• Home
  • »
  • News
  • »
  • local-18
  • »
  • East Medinipur- দুর্ঘটনা এড়াতে চালকদের দৃষ্টিশক্তির পরীক্ষা করল পূর্ব মেদিনীপুর জেলা পুলিশ। 

East Medinipur- দুর্ঘটনা এড়াতে চালকদের দৃষ্টিশক্তির পরীক্ষা করল পূর্ব মেদিনীপুর জেলা পুলিশ। 

Sp office Purba Medinipur

Sp office Purba Medinipur

জেলা পুলিশ এবার পথ নিরাপত্তা নিয়ে বিশেষ পন্থা অবলম্বন করল। জেলার বিভিন্ন জাতীয় সড়ক ও রাজ্য সড়কে দুর্ঘটনা এড়াতে চালকদের চক্ষু ?

  • Share this:

    দুর্ঘটনা এড়াতে চালকদের দৃষ্টিশক্তির পরীক্ষা করল জেলা পুলিশ।

    তমলুক: প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনার কবলে পড়ছে গাড়ি। মৃত্যু হচ্ছে মানুষের। পথ নিরাপত্তা নিয়ে চিন্তিত জেলা পুলিশ। জেলা পুলিশ এবার পথ নিরাপত্তা নিয়ে বিশেষ পন্থা অবলম্বন করল। জেলার বিভিন্ন জাতীয় সড়ক ও রাজ্য সড়কে দুর্ঘটনা এড়াতে, চালকদের চক্ষু পরীক্ষা শিবির আয়োজন করল পূর্ব মেদিনীপুর জেলা পুলিশ।  দুই মাস ধরে পূর্ব মেদিনীপুর জেলা পুলিশের উদ্যোগে চালু থাকবে পথ নিরাপত্তা সচেতনতা বিষয়ক নানা অনুষ্ঠান বা রোড সেফটি অ্যায়ারনেস প্রোগ্রাম। এই রোড সেফটি অ্যায়ারনেস প্রোগ্রামের শুরু হল এক ডিসেম্বর থেকে। বুধবার পূর্ব মেদিনীপুরের সোনাপেত্যা টোলপ্লাজার কাছে ৪১ নম্বর জাতীয় সড়কের পাশে জেলা পুলিশের উদ্যোগে পথনিরাপত্তা বিষয়ক বিশেষ সচেতনতার কর্মসূচী গ্রহন করা হল। প্রতিদিনই রাস্তাঘাটে বিভিন্নভাবে পথদুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় পথচারী থেকে সাইকেল আরোহী ও বাইক আরোহী। ট্রাফিক আইন না মেনে গাড়ি চালাতে গিয়ে প্রাণ বলি যায় প্রতিনিয়ত। পূর্ব মেদিনীপুর জেলা পুলিশ মানুষকে সচেতনতার জন্য, পথে কড়া ব্যবস্থা গ্রহণের পরিকল্পনা নিচ্ছে। বাইক চালকদের জন্য যেমন হেলমেট পরা বাধ্যতামূলক যেমন থাকবে, তেমনি চারচাকার ক্ষেত্রে সিটবেল্টও বাধ্যতামূলক। বড়গাড়ি চালকদের ক্ষেত্রে মদ্যপান না করে চালানোর জন্য অনুরোধ করা হয়। দুমাস ধরে চলবে জেলার বিভিন্ন জাতীয় সড়কগুলিতে পুলিশি নজরদারী। দুর্ঘটনা এড়াতে, জেলা পুলিশ বিশেষ কড়া নিয়মনীতি গ্রহন করবে, বুধবার এমনটাই জানালেন জেলার পুলিশ সুপার কে. অমরনাথ। এদিনের পথনিরাপত্তার কর্মসূচীর প্রথমদিনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে গাড়িচালকদের চোখের পরীক্ষাও করাহয়। এদিন ৫০ জন গাড়িচালকের চক্ষু পরীক্ষা করা হয়। প্রসঙ্গত, পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় তিনটি জাতীয় সড়ক ও দশটি ১০ টি রাজ্য সড়ক রয়েছে। একদিকে হলদিয়া শিল্পাঞ্চল, অন্যদিকে দিঘা সহ অন্যান্য পর্যটন কেন্দ্র রয়েছে। ফলে রাস্তাটিতে গাড়ির চাপ মারাত্মক। আর প্রতিনিয়ত দুর্ঘটনার কবলে পড়ছে গাড়ি থেকে সাধারণ মানুষ। দুর্ঘটনার কারণ হিসেবে বারবার উঠে এসেছে ট্রাফিক আইন না মেনে গাড়ি চালানো। ট্রাফিক আইন মেনে চালকদের গাড়ি চালানো ও ট্রাফিক আইন মেনে সাধারণ মানুষের রাস্তা পারাপার অনেকটাই কমিয়ে দিতে পারে দুর্ঘটনা। ট্রাফিক আইন না মেনে গাড়ি চালালে, পুলিশ প্রশাসন কড়া ব্যবস্থা নেবে। এমনকি কোনো কোনো ক্ষেত্রে চালকের লাইসেন্স বাতিল হবে বলেও জানানো হয় এই অনুষ্ঠানে।
    Published by:Samarpita Banerjee
    First published: