Home /News /local-18 /

East Medinipur News- হলদিয়ায় হনুমানের উপদ্রব, আক্রান্ত আট জন।

East Medinipur News- হলদিয়ায় হনুমানের উপদ্রব, আক্রান্ত আট জন।

হনুমান ধরতে আসা দল

হনুমান ধরতে আসা দল

হনুমান দলের মধ্যে একটি পাগল হনুমান রয়েছে। খুবলে নিচ্ছে মানুষের শরীরের মাংস। জখম করছে মানুষজনকে।

  • Share this:

    #হলদিয়া: একদল হনুমানের উপদ্রবে অতিষ্ঠ সাধারন মানুষ। মুহূর্তের মধ্যে খেয়ে সাফ করছে বাগানের সবজি। ক্ষেতের ফসল। এমনকি তাড়া করছে মানুষজনকেও। হনুমান তাড়াতে গিয়ে আক্রান্ত হচ্ছে মানুষজন। হলদিয়া মহকুমায় সুতাহাটা ব্লকের একটি গ্রামে হনুমানের উপদ্রবে নাজেহাল মানুষ (East Medinipur News)। আবার ওই হনুমান দলটির মধ্যে একটি পাগল হনুমান রয়েছে। ওই পাগল হনুমান এখনো পর্যন্ত আট জন মানুষের শরীর থেকে খুবলে নিয়েছে মাংস। ওই পাগল হনুমানটি ধরতে এসে নাজেহাল অবস্থা বন দফতরের।

    সুতাহাটা ব্লকের এড়িয়াখালি গ্রামে বেশ কিছুদিন ধরে হনুমানের উপদ্রবে অতিষ্ঠ গ্রামবাসী (East Medinipur News)। শীতের মরশুমে নষ্ট করছে ফসলের ক্ষেত। একদল হনুমান মুহূর্তের মধ্যে খেয়ে সাফ করছে সবজি বাগান। সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত এলাকায় তাণ্ডব চালাচ্ছে একদল হনুমান। সবজি বাঁচাতে গিয়ে হনুমানের তাড়া খেয়ে আক্রান্ত হচ্ছে মানুষজন। হনুমান তাড়াতে গেলে উল্টে তেড়ে আসে হনুমানের দল। এই হনুমান দলের মধ্যে একটি হনুমান পাগল হয়েছে। খুবলে নিচ্ছে মানুষের শরীরের মাংস। জখম করছে মানুষজনকে। এড়িয়াখালি গ্ৰামে একটি পাগল হনুমান তিন জন মহিলা, পাঁচ জন পুরুষ, মোট আট জন মানুষকে কামড় দিয়ে মাংস তুলে নেয়। হনুমানের আতঙ্কে চোখে ঘুম উড়েছে এলাকাবাসীর। হনুমান ধরার জন্য ডাক পড়েছে বন দফতর-এর। হলদিয়ার দুটি স্বেচ্ছাসেবী সংস্থা ও গ্রামবাসীদের সহায়তায় দিনভর হনুমান ধরার কাজে যুক্ত থাকার পরেও ব্যর্থ হয় বন দফতর এর কর্মীরা। ১৪ জানুয়ারি শুক্রবার। হলদিয়া বিজ্ঞান মঞ্চের সদস্য ও এড়িয়াখালি গ্রামের গ্রামবাসীরা বনদফতর কর্মীদের পাগল হনুমানটিকে ধরতে সাহায্য করে (East Medinipur News)। কিন্তু দিনভর বহু চেষ্টার পরেও ঔ পাগল হনুমানকে খাঁচা বন্দি করতে পারল না বনদফতর এর কর্মীরা। তবে তারা খালি হাতে ফিরে যায়নি। এদিন তারা পাগল হনুমানটিকে না হলেও, এলাকায় উপদ্রব চালানো হনুমান দলটির একটি হনুমান ধরে নিয়ে যায়। পাগল হনুমান না ধরা পড়ায় আতঙ্কের মধ্যে রয়েছে সুতাহাটা ব্লকের এড়িয়াখালি গ্রামের মানুষজনেরা। বনদফতর সূত্রে জানা যায়, পাগল হনুমানের খোঁজে শনিবার ১৫ জানুয়ারি আবারও গ্রামে আসবে বনদফতরের কর্মীরা। পাগল হনুমানটিকে ধরে, সুস্থ করে পুনরায় বনে ছেড়ে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন বনদফতরের এক কর্মী।

    Saikat Shee

    Published by:Samarpita Banerjee
    First published:

    Tags: East Medinipur, Haldia, Monkeys

    পরবর্তী খবর