Home /News /local-18 /
East Bardhaman News- ইউক্রেনে আটকে কালনার একই পরিবারের দুই পড়ুয়া, চিন্তায় পরিবার 

East Bardhaman News- ইউক্রেনে আটকে কালনার একই পরিবারের দুই পড়ুয়া, চিন্তায় পরিবার 

ইউক্রেনে আটকে পূর্ব বর্ধমান জেলার কালনার মুক্তারপুর এলাকার একই পরিবারের দুই পড়ুয়া

  • Share this:

    #পূর্ব বর্ধমান : একের পর এক খারাপ খবর আসছে ইউক্রেন থেকে। আক্রমণ প্রতি আক্রমণে ইউক্রেনের আকাশ ধোয়াচ্ছন্ন। ভয়াবহ চেহারা রাজধানী কিয়েভের। বিস্ফোরণের শব্দে তটস্থ আমজনতা। বসে নেই ইউক্রেনও। রাশিয়ার আঘাতের জবাবে পাল্টা আক্রমণে একাধিক রাশিয়ান যুদ্ধবিমান ও ট্যাঙ্ক ধ্বংস করেছে ইউক্রেন সেনা। ভারতীয় ছাত্রেদের অনেকেই আটকে আছেন ইউক্রেনে। এই বাংলা থেকেও পড়াশোনা করতে অনেকেই ইউক্রেনে গিয়েছিলেন। তাঁদের অনেকেই ইউক্রেনে আটকে রয়েছেন বর্তমানে। যার জেরে চরম উৎকন্ঠায় দিন কাটাচ্ছেন পরিবারের লোকজন। জানা গিয়েছে, ইউক্রেনে আটকে পূর্ব বর্ধমান জেলার কালনার মুক্তারপুর এলাকার একই পরিবারের দুই পড়ুয়া (East Bardhaman News)। কম্পিউটার ডিপ্লোমা করতে ইউক্রেনে গিয়ে বর্তমান যুদ্ধ পরিস্থিতিতে আটকে আছেন বলে তাদের পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে। পরিবারের সদস্যরা এদিন তাদের উদ্বেগের কথা জানান সংবাদ মাধ্যমকে।

    বিকাশ হালদার ও বিভাষ হালদার সম্পর্কে দুই ভাই। তাদের পরিবারের এক সদস্য বলেন, বৃহস্পতিবার দুই ভাই হোস্টেল ছেড়ে ভারতীয় দূতাবাসে চলে এসেছে। তাদের সঙ্গে অনলাইনে কথাও হয়েছে। বিভাষ ও বিকাশ দুজনেই জানিয়েছেন, ইউক্রেনের পরিস্থিতি যথেষ্ট উদ্বেগজনক। ইউক্রেন থেকে বিভাষ পরিবারকে জানিয়েছে, শুকনো খাবার খেয়েই এখন তারা আছেন। যতো দ্রুত সম্ভব ভারতে ফিরে আসার অপেক্ষা করছেন। তাঁদের পরিবারের সদস্যরাও দিনরাত প্রার্থনা করছেন যাতে ঘরের ছেলে তাড়াতাড়ি ঘরে ফিরে আসে। (East Bardhaman News)

    সব মিলিয়ে ভয়াবহ পরিস্থিতির সম্মুখীন ইউক্রেনবাসী। এরই মধ্যে উদ্বেগ বাড়ছে ইউক্রেনে বসবাসকারী দেশ বিদেশের মানুষের পরিবারের সদস্যদের (East Bardhaman News)। উদ্বেগের মধ্যে আছেন কালনার মুক্তারপুর এলাকার হালদার পরিবার। ইতিমধ্যেই ভারত সরকার ইউক্রেনে থাকা ভারতীয়দের দেশে ফিরিয়ে আনতে তৎপর হয়েছে। প্রায় ২০ হাজার ভারতীয় এই মুহূর্তে ইউক্রেনে রয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। সেখানকার ভারতীয় দূতাবাস সকলকে নিরাপদে ফেরত পাঠাতে প্রক্রিয়া শুরু করেছে বলেও খবর।

    Malobika Biswas
    First published:

    Tags: Bardhaman news, East Bardhaman, Russia Ukraine Crisis

    পরবর্তী খবর