Home /News /local-18 /
North 24 Parganas: প্রতারকদের 'যম' সাইবার সিকিউরিটি!

North 24 Parganas: প্রতারকদের 'যম' সাইবার সিকিউরিটি!

সাইবার সিকিউরিটি ওপর বিশেষ আলোচনা সভা

সাইবার সিকিউরিটি ওপর বিশেষ আলোচনা সভা

প্রতারকদের 'যম' সাইবার সিকিউরিটি! ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কাছে বিষয়টিকে গ্রহণযোগ্য করে তুলতে বিশেষ উদ্যোগ

  • Share this:

    রুদ্র নারায়ন রায়, উত্তর ২৪ পরগনা: ডিজিটাল জামানায় খুন, ডাকাতির থেকেও এখন বড় মাথা ব্যথা সাইবার জালিয়াতি। শুধু পুলিশের কাছে নয় আমজনতাও এখন সবচেয়ে বেশি ভুগছেন এই সাইবার ক্রাইম নিয়ে। ব্যাঙ্ক তো বটেই তথ্য প্রযুক্তি সংস্থা গুলিও এখন নিত্য নতুন পন্থা ব্যবহার করছে এর হাত থেকে বাঁচতে। আর সেটা করার জন্য চাই দক্ষতা। চাই হ্যাকিং নিয়ে পড়াশুনা ও গবেষনা। সে ব্যাপারে নতুন প্রজন্মের ব্যপক উৎসাহ লক্ষ্য করা যায়। এদিন নিউটাউনের নজরুল তীর্থে গোটা রাজ্য থেকে আড়াইশো ছেলে মেয়েদের নিয়ে আয়োজন করা হয় সাইবার সিকিউরিটি সংক্রান্ত এক বিশেষ সেমিনারে। উদ্যোক্তা রাজ্য সরকারের সাইবার সিকিউরিটি সেন্টার অফ এক্সিলেন্স এবং ইন্ডিয়ান স্কুল অফ এন্টি হ্যাকিং। এখানে ‘হ্যাকাথান-ওয়েস্ট বেঙ্গল সাইবার চ্যালেঞ্জ’ নামে একটি সাইবার প্রতিযোগিতাও করা হয়। সেই প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের পুরস্কৃত করা হয়। অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি ছিলেন রাজ্যের তথ্য প্রযুক্তি ও ইলেক্ট্রনিক্স দপ্তরের প্রধান সচিব তথা প্রক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার, রাজ্যের চিফ ইনফরমেশন সিকিউরিটি অফিসার এইচ কে কুসুমাকার, সঞ্জয়কুমার দাস, সন্দীপ সেনগুপ্ত প্রমুখ।প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমার বলেন, সাইবার সিকিউরিটির ওপর আমাদের জোর দিতে হবে। তরুন প্রজন্মের কাছে এটা অত্যন্ত আকর্ষনীয় বিষয়। চীন এ ব্যাপারে অনেক উন্নতি করেছে। আমাদের এগিয়ে যেতে হবে। এইচ কে কুসুমাকার বলেন, এই বিষয় নিয়ে দক্ষতা অর্জন করলে ভাল কেরিয়ার হতে পারে। আমার পরিচিত এক হ্যাকার আছে যিনি মাসে তিন লাখ টাকা বেতন পান। আমরা বিশ বছর পুলিশে চাকরি করেও অত টাকা বেতন পাইনা। পরিসংখ্যায়ন বলছে, ২০২০ সালে শুধু ভারতবর্ষেই ৫০ হাজার মামলা রেকর্ড হয়েছে বিভিন্ন সাইবার ক্রাইম থানায়। ন্যাশানাল ক্রাইম রেকর্ডস ব্যুরোর তথ্য অনুযায়ী ২০১৮ সালে সাইবার সিকিউরিটি সংক্রান্ত ঘটনা ছিল ২৭২৪৮ টি। ২০১৯ সালে সেটি বেড়ে হয় ৪৪৭৩৫টি। গতবছর সেটা ১১ শতাংশ বেড়ে হয় ৫০০৩৫ টি। গত দেড় দু বছরে লকডাউনে সাইবার জালিয়াতির সংখ্যা ব্যাপক হারে বেড়েছে বলে উদ্বিগ্ন সব মহল। সংস্থার উদ্যোগে এদিন সাইবার সিকিউরিটির ওপর কর্মশালার আয়োজন করা হয়েছিল। সংস্থার ডিরেক্টর সন্দীপ সেনগুপ্ত বলেন, যারা হ্যাকিং নিয়ে পড়াশুনো করছে তাদের জন্য আগামীদিনে ভাল জব সিকিউরিটি থাকছে। আজকের কর্মশালায় আইটিসির মত সংস্থার আধিকারিকরাও যোগ দিয়েছিলেন। এখান থেকে সার্টিফিকেট পাওয়া সেরা ছাত্রদের প্লেসমেন্টের ব্যবস্থা করা হবে বলেও জানানো হয়। (প্রতিবেদক - রুদ্র নারায়ন রায়)

    First published:

    Tags: Bidhannagar, Cyber Security, North 24 Parganas

    পরবর্তী খবর