Home /News /local-18 /
East Bardhaman News- দীর্ঘক্ষন খোঁজাখুঁজি করার পর কচুরিপানা থেকে উদ্ধার ছোট্ট শিশুর দেহ।

East Bardhaman News- দীর্ঘক্ষন খোঁজাখুঁজি করার পর কচুরিপানা থেকে উদ্ধার ছোট্ট শিশুর দেহ।

পরিবারের সঙ্গে কালনার বিভিন্ন মঠ মন্দির ঘুরতে বেড়িয়ে প্রাণ গেল ছোট্ট প্রহ্লাদের। শোকে মূখ্যমান সন্তানহারা পরিবার। 

  • Share this:

    #পূর্ব বর্ধমান : পরিবারের সঙ্গে কালনার বিভিন্ন মঠ মন্দির ঘুরতে বেড়িয়ে প্রাণ গেল ছোট্ট ছেলের। জলে ডুবে বেঘোরে গেল প্রাণ (East Bardhaman News)। বীরভূমের লাভপুর চৌহাট্টা মোহদরি- দুই গ্রাম পঞ্চায়েত থেকে এদিন কালনায় ঘুরতে আসে একটি পরিবার। অম্বিকার কালনা দর্শন করে সন্ধ্যায় নবদ্বীপে ফেরার কথা ছিল। তবে তার আগেই ঘটে গেল ভয়ঙ্কর ঘটনা। বেড়াতে এসে কালনার ভবা পাগলা বাড়ি দর্শন করে বাড়ি ফেরার সময় হল বিপত্তি। ভবা পাগলার বাড়িতে থাকা পানা বেরনো একটি জলাশয়ের মধ্যে পড়ে গিয়ে মৃত্যু হল এক শিশুর। মৃত ওই শিশুর নাম প্রহ্লাদ মণ্ডল (৮)।ভবা পাগলার বাড়িদর্শন করে বাড়ি ফেরার সময় হঠাৎই ওই শিশুটি আগে বেরিয়ে মায়ের কাছে যেতে যায়, এরপর থেকেই নিখোঁজ ছিল শিশুটি। বিভিন্ন জায়গায় খোঁজার পর অবশেষে ভবা পাগলার বাড়িরই একটি গার্ডওয়াল বিহীন সদ্য পানা যুক্ত পুকুরের মধ্যে ওই শিশুর দেহ পাওয়া যায়। ঘটনার পর এলাকায় নেমেছে শোকের ছায়া।

    ওই শিশুটি সদ্য পানা যুক্ত ওই পুকুরটিকে ঘাস মনে করে ওইদিকে যেতে গিয়েই বিপত্তি ঘটেছে, এমনই মনে করছেন মৃত শিশুর পরিবারের লোকজনেরা। দেহ উদ্ধারের পর কালনা হাসপাতালে নিয়ে এলে চিকিৎসকরা শিশুটিকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। পরিবারের লোকেদের দাবি গার্ডওয়াল থাকলে এই বিপত্তি ঘটত না। প্রহ্লাদের সঙ্গে আসা এক ব্যক্তি জানান, মন্দির দেখার পর ও ওর দাদুকে বলল, মায়ের কাছে অটোতে গিয়ে বসছে। এরপর থেকেই ওর আর খোঁজ নেই। দীর্ঘক্ষণ পর মন্দির লাগোয়া একটি কচুরিপানা ভর্তি জলাশয়ে টর্চের আলো ফেলতেই দেখা যায় ভেসে রয়েছে একটি মাথা। পরে প্রহ্লাদকে ভাসতে দেখা যায় (East Bardhaman News)। এলাকাবাসী ও পরিবারের অনুমান, রাতের অন্ধকারে পানাভর্তি জলাশয়কে মাঠ ভেবে ভুল করেছিল সে। তাতেই এই বিপত্তি ঘটে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে ছুটে আসে কালনা থানার পুলিশ (East Bardhaman News)। জল থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করে হাসপাতাল নিয়ে যাওয়া হলে, চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন প্রহ্লাদকে। সন্তানহারা হয়ে কেঁদে চলেছেন প্রহ্লাদ মণ্ডলের মা। পরিবারের লোকজনও দিশাহারা। ওই শিশুর পরিবারের লোকজনের দাবি, এখানে একটা গার্ডওয়াল দেওয়া হোক। যাতে এমন বিপদ আর কারও না হয়। Malobika Biswas
    Published by:Samarpita Banerjee
    First published:

    Tags: Child death, East Bardhaman, Kalna

    পরবর্তী খবর