• Home
  • »
  • News
  • »
  • local-18
  • »
  • আফগানিস্তানের কাবুলে কাজ করতে গিয়ে আটকে পড়েছে নদিয়ার যুবক

আফগানিস্তানের কাবুলে কাজ করতে গিয়ে আটকে পড়েছে নদিয়ার যুবক

সুদূর আফগানিস্তানের রেশ এসে পড়ল নদিয়ার তাহেরপুরে

সুদূর আফগানিস্তানের রেশ এসে পড়ল নদিয়ার তাহেরপুরে

সুদূর আফগানিস্তানের রেশ এসে পড়ল নদিয়ার তাহেরপুরে

  • Share this:

    মৈনাক দেবনাথ, নদিয়া: আফগানিস্থানে চলছে তালিবান রাজ। আফগানিস্তান থেকে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট মার্কিন সেনা সরিয়ে নেন। তারপর থেকেই তালিবান একে একে দখল করে নিয়েছে গোটা আফগানিস্তান। তালিবানের আক্রমণের কারণে আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট ছেড়েছেন নিজের দেশ। আফগান বাসিরা তালিবানের ভয়ে দেশ ছেড়ে প্রাণপণে বেরিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করছেন। এমনকি চলন্ত প্লেনের বাইরে ঝুলতে থাকা মানুষকেও প্লেন ওড়ার সময় পড়তে দেখা গিয়েছে! আফগানিস্তানে থাকা বিভিন্ন দেশের নাগরিকেরাও চেষ্টা করছেন নিজের দেশে ফেরার। কেউ সফল হলেও অনেকেই এখনও আটকে আছেন আফগানিস্থানে। আফগানিস্থানের রাজধানী কাবুলের মাটিতেও চলছে তালেবানি আক্রমণ।

    এবার সেই আতঙ্কের রেশ এসে পড়ল নদিয়ার তাহেরপুরে। তাহেরপুরের বাসিন্দা লালবাহাদুর কুন্ডু বেশ কিছুদিন আগে একজন হোটেল কর্মী হিসেবে কাজ করতে গিয়েছিলেন আফগানিস্তানের কাবুলে। তার পরিবার আর্থিকভাবে তেমন সচ্ছল নয়। ভালো রোজগারের আশাতেই মূলত তিনি নিজের দেশ ও পরিবার ছেড়ে পাড়ি দিয়েছিলেন সুদূর আফগানিস্তানের কাবুলে। বর্তমানে তালিবান গোষ্ঠী আফগানিস্তান দখল করে নিয়েছে। এবং সেই কারণে সমস্ত বিমান পরিষেবা বন্ধ থাকায় নিজের দেশে ফিরে আসতে পারেনি তাহেরপুরের বাসিন্দা। কর্মস্থল ছেড়ে গত তিন-চার দিন ধরে কাবুল বিমানবন্দরে আটকে রয়েছেন তিনি, বলে জানা গিয়েছে লালবাহাদুর কুন্ডুর পরিবার সূত্রে।

    বিমানের অভাবে তিনি দেশে ফিরতে পারছেন না। যার ফলে কয়েক দিন ধরে বিমানবন্দরে ধর্না দিয়ে পড়ে রয়েছেন তিনি, বলে বুধবার ফোনের মাধ্যমে তাঁর বাবাকে জানান লালবাহাদুর। ছেলের কাছ থেকে এই খবর পাওয়ার পর থেকে স্বাভাবিকভাবেই দুশ্চিন্তাগ্রস্ত অবস্থায় দিন কাটাচ্ছেন তাহেরপুরের বাসিন্দা লালবাহাদুরের পরিবারের সদস্যরা। তবে শুধুমাত্র ছেলের মনোবল অক্ষুন্ন রাখতে সবকিছু ঠিকঠাক হয়ে যাবে খুব শীঘ্রই তিনি দেশে ফিরে আসতে পারবেন বলে, এই দিন ফোনের মাধ্যমে ছেলেকে আশ্বাস দেন লালবাহাদুরের বাবা। কিন্তু এই মুহূর্তে অক্ষত ভাবে ছেলে ঘরে ফিরে না আসা পর্যন্ত চরম উৎকণ্ঠার মধ্যে রয়েছেন তারা।

    Published by:Ananya Chakraborty
    First published: