Home /News /local-18 /
Bangla News: হকার উচ্ছেদকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ইছাপুর স্টেশন চত্বরে, ঘটনাস্থলে বিশাল পুলিশবাহিনী

Bangla News: হকার উচ্ছেদকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ইছাপুর স্টেশন চত্বরে, ঘটনাস্থলে বিশাল পুলিশবাহিনী

হকার উচ্ছেদে রেল কর্তৃপক্ষ।

হকার উচ্ছেদে রেল কর্তৃপক্ষ।

Bangla News: এদিন রেল পুলিশ গ্যারেজ উচ্ছেদ করতে আসে। রেলের তরফে টেন্ডার জমা দেওয়ার শেষ তারিখ আগামী ৬ ডিসেম্বর। তার আগেই ওরা উচ্ছেদ করার চেষ্টা করেছিল। 

  • Share this:

    #উত্তর ২৪ পরগনা : করোনা মহামারীর কারণে কর্মহীন হয়ে পড়েছে বহু মানুষ। যার জেরে অনেকেই বেছে নিয়েছে ভুল পথ। বহুদিন বন্ধ থেকেছে রেল পরিষেবা (Rail)। বিভিন্ন রেলস্টেশনের পাশে অস্থায়ী গ্যারেজ রয়েছে তা সবারই জানা। কিন্তু তার মধ্যেও বহু গ্যারেজ অবৈধভাবে রেলের জায়গায় অবস্থান করেছে বলেও অভিযোগ।

    আর অবৈধভাবে রেলের জায়গায় বসবাসকারীদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিতে বরাবর প্রস্তুত রেল কর্তৃপক্ষ(hawker eviction)। এদিনও এমন এক ছবি ধরা পড়ল ক্যামেরায়। হকার উচ্ছেদকে ঘিরে এদিন ব্যাপক উত্তেজনা ছড়াল শিয়ালদহ মেইন শাখার ইছাপুর স্টেশন চত্বরে। জানা গিয়েছে, অবৈধভাবে দখলদার হিসেবে থাকা তিনটি সাইকেল গ্যারেজ উচ্ছেদের জন্য পূর্ব রেলের তরফে নোটিশ দেওয়া হয়েছিল আগেই।

    এদিন রেল পুলিশ ওই তিনটি দোকান উচ্ছেদের(hawker eviction) জন্য আসে। তাতে বাঁধা দেয় তৃণমূল কর্মীরা। এতে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ায় ইছাপুর স্টেশন চত্বরে। উত্তেজনা সৃষ্টি হওয়ায় ব্যারাকপুর কমিশনারেটের বিশাল পুলিশ বাহিনী ঘটনাস্থলে হাজির ছিল। যদিও রেল কর্তৃপক্ষের তরফে আগামী ৬ ডিসেম্বর পর্যন্ত সময়সীমা দেওয়া হয়েছে। স্থানীয় হকার রাজ ঠাকুর বলেন, তার সাইকেল গ্যারেজের জায়গা খালি করার জন্য রেল নোটিশ দিয়েছিল। এদিন রেল পুলিশ গ্যারেজ উচ্ছেদ করতে আসে।

    রেলের তরফে টেন্ডার জমা দেওয়ার শেষ তারিখ আগামী ৬ ডিসেম্বর। তার আগেই ওরা উচ্ছেদ করার চেষ্টা করেছিল। এই উচ্ছেদ প্রসঙ্গে উত্তর ২৪ পরগনা জেলার তৃণমূল যুব সাধারণ সম্পাদক ধীমান দাস বলেন, ওরা দখল করে বসে নেই। ওরা রীতিমতো রেলকে ভাড়া দেয়।

    রেলের টেন্ডার বেরিয়েছে। সেই টেন্ডার(hawker eviction) জমা দেওয়ার জন্য ওরা প্রস্তুতি নিয়েছে। তার পূর্বেই রেল কর্তৃপক্ষ উচ্ছেদের চেষ্টা করে। তৃণমূল কর্মীরা হকারদের পাশে দাঁড়িয়ে উচ্ছেদ রুখে দেয়। ধীমান বাবুর দাবি, ওরা রেলের নিয়ম মেনেই ব্যবসা করতে চায়। জোর করে উচ্ছেদ করা যাবে না। রিল এবং স্থানীয় নেতৃত্বে টানাপোড়েনে আগামী দিনে একই পর্যায়ে যায় তারই অপেক্ষায় ইছাপুর স্টেশন চত্বরে থাকা গ্যারেজ মালিকদের।

    রাতুল ব্যানার্জি

    Published by:Piya Banerjee
    First published:

    Tags: Bangla News, North 24 Parganas, West bengal

    পরবর্তী খবর