায় নিউজ ১৮ লোকালকে (News 18 Local) বলেন, 'রাশিয়ায় ইন্ডিয়া কালচারাল এক্সচেঞ্জ (Russia India Cultural Exchange) সংস্থার তরফে দু'দেশের পাঁচটি বয়সের বিভাগে প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়েছিল। দুটো দেশের যৌথ উদ্যোগে এই অনুষ্ঠানটি আয়োজিত হয়। একদিনে একসঙ্গে দুই দেশেই অনুষ্ঠানটি আয়োজিত হয়। এবছর ছোটোদের অনুষ্ঠানটি ছিল 'ক'-বিভাগ থেকে 'ঙ'-বিভাগ পর্যন্ত। এখানে ১৮ বছর বয়স পর্যন্ত ছেলেমেয়েরা অংশগ্রহণ করেছে। তাই আমি 'ক'-বিভাগে দেবরূপকে অংশগ্রহণ করিয়েছি। এটা আন্তর্জাতিক স্তরে অঙ্কন প্রতিযোগিতা। অনেকেই অংশগ্রহণ করেছে। আমার জানাও ২০-২৫ জন অংশগ্রহণ করেছে। দেবরূপের এই সাফল্যে আমি খুশি। তবে এতো ছোট বয়সে দেবরূপ যে করে দেখাতে পারবে, সেটা ভাবতে পারিনি। আমার জন্য এটা খুব গর্বের বিষয় যে আমার ছোট ছাত্র প্রথম হয়েছে। আমি খুব গর্বিত।'

    পাশাপাশি, দিল্লি ওয়ান্ডার ওয়ার্ল্ড স্কুলের (Delhi Wonder World School) প্রধান শিক্ষিকা শ্বেতা চৌধুরী নিউজ ১৮ লোকালকে (News 18 Local) বলেন, 'সত্যিই খুব ভালো লাগছে। আমার কাছে গর্বের বিষয় যে দেবরূপ আমাদের স্কুলকে আন্তর্জাতিক পর্যায়ে তুলে ধরেছে এবং গোটা দেশ-সহ উত্তরবঙ্গের নাম বিদেশের মাটিতে ধ্বনিত করেছে। এরজন্য দেবরূপের তথা আমাদের স্কুলের অঙ্কন শিক্ষক মান্থু স্যারকে ধন্যবাদ জানতে চাই। আমার মনে হয় দেবরূপ জীবনে এই বিষয়ে অনেক এগোবে এবং বারংবার আন্তর্জাতিক পর্যায়ে  ভারতকে তুলে ধরবে। দেবরূপের বাবা-মার মতো সকলের উচিত এভাবেই নিজের সন্তানকে পড়াশুনার পাশাপাশি বিভিন্ন কার্যকলাপের জন্য উৎসাহী করে তোলা।'

    Published by:Ananya Chakraborty
    First published:

    Tags: Darjeeling, Russia, Siliguri

    পরবর্তী খবর