Home /News /local-18 /
Nadia: বাংলা বছরের শেষ দিনে চৈত্র সেলে জমজমাট কৃষ্ণগঞ্জ

Nadia: বাংলা বছরের শেষ দিনে চৈত্র সেলে জমজমাট কৃষ্ণগঞ্জ

চৈত্র

চৈত্র সেলে কেনাকাটায় ব্যস্ত মহিলারা

রাত পেরোলেই নববর্ষ তার আগে চৈত্র সেল থেকে দেদার কেনাকাটা সাধারণ মানুষের

  • Share this:

    কৃষ্ণগঞ্জ: আজ বৃহস্পতিবার চৈত্র সংক্রান্তি। বাংলার সর্বশেষ চৈত্র মাসের আজ শেষ দিন। এবং বাংলা বছর অনুযায়ী আজ বছরের শেষ দিনও বটে।বিগত দুবছর করোনা মহামারীর কারণে সেভাবে বেচাকেনা হয়নি।করোনার প্রকোপ কিছুটা কমতেই সরকার থেকে তুলে নেওয়া হয়েছে বিধি নিষেধ এবং সেই কারণে উৎসবের জোয়ারে গা ভাসিয়েছেন সাধারণ মানুষ তথা আপামর বাঙালি।প্রত্যেক বাঙালির ঘরেই নববর্ষে নতুন জামা কাপড় পরার রীতি-রেওয়াজ রয়েছে। সেই কারণেই নববর্ষের আগেঅর্থাৎ চৈত্র মাসেশুরু হয় চৈত্র সেল৷বিভিন্ন দোকানপাট ও শপিংমলে সাধারণ মানুষের ভিড়। এই সময় ব্যবসায়ীরা পুরোনো স্টক বিক্রি করার জন্য বিভিন্ন সামগ্রীতে দেয় বিশেষ আকর্ষণীয় ছাড়। যাকে চলতি কথায় বলেচৈত্র সেল। এই আকর্ষণীয় ছাড়ের জন্য সাধারণ মানুষ বেরিয়ে পড়েন সেলের মার্কেটে কেনাকাটি করতে। বিশেষত চৈত্র সেলে বিক্রি করতে আসেন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা। গ্রামেগঞ্জে বা মফস্বলে একাধিক জায়গায় তাঁবু খাটিয়ে অস্থায়ী দোকান সাজিয়ে বিভিন্ন জামা কাপড় বিক্রি করে থাকেন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীরা। আর তা কিনতে উৎসবে মেজাজে ভিড় করেন সাধারণ মানুষে। নদিয়ার কৃষ্ণগঞ্জে বছরের শেষ দিনে এমনই এক চৈত্র সেলের মার্কেট ধরা পড়ল আমাদের ক্যামেরায়। রাত পেরোলেই নববর্ষ আর তাই কেনাকাটায় ব্যস্ত সাধারণ মানুষ। এই সেলের মার্কেটে বিভিন্ন জায়গায় বসেছে বিভিন্ন দোকান। রাস্তার ফুটপাতে অস্থায়ী দোকান সাজিয়ে ক্রেতা-বিক্রেতার চলছে দরকষাকষি। সুতরাং বলা যেতে পারে দু'বছর করোনার কাটা পেরিয়ে এবারের চৈত্র সেল জমজমাট মানুষের ভিড়ে। ফলে আশা করা যায়উৎসবমুখরসাধারণ মানুষ নববর্ষের দিনে চৈত্র সেল থেকে আনা নতুন শাড়ি জামা কাপড় পড়ে করোনার তিক্ত অতীতকে ভুলে থাকতে পারবেন।

    First published:

    Tags: Krishnaganj, Nadia

    পরবর্তী খবর