Home /News /local-18 /
East Medinipur News- জাতীয় সড়কে নতুন আতঙ্ক! মৌমাছির হানায় আক্রান্ত একশোর বেশি পথচারী

East Medinipur News- জাতীয় সড়কে নতুন আতঙ্ক! মৌমাছির হানায় আক্রান্ত একশোর বেশি পথচারী

Purba Medinipur DM office

Purba Medinipur DM office

দিঘা যাতায়াতের পথে এই রাজ্য সড়কে হানাদারদের নিয়ে চিন্তিত প্রশাসন। নতুন হানাদার একদল মৌমাছি

  • Share this:

    #পূর্ব মেদিনীপুর: পূর্ব মেদিনীপুর জেলার অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ জাতীয় সড়কে নতুন হানাদারে আতঙ্কে পথচারী। এখনো পর্যন্ত একশোর বেশি পথচারী আক্রান্ত হয়েছে। হানাদার থেকে পথচারীদের মুক্তি দিতে উদ্যোগ নিয়েছে প্রশাসন (East Medinipur News)। পূর্ব মেদিনীপুর জেলার গুরুত্বপূর্ণ জাতীয় সড়ক ১১৬ বি। নন্দকুমার থেকে দিঘা পর্যন্ত বিস্তৃত এই জাতীয় সড়কে নতুন হানাদারদের আতঙ্কে চলাফেরা দায় পথচারীদের। দিঘা যাতায়াতের পথে এই রাজ্য সড়কে হানাদারদের নিয়ে চিন্তিত প্রশাসন। নতুন হানাদার একদল মৌমাছি।

    জাতীয় সড়কে পাহাড়ীয়া মৌমাছির হানায় দুর্ঘটনার শিকার হচ্ছেন সাধারন পথচারী থেকে দিঘায় আসা পর্যটকেরা (East Medinipur News)। নন্দকুমার দিঘা জাতীয় সড়কের পাশে চাউলখোলা এলাকায় সাপুয়া বাসস্ট্যাণ্ডের মাঝামাঝি জায়গায় একটি পাহাড়ীয়া মৌমাছির দল বাসা হয়েছে। সেই বাসায় যখন কেউ ঢিল মারছে বা আঘাত করছে তখন তারা জাতীয় সড়কের উপরে চলে এসে পথচারীদের আক্রমন করছে। জাতীয় সড়কে সাধারন পথযাত্রী সাইকেল, মোটরবাইক চালক আক্রমণের শিকার হচ্ছে। মৌমাছির আক্রমণে এ পর্যন্ত গুরুতর আহত হয়েছে একশোর বেশি মানুষ। শেষ চার পাঁচ দিন ধরে এই ধরনের ঘটনা ঘটছে। স্থানীয় মানুষ থেকে পথচারী এই মৌমাছির দলের আক্রমণে আতঙ্কিত।

    রামনগর পঞ্চায়েত সমিতির সহ সভাপতি অরুন দাসকে জানালে তিনি বলেন, এই  বাসা যাতে নষ্ট না করে অন্য ব্যবস্থা করা যায় তার জন্য সংশ্লিষ্ট পঞ্চায়েতকে ব্যবস্থা গ্রহনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। স্থানীয় সটিলাপুর গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান বিনাপানী জানাকে জানালে তিনি বলেন, "জাতীয় সড়কে হানাদার মৌমাছির দলের আক্রমণে আক্রান্ত হয়েছে অনেক মানুষ। ব্লক প্রশাসন থেকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে জাতীয় সড়কের পাশে থাকা মৌচাক না ভেঙে অন্য কোনো ব্যবস্থা করা যায় কি করে,  তা গুরুত্ব সহকারে দেখা হচ্ছে। এলাকায় মোতায়ন করে নজরদারির ব্যবস্থা করা হবে। যাতে কেউ ঢিল ছুঁড়ে বা অন্যকোনো ভাবে মৌমাছির দলকে উত্তক্ত্য না করে সেই ব্যবস্থা করা হবে।"

    Saikat Shee
    First published:

    Tags: East Medinipur

    পরবর্তী খবর