Home /News /local-18 /
Lakshmir Bhandar| Duare sarkar: লক্ষ্মীর ভান্ডারের ফর্ম বিলি করছেন স্বয়ং মা লক্ষ্মী ! দেখতে ভিড় মানুষের

Lakshmir Bhandar| Duare sarkar: লক্ষ্মীর ভান্ডারের ফর্ম বিলি করছেন স্বয়ং মা লক্ষ্মী ! দেখতে ভিড় মানুষের

photo source local 18

photo source local 18

Lakshmir Bhandar| Duare sarkar: 'মা লক্ষ্মী' মহিলাদের হাতে দিলেন লক্ষীর ভান্ডারের ফর্ম। আপ্লুত ধাত্রীগ্রামের বাসিন্দারা।

  • Share this:

    #পূর্ব বর্ধমান: 'মা লক্ষ্মী’ বিলি করলেন লক্ষ্মীর ভাণ্ডারের (Lakshmir Bhandar) ফর্ম। আবার জমাও দিলেন। শুনে অবাক লাগলেও এটাই সত্যি। কালনার (Kalna) ধাত্রীগ্রাম বিদ্যালয়ে দুয়ারে সরকারের ক্যাম্পে দেখা মিলল দেবী লক্ষ্মীর। লক্ষ্মীকে (Lakshmir Bhandar)  দেখে ভিড় জমান সরকারি বিভিন্ন প্রকল্পের সুবিধা নিতে আসা মানুষজন। এছাড়াও গ্রামের মানুষরাও দলে দলে এসে ভিড় করেন লক্ষ্মীকে চাক্ষুষ করতে। লক্ষ্মীর হাত থেকে ফর্ম নিতে লাইন দিয়েছিলেন দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে আসা মহিলারা।

    এদিন মা লক্ষ্মীর সাজে সেজে ক্যাম্পে  (Duare Sarkar) আসে মৌসুমী অধিকারী নামে এক গৃহবধূ। পেশায় তিনি শিল্পী। পঞ্চায়েত সদস্যদের নির্দেশ মত লক্ষ্মীর ভান্ডারের ফর্ম হাতে ক্যাম্পে আসেন মৌসুমী। ক্যাম্পে ঢুকতেই তাঁকে ঢাক বাজিয়ে বরণ করে নেওয়া হয়। এরপর লক্ষ্মীরূপী লক্ষ্মীর ভান্ডারের ফর্ম নিতে আসা মহিলাদের হাতে তুলে দেন ফর্ম। ফর্ম ফিলাপ করা থেকে শুরু করে জমা দেওয়া পর্যন্ত মহিলাদের সাহায্য করলেন তিনি। যা নিঃসন্দেহে ক্যাম্পে থাকা মহিলাদের আকর্ষণ করে। পঞ্চায়েতের এইরকম অভিনব উদ্যোগের প্রশংসা করেছেন ধাত্রীগ্রামের মানুষরা।

    লক্ষ্মীরূপী মৌসুমী অধিকারী বলেন, এরকম অভিনব কাজ করতে তাঁর দারুন লেগছে। সাধারণ মানুষকে এভাবে সাহায্য করতে পেরে তিনি ধন্য। কিরকম অভিনব কাজ আগে তিনি কখনও করেনি।

    এদিন লাইনে থাকা মহিলারা জানান, স্বয়ং মা লক্ষ্মী (Lakshmir Bhandar)  ফর্ম হাতে নিয়ে আসায় একটু অবাক হয়েছিলাম। পরে জানতে পারি শান্তিপুরের মৌসুমী অধিকারী নামের ওই গৃহবধূ এদিন ‘লক্ষ্মী’ সাজে এসে সহযোগিতা করেছেন আমাদের।

    অন্যদিকে, ধাত্রীগ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান সৌমিত্র গুপ্ত বলেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের এক অভিনব উদ্যোগ লক্ষ্মীর ভান্ডার। অভিনব উদ্যোগ কে আরও আকর্ষণীয় করতে স্বয়ং মা লক্ষ্মীকে আমরা শিবিরে এনেছি। এভাবেই লক্ষ্মীর ভান্ডার প্রকল্পকে চমকদার করার চেষ্টা করা হয়েছে। শুধুই সেজেগুজে লক্ষ্মী শিবিরে এসেছে তা নয়। লক্ষ্মীরূপী ওই গৃহবধূ সবরকম সাহায্য করেছে স্থানীয় মহিলাদের।

    এমনিতেই সাধারণের মধ্যে সাড়া ফেলে দিয়েছে লক্ষীর ভান্ডার (Lakshmir Bhandar)   প্রকল্প। মহিলারা একপ্রকার ঘরের কাজ ফেলেই সকাল সন্ধ্যা এক করে দুয়ারে সরকার শিবিরে লাইন দিচ্ছেন। আর এরই মধ্যে এরকম অভিনব উদ্যোগ ঘিরে উৎসাহ উদ্দিপনা ছড়িয়েছে কালনার ধাত্রীগ্রামে।

     Malobika Biswas 

    Published by:Piya Banerjee
    First published:

    Tags: Bengal News, Duare Sarkar, East Bardhaman, Lakshmir bhandar, পূর্ব বর্ধমান

    পরবর্তী খবর