• Home
  • »
  • News
  • »
  • local-18
  • »
  • কানে ছিল হেডফোন, রেললাইনে বসে মগ্ন ছিল গেমে, মর্মান্তিকভাবে ট্রেনের ধাক্কায় মৃত্যু হল দুই স্কুল পড়ুয়ার

কানে ছিল হেডফোন, রেললাইনে বসে মগ্ন ছিল গেমে, মর্মান্তিকভাবে ট্রেনের ধাক্কায় মৃত্যু হল দুই স্কুল পড়ুয়ার

ট্রেনের ধাক্কায় মৃত্যু দুই যুবকের।

ট্রেনের ধাক্কায় মৃত্যু দুই যুবকের।

এই দুর্ঘটনা ঘটার সময় বিকট আওয়াজ শুনে স্থানীয় মানুষেরা এসে দেখে দু'জন স্কুল পড়ুয়ার ছিন্নভিন্ন মৃতদেহ পরে।

  • Share this:

    #উত্তর ২৪ পরগনা : ট্রেন লাইনের উপরে গেম খেলতে গিয়ে ট্রেনের ধাক্কায় মৃত্যু হল দুই যুবকের। তাদের দেহ উদ্ধার করতে পেরেছে জিআরপি,কিন্তু আরও একজনের দেহ এখনও খুঁজে পাওয়া যায়নি বলে জানাচ্ছেন স্থানীয়রা।

    ঘটনাটি ঘটেছে অশোকনগর মানিকনগর কাঞ্চন পল্লী এলাকায়। কানে হেডফোন গুঁজেবন্ধুরা মিলে মোবাইল গেমে ব্যস্ত ছিল। আর সেটাই ডেকে আনল মর্মান্তিক এই ঘটনা। ডাউন ঠাকুরনগর লোকালে এই ঘটনাটি ঘটেছে বলে পর্যন্ত জানা গেছে।

    যেখানে সব সময় রেল কর্তৃপক্ষের থেকে লাগাতার প্রচার করা হচ্ছে যখন লাইন পারাপার করবেন মোবাইল ফোন ব্যবহার না করা সেখানে এমন ঘটনা। ট্রেন লাইনের উপরে উঠে কেন গেম খেলছিল সে বিষয়ে তদন্ত শুরু করেছে বনগাঁ জিআরপি থানার পুলিশ।

    রেল লাইনের উপরে বসে মোবাইলে গেম খেলার কথা বলা হলেও স্থানীয়দের মতে কেউ নিজের চোখে দেখেনি আসলে তারা কি করছিল। প্রত্যক্ষদর্শীদের কথা অনুযায়ী মাঝে মধ্যেই এই লাইনে বসে অল্পবয়সী ছেলেরা মোবাইলে কিছু একটা করে, স্থানীয়দের ধারণা তারা গেম খেলে।

    এদিন এই দুর্ঘটনা ঘটার সময় বিকট আওয়াজ শুনে স্থানীয় মানুষেরা বেড়িয়ে দেখে দুজন স্কুল পড়ুয়ার ছিন্নভিন্ন মৃতদেহ পরে। প্রত্যক্ষদর্শীর কথায়, অশোকনগর থেকে শিয়ালদাগামী ট্রেনটি দীর্ঘক্ষণ হর্ন দেয়। কিন্তু, তাতেও তাদের হুঁশ ফেরেনি।

    আর সেটাই মর্মান্তিক পরিণতি ডেকে আনে। স্থানীয় কিছু মানুষের দাবি, এখানে তিনজন ছিল,একজনকে পাওয়া যায়নি রাতের অন্ধকারে। দুজনের নাম শৌভিক দাস ও শিভম দে।এই দুজনকেই উদ্ধার করেছে জিআরপি। একজনের স্কুলের ব্যাগ পাওয়া গেছে।

    দুজনের মধ্যে একজনের বাড়ি স্থানীয় মানিকনগর এবং অন্যজনের বাড়ি আশ্রাফাবাদ এলাকায়। এলাকায় বলে স্থানীয় সূত্রে জানা যায়।তবে সঠিক কি কারণে এই দুর্ঘটনা,সেই নিয়ে রেল পুলিশের তরফ থেকে এখনো কিছু জানানো হয়নি। এত অল্প বয়সে এমন মর্মান্তিক দুর্ঘটনায় শোকের ছায়া এলাকায়। রাতুল বন্দ্যোপাধ্যায়

    Published by:Piya Banerjee
    First published: