Home /News /local-18 /
Nadia News- শান্তিপুরে বসন্ত উৎসবের দ্বিতীয় দিনে অংশগ্রহণ করলেন তৃতীয় লিঙ্গের মানুষেরা

Nadia News- শান্তিপুরে বসন্ত উৎসবের দ্বিতীয় দিনে অংশগ্রহণ করলেন তৃতীয় লিঙ্গের মানুষেরা

বসন্ত উৎসবের দ্বিতীয় দিনে আবীর খেলায় মাতলেন তৃতীয় লিঙ্গের মানুষেরা

বসন্ত উৎসবের দ্বিতীয় দিনে আবীর খেলায় মাতলেন তৃতীয় লিঙ্গের মানুষেরা

বসন্ত উৎসবে উপস্থিত হয়ে খুশি তৃতীয় লিঙ্গের মানুষেরা

  • Share this:

    #শান্তিপুর: কাল ছিল দোল পূর্ণিমা, বাঙালির বসন্ত উৎসবের প্রথম দিন। এদিন সমস্ত বাঙালি মেতে ওঠে রঙ ও আবির খেলায়। সমস্ত জাতি ধর্ম বর্ণ ভেদাভেদ ভুলে এদিন সমস্ত মানুষ মেতে ওঠেন বিভিন্ন রঙের খেলায়। কালকের বসন্ত উৎসবে কচিকাঁচা থেকে শুরু করে বাদ যায়নি পুলিশ কর্মীরাও। নিজেদের কাজের মাঝেই বসন্ত উৎসবে সামিল হতে দেখা গেল পুলিশকর্মীদের। সর্বোপরি বসন্ত উৎসবের প্রথম দিনে বাঙালিরা মেতেছিল নানা রঙের আবিরে।

    শান্তিপুরের দ্বিতীয় দিনের বসন্ত উৎসবে অংশগ্রহণ করলেন তৃতীয় লিঙ্গের মানুষেরা (Nadia News)। দ্বিতীয় দিনের বসন্ত উৎসবে মাতোয়ারা কয়েক হাজার মানুষ, কচিকাঁচা থেকে শুরু করে আট থেকে আশি সবাই মেতে উঠলেন এই দ্বিতীয় দিনের বসন্ত উৎসবে। শান্তিপুর তেতুলতলার অরিয়ান্টাল স্কুলের মাঠে মা দুর্গা ওয়েলফেয়ার সোসাইটির পক্ষ থেকে বসন্ত উৎসবের আয়োজন করা হয়। সেখানেই কাতারে কাতারে মানুষের ভিড়, যেখানে লক্ষ্য করা গেল আট থেকে আশি সবাই বিভিন্ন রঙের আবিরের ছোঁয়ায় মেতে উঠলেন এই বসন্ত উৎসবে। এই বসন্ত উৎসবে অংশগ্রহণ করতে দেখা গেল তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদেরকে। তারাও বিভিন্ন রঙের আবির এর ছোঁয়ায় মেতে উঠলেন সাধারণ মানুষের সাথে (Nadia News)। বসন্ত উৎসবে উপস্থিত হয়ে যথেষ্টই খুশি, জানালেন তৃতীয় লিঙ্গের মানুষেরা। তারা জানান, "বসন্ত উৎসব মানেই এক অন্য অনুভূতি। জাতি ভেদাভেদ ভুলে আমরা সকলেই একত্রিত হয়ে আজকের এই বসন্ত উৎসব পালন করছি। যদিও অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে মাঠের চারপাশে করা হয়েছিল পুলিশ কর্মী মোতায়েন।"

    বসন্ত উৎসব বাঙালির শ্রেষ্ঠ। এই উৎসবে মানুষ সমস্ত জাতি ভেদাভেদ ভুলে মেতে ওঠেন আবির ও রঙ খেলায়। এই বসন্ত উৎসবে বাদ যায়নি তৃতীয় লিঙ্গের মানুষেরাও। বসন্ত উৎসবের দ্বিতীয় দিনে শান্তিপুরের বসন্ত উৎসবে, রঙ খেলায় সামিল হতে দেখা গেল তাদেরকেও। সর্বোপরি বোঝা গেল পবিত্র এই বসন্ত উৎসবের অধিকার রয়েছে সবার(Nadia News)। এখানে নেই কোন ভেদাভেদ।

    Mainak Debnath

    First published:

    Tags: Holi Celebration, Nadia

    পরবর্তী খবর