Home /News /local-18 /
করোনার কারণে ঘট পুজোতেই সীমাবদ্ধ ৩০০ বছরের গোবরডাঙ্গা রাজবাড়ির দুর্গাপুজো

করোনার কারণে ঘট পুজোতেই সীমাবদ্ধ ৩০০ বছরের গোবরডাঙ্গা রাজবাড়ির দুর্গাপুজো

গোবরডাঙ্গা রাজবাড়ী।

গোবরডাঙ্গা রাজবাড়ী।

বর্তমান পরিস্থিতির কারণে গত বছর থেকে ঘটের মাধ্যমে হচ্ছে দুর্গাপুজো(Durga Puja)

  • Share this:

    রাতুল ব্যানার্জি, উত্তর ২৪ পরগনা : ঐতিহ্যের শহর গোবরডাঙ্গা। দীর্ঘদিনের প্রাচীন পুজো হল গোবরডাঙ্গা রাজবাড়ির দুর্গাপুজো। কিন্তু করোনা(Corona) মহামারীর কারণে গত বছর থেকে রাজবাড়ীর পুজোর জৌলুস অনেকটাই কমে এসেছে। জাঁকজমক করে গত বছর থেকে হচ্ছেনা গোবরডাঙ্গা রাজবাড়ির (Gobordanga Rajbari) পূজো। বর্তমান পরিস্থিতির কারণে গত বছর থেকে ঘটের মাধ্যমে হচ্ছে দুর্গাপুজো(Durga Puja)।

    প্রসন্নময়ী মায়ের পুজো হয়ে আসছে উত্তর ২৪ পরগনা গোবরডাঙ্গার জমিদার বাড়িতে। প্রায় তিনশো বছরের পুরনো গোবরডাঙ্গা রাজবাড়ির দুর্গাপুজো। এই পূজাকে ঘিরে ছিল উন্মাদনা রাজবাড়ীতে। রাজবাড়ী সদস্যরাও দুর্গা মায়ের টানে এই সময় আসতেন রাজবাড়ীতে। সপরিবারে আনন্দ করতেন জমিদার বাড়ির পরিবার পরিজনেরা। করোনা(Corona) পরিস্থিতির জন্য সপরিবারে জমিদার বাড়ি আসছেন না আর কেউই। সেই কারণে দুর্গাপুজাও (Durga puja 2021) হচ্ছে না জমিদার বাড়ীতে। প্রসন্ন মায়ের মন্দিরে ঘট পুজোর মাধ্যমে পূজিত হচ্ছেন দেবী দুর্গা। জমিদার বাড়ি ঠাকুরদালানে হয় দুর্গাপূজা। একসময় মহালয়ার দিন প্রসন্নময়ী মায়ের মন্দিরে ঘরেতে পুজোর পর সেই ঘর ঠাকুরদালানে নিয়ে যাওয়া হতো পরিবারের সদস্যদের মাধ্যমে।

    তারপরই শুরু হত পুজো। এমনকি কামান দেগে পুজোর ঘোষণা করা হত বলে জানা যায় ইতিহাস ঘাঁটলে। জমিদার বাড়ীতে ষষ্ঠীর দিনে কালী মন্দির থেকে কলা বউ নিয়ে এসে মায়ের অস্ত্র দান করা এবং সন্ধ্যায় আরতি, অষ্টমী, নবমী, দশমী, নিয়ম করে শাস্ত্র মতে পুজো কিছুই হচ্ছে না এবার। শোনা যায় এই পুজো উপলক্ষ্যে সেই সময় মোষ বলির প্রচলন ছিল। পরে তা পাঠা বলিতে রূপান্তরিত হলে ও ১৯৯৭ সালে বলি দেওয়ার প্রথা বন্ধ হয়ে যায়। বিগত কয়েক বছর ধরে চাল, কুমড়োর বলি দিয়ে নিয়ম রক্ষা করা হয়। এক সময় এই জমিদার বাড়িতে থেকে গিয়েছেন কুইন এলিজাবেথ এর আত্মীয়রা এমনকি রবীন্দ্রনাথের দাদাও এসে ঘুরে গিয়েছেন এই জমিদার বাড়িতে।

    তবে গত বছর থেকে করোনার কারণে প্রসন্নময়ী কালীমন্দির এই হচ্ছে জমিদার বাড়ির দুর্গাপুজো(Durga Puja) সেখানেই এলাকার বহু মানুষকে খাওয়ানো থেকে শুরু করে সমস্ত কিছুই হচ্ছে করোনা নিয়ম-বিধি মেনে। স্থানীয় মানুষের কোথায় যেভাবে জাঁকজমক করে এই জমিদার বাড়ির পুজো গোবরডাঙ্গা বাসিরা উপভোগ করতেন তা গত দু\'বছর ধরে না হয় অনেকটাই মন খারাপ তাদের। তারা আশা রাখছেন হয়তো আগামী বছর থেকে আবারও জমিদার বাড়িতে হবে দুর্গাপূজা এবং অত্যন্ত আনন্দের সাথে উপভোগ করবে গোবরডাঙ্গাবাসীরা।

    Published by:Ananya Chakraborty
    First published:

    Tags: Durga Puja, North 24 Parganas, West bengal

    পরবর্তী খবর