• হোম
  • »
  • খবর
  • »
  • local-18
  • »
  • PURBA MEDINIPUR MOTHER DIED IN PURBA MIDNAPORE AS SHE COULD NOT BEAR THE GRIEF OF HER SONS DEATH PB

ছেলের মৃত্যুশোক সহ্য করতে না পেরে মারা গেলেন মা ! ঘটনায় চাঞ্চল্য

ছেলে তপনের মৃত্যু শোকে মূহ্যমান হয়ে পড়ে কল্পণা বেরা। ডাক্তাররা জানিয়েছেন ছেলের শোকে প্রাথমিক ভাবে হৃদযন্ত্র বিকল হয়ে যায় কল্পনা বেরার।

ছেলে তপনের মৃত্যু শোকে মূহ্যমান হয়ে পড়ে কল্পণা বেরা। ডাক্তাররা জানিয়েছেন ছেলের শোকে প্রাথমিক ভাবে হৃদযন্ত্র বিকল হয়ে যায় কল্পনা বেরার।

  • Share this:

    #নন্দকুমার:   মঙ্গলবার পূর্ব মেদিনীপুর নন্দকুমার থানার কল্যানপুর গ্রামে একটি পুকুর থেকে উদ্ধার হয় ২৭ বছরের এক যুবকের নলি কাটা অবস্থায় এক ব্যক্তির দেহ। পরে জানা যায় তপন বেরা নামে স্থানীয় মাধবপুর গ্রামের ওই যুবকরে বাড়ি। দেহ উদ্ধারের পরই ক্রমশ দানা বাঁধতে থাকে মৃত্যু রহস্য। নন্দকুমার থানার পুলিশ শুরু করে তদন্ত।    তপনের মৃত্যুর পরেই পরিবারে নেমে এলো আবারও এক মৃত্যুর শোক। ছেলের মৃত্যু সহ্য করতে না পেরে অসুস্থ হয়ে পড়ে  মা কল্পনা বেরা। প্রথমে তাকে নন্দকুমার ব্লক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভর্তি করা হয়। শারীরিক অবস্থার অবনতির কারণে পরে তমলুক জেলা হাসপাতাল স্থানান্তরিত করা হয়। গতকাল রাত ১২টার সময় তার মৃত্যু হয় কল্পনা বেরার। তবে তদন্তে নেমে নন্দকুমার থানার পুলিশ প্রাথমিক ভাবে মৃত্যুরহস্য ক্ষেত্রে পারিবারিক যোগাযোগ রয়েছে বলে মনে করছে। আর তাই এই ব্যাপারে খুড়তুতো বোন, বউ,  শাশুড়ি এবং ব্যবসায়ী যোগসাজেশ আছে বলে প্রাথমিক অনুমান। আজ তপন বাবুর স্ত্রী ও এক ব্যবসায়ী রাম মাইতিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে নন্দকুমার থানার পুলিশ। তবে এই মৃত্যুরহস্য উৎঘাটন করতে নেমে চাঞ্চল্যকর মোড় নিচ্ছে বলে মনে করছে এলাকা বাসীরা। এলাকা বাসীদের প্রাথমিক অনুমান শ্বাসরোধ করে খুন করে পুকুরে ফেলে দেওয়া হয়ে ছিল। এমনকি মৃত্যু নিশ্চিত করতে গলার নলি কেটে দেওয়া হয়। পাশাপাশি পুলিশের প্রাথমিক তদন্তেও এমনটাই উঠে আসছে বলে মনে করা হচ্ছে। প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ স্থানীয় বাসিন্দাদের কাছ থেকে জানতে পেরেছে, তপন যে অনলাইন লটারি দোকানে কাজ করতেন তার মালিকের সংগে তপনের শাশুড়ির বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক ছিল। আর তা নিয়ে প্রতিবাদ করত তপন। এই নিয়ে গ্রামে একবার শালিশি সভাও বসে ছিল। এমনকি তপন শ্বশুর বাড়িতে গেলে তাকেও মারধর করা হতো বলে অভিযোগ। পুলিশ ওই অনলাইন লটারি খেলার দোকানের মালিক রাম মাইতি ও তপনের স্ত্রীকে আটক করে জিঙ্গাসাবাদ শুরু করছে পুলিশ। ছেলে তপনের মৃত্যু শোকে মূহ্যমান হয়ে পড়ে কল্পণা বেরা। ডাক্তাররা জানিয়েছেন ছেলের শোকে প্রাথমিক ভাবে হৃদযন্ত্র বিকল হয়ে যায় কল্পনা বেরার। যার ফলে মৃত্যু হয় কল্পনা বেরার। প্রথমে ছেলে পরে মা দুজনকে হারিয়ে শোকে মুহ্যমান তপন বেরার পরিবার।

    Saikat Shee

    Published by:Piya Banerjee
    First published: