Home /News /local-18 /
East Bardhaman News: রাজস্থানের ফালুদা এবার মন কেড়েছে বর্ধমানবাসীর, হচ্ছে দেদার বিক্রি

East Bardhaman News: রাজস্থানের ফালুদা এবার মন কেড়েছে বর্ধমানবাসীর, হচ্ছে দেদার বিক্রি

ফালুদা

ফালুদা বানাচ্ছেন বিক্রেতা

রাজস্থানী স্বাদের ফালুদা পাওয়া যাচ্ছে পূর্ব বর্ধমানে। শহরের পুলিশ লাইনের অফিসার্স কলোনীর কালী মন্দিরের ঠিক পাশেই রয়েছে লোকেশের ফালুদার স্টল

  • Share this:

    #পূর্ব বর্ধমান: সুদূর রাজস্থান থেকে সোজা বর্ধমান শহরে হাজির লোকেশ। ব্যবসা করতে ফালুদার গাড়ি নিয়ে হাজির লোকেশ, তার দাদা ও এক ভাই। শহরের নির্দিষ্ট কয়েকটি জায়গায় তাঁরা স্টল নিয়ে বসেন ফালুদার(Faluda)। আজ আপনাদের নিয়ে যাব লোকেশের এই স্টলে।

    বর্ধমান শহরের পুলিশ লাইনের অফিসার্স কলোনীর কালী মন্দিরের ঠিক পাশেই রয়েছে লোকেশের এই স্টল যেখানে বিক্রি হচ্ছে ফালুদা (Faluda)। রাজস্থানী স্বাদের ফালুদা পাওয়া যাচ্ছে পূর্ব বর্ধমানে। লোকেশের ঝুলিতে রয়েছে হরেক স্বাদের ফালুদা। নরমাল ফালুদা যেমন রয়েছে তেমনই রয়েছে ম্যাংগো ফালুদা, চকোলেট ফালুদা, পেস্তা ফালুদা, রাবড়ি ফালুদা। তালিকায় রয়েছে আরও অনেক আইটেম। ৫০ টাকা থেকে শুরু করে ১০০ টাকা পর্যন্ত দাম রয়েছে ফালুদার। দুপুর ১ টা থেকে রাত ১১ টা পর্যন্ত লোকেশের ফালুদার স্টলে ভিড় থাকে চোখে পড়ার মত।

    এই তীব্র দাবদাহে প্রাণ ওষ্ঠাগত সকলেরই। যদিও বৃষ্টি কিছুটা স্বস্তি দিয়েছে মানুষকে। তবে রাস্তায় বেরিয়ে ঠান্ডা পানীয়তে গলা ভেজানো চাই। আর সেই তালিকায় যদি থাকে ফালুদা, তাহলে তো কোনো কথাই নেই। কারণ শুধু সাময়িক তৃপ্তি দেওয়া নয়, ফালুদায় যে যে উপকরণ থাকে তা আপনার চটজলদি পেট ভরিয়েও দিতে পারে। কারণ এতে থাকে সিমুই, ড্রাই ফ্রুট, আইসক্রিম কিংবা রাবড়ির টপিং।

    ফালুদা (Faluda) হল এমন একটি লোভনীয় পানীয়, যেটা একগ্লাস পান করে তৃষ্ণা মেটে না। গ্লাসের পর গ্লাস পান করতে ইচ্ছে করে। ইতিহাস বলে, ইরান বা পারস্য সম্রাট নাদির শাহের হাত ধরে ভারতে প্রবেশ করেছিল এই পানীয়। তবে মুঘল সম্রাট জাহাঙ্গীরও নাকি এই পানীয় খুব পছন্দ করতেন। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে এই পানীয় অনেক রূপ পরিবর্তন করেছে। ফলে আদতে এটি কোথাকার, সেটা এখন বলা মুশকিল। যদিও এই ফালুদা নিয়ে নানা জনের নানা মত। ফালুদা দক্ষিণ এশিয়ার খুবই জনপ্রিয় একটি খাবার। তবে এখন ফালুদা জনপ্রিয় পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জায়গায়তেও। আর একই ভাবে জনপ্রিয় হয়েছে বর্ধমান শহরের লোকেশের ফালুদা।

    Malobika Biswas

    First published:

    Tags: East Bardhaman

    পরবর্তী খবর