Home /News /local-18 /

East Medinipur News- জেলা স্বাস্থ্য দফতরে ভুয়ো নিয়োগপত্র কাণ্ডে এক ব্যক্তিকে কোর্টে তোলা হল।

East Medinipur News- জেলা স্বাস্থ্য দফতরে ভুয়ো নিয়োগপত্র কাণ্ডে এক ব্যক্তিকে কোর্টে তোলা হল।

জেলা আদালত

জেলা আদালত

তমলুকে জেলা স্বাস্থ্য দফতরে ভুয়ো নিয়োগপত্র নিয়ে হৈ চৈ পড়ে যায়।

  • Share this:

    #তমলুক: তমলুকে জেলা স্বাস্থ্য দফতরে ভুয়ো নিয়োগপত্র নিয়ে হৈ চৈ পড়ে যায়। এবার ভুয়া নিয়োগপত্র কান্ডে এক ব্যক্তিকে এদিন তমলুকে জেলা আদালতে তোলা হয় (East Medinipur News)। পূর্ব মেদিনীপুর জেলা স্বাস্থ্য দফতরে চুক্তি ভিত্তিক গ্রুপ ডি এর নিয়োগপত্র নিয়ে চারজন চাকরিপ্রার্থী হাজির হয়। মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক নিয়োগপত্র দেখে তৎক্ষনাতই চারজনকে পুলিশের হাতে তুলে দেয়। এদিন ঐ নিয়োগপত্র কাণ্ডে জড়িতএক ব্যক্তিকে কোর্টে তোলা হয়।

    ১৩ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার, পূর্ব মেদিনীপুর জেলার স্বাস্থ্য দফতরে গ্রুপ ডি পদে ভুয়ো নিয়োগপত্র নিয়ে চাকুরীতে যোগদান করার জন্য তিনজন মহিলা এবং একজন যুবক জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকের (C.M.O.H) অফিসে আসে। মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক তাদের নিয়োগপত্র দেখে বুঝতে পারেন এই নিয়োগ পত্র গুলি ভুয়ো (fake and false)। চার জনেরই নিয়োগপত্রগুলি দেখার পর মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকের (C.M.O.H) সন্দেহ হয়। পূর্ব মেদিনীপুর জেলা মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক ডাক্তার বিভাস রায় তৎক্ষণাৎ রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরে ফোন করেন এবং জানেন এদের নামে কোন নিয়োগপত্র দেওয়া হয়নি। জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক তমলুক থানায় খবর দেন (East Medinipur News)। তমলুক থানার পুলিশ ভুয়ো নিয়োগপত্র নিয়ে আসা শ্রেয়সী দাস, শ্রাবন্তী জানা সামন্ত, মৌসুমী দাস অধিকারী ও অমলেশ করণ চারজনকে থানায় নিয়ে যায় (East Medinipur News)। প্রথম তিনজনের বাড়ি মেচেদা এবং অমলেশ করনের বাড়ি নন্দীগ্রামের শ্রীপুর এলাকায়। চারজনকেই নোটিশ দিয়ে থানা থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়। কিন্তু তাদের সঙ্গে আসা মৌসুমী দাস অধিকারীর স্বামী সমীর অধিকারীকে এদিন কোর্টে তোলা হয়। ভুয়ো নিয়োগপত্র কাণ্ডে অভিযুক্ত সমীর অধিকারী। তমলুক থানার পুলিশ নিয়োগ কাণ্ডের তদন্ত শুরু করেছে। এর পেছনে আরও কোনো চক্র কাজ করছে কিনা তাও তদন্ত করে দেখা হচ্ছে বলে জানা যায় তমলুক থানা পুলিশ সূত্রে। Saikat Shee
    Published by:Samarpita Banerjee
    First published:

    Tags: East Medinipur, Tamluk

    পরবর্তী খবর