Home /News /local-18 /
Purba Bardhaman: বন্ধ পূর্ব বর্ধমানের বেশিরভাগ মেলা, কোন কোন মেলা হবে এই বছর 

Purba Bardhaman: বন্ধ পূর্ব বর্ধমানের বেশিরভাগ মেলা, কোন কোন মেলা হবে এই বছর 

আপতত হচ্ছে না বর্ধমানের কাঞ্চন উৎসব, গঙ্গা মেলা। স্থগিত আছে বর্ধমান উৎসব, বাঁকা উৎসবের 

  • Share this:

    পূর্ব বর্ধমান: করোনার (Covid-19) জেরে নির্দেশিকা জারি করেছে জেলা প্রশাসন। দোকান বাজার বন্ধ থাকার উপরও জারি রয়েছে নির্দেশিকা। এবার করোনার (Covid-19) জেরে বন্ধ জেলার বেশ কিছু মেলা। তার মধ্যে রয়েছে, কাঞ্চন উৎসব, পৌষালী মেলা। এছাড়াও হল না কেতুগ্রামের গঙ্গা মেলা। এভাবেই জেলার একাধিক মেলা বন্ধ হল এবছর। আর এখনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি যে মেলা গুলির ক্ষেত্রে, বর্ধমান উৎসব, বাঁকা উৎসব। করোনার (Covid-19) বাড়বাড়ন্তে জেরে একাধিক মেলা বন্ধ থাকায় কার্যত মন খারাপ জেলার মেলা ও উৎসব আয়োজনকারীদের। তবে মেলার অনুমতি পাওয়ার পর জেলার মেলা আয়োজনকারীদের একাংশ ইতিমধ্যেই তোড়জোড় শুরু করে দিয়েছে। আবার অনেকে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন মেলা না করার। মোটের উপর জেলার অধিকাংশ মেলাই এ বছর বন্ধ থাকবে।

    ১৬-২৩ জানুয়ারী বর্ধমান টাউন হলে এবছর মাঘ উৎসবের আয়োজন করা হয়েছিল। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে নির্দিষ্ট দিনে এই মাঘ উৎসব আয়োজন করা যায় নি। অনুমতি পাওয়ার পর ফের ভাবনা চিন্তা শুরু করে দিয়েছেন মেলা কমিটি। তবে টাউন হল ফাঁকা পাওয়ার পরই নতুন করে মাঘ উৎসব হবে বলে জানা গিয়েছে। পাশাপাশি ২২-৩০ জানুয়ারী পর্যন্ত বর্ধমান পুরসভার উদ্যোগে বর্ধমান উৎসব হওয়ার কথা ছিল। করোনার জেরে ৫ জানুয়ারী তা স্থগিত ঘোষণা করা হয়। মেলা করার বিষয়টি নিয়ে তাঁরা আলোচনা করবেন তারপরই সিদ্ধান্ত ঘোষণা করা হবে বলে জানা যায় পুরসভার তরফে। এবছর ২ ফেব্রুয়ারী থেকে হওয়ার কথা ছিল কাঞ্চন উৎসব। তবে সেই উৎসব আপাতত স্থগিত রাখা হয়েছে।কাঞ্চন উৎসবের অন্যতম আকর্ষণ মুম্বাইয়ের অভিনেতা-অভিনেত্রী। করোনার জেরে তাঁরা কেউই আসতে পারবেন না এবছর। তাই বাতিল করা হয়েছে কাঞ্চন উৎসব। এদিকে, বিধান উৎসব হবে কি না তা এখনও ঠিক হয় নি। এনিয়ে আলোচনা করবে। ইতিমধ্যেই করোনার জেরে প্রশাসনের নির্দেশে বন্ধ পূর্ব বর্ধমান জেলার কেতুগ্রামের গঙ্গা মেলা । মেলার ছাড়পত্র দেওয়া হলেও চূড়ান্ত নির্দেশিকা এখনও এসেনি। যতক্ষণ না প্রশাসনের তরফে চূড়ান্ত নির্দেশিকা আসছে ততক্ষন পর্যন্ত মেলা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে, বর্ধমানের কৃষ্ণসায়র পার্কে ফুলমেলা হওয়ার কথা ছিল ১২ জানুয়ারী। করোনার জেরে স্থগিত করা হলেও নতুন নির্দেশিকা অনুসারে মেলা হবে আগামী ২৩ জানুয়ারী থেকে ৩১ জানুয়ারী। সমস্ত কোভিড বিধি মেনে ফুলমেলা করবেন বলে সিদ্ধান্ত কর্তৃপক্ষ এর। পৌষালী মেলা বন্ধ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মেলা কমিটি। ইংরেজির জানুয়ারী ও বাংলার পৌষ মাসের শুরুতেই জেলা জুড়ে প্রতি বছরই হয় মেলা। আনন্দে মেতে ওঠেন জেলাবাসী। তবে আনন্দের নদীতে ভাটা হয়ে এসেছে করোনা। এই অতিমারীর জেরে কার্যত বন্ধ জেলার একাধিক। ফলে সাধারণ মানুষের মন খারাপ তো বটেই। মন খারাপ মেলার ব্যবসায়ীদের।

    First published:

    Tags: Purba bardhaman

    পরবর্তী খবর